জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি 2022 | জন্ম সনদ তথ্য যাচাই ও ডাউনলোড

জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি সম্পর্কে অনেকেই জানতে চান। জন্মনিবন্ধন নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে ভোগান্তির শিকার হননি এমন লোকের সংখ্যা খুবই কম। অথচ জন্ম সনদ তথ্য যাচাই করণ পদ্ধতি ২০২২ সম্পর্কে জানা থাকলে এবং হাতের নাগালে একটি স্মার্ট ফোন থাকলে জন্ম সনদ যাচাই করা মুহূর্তের ব্যপার মাত্র।

শুধু তাই-ই নয় জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড ও করে নেওয়া যাবে মুহূর্তের মধ্যে। আজকে আমরা জানতে চেষ্টা করবো জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি সম্পর্কে।

এছাড়াও জন্ম সনদ যাচাই করণ, ডাউনলোড এবং জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার পদ্ধতি কি কি এবং আপনাকে কি করতে হবে এ বিষয়ে আদ্দপান্থ জেনে নিন- 

Contents hide

ঘরে বসে অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি ২০২২ 

জন্ম সনদ নিবন্ধন যাচাই একদম সহজ একটি বিষয়। অনলাইন জন্ম সনদ যাচাই বা চেক করার এমনকি ডাউনলোড করার নিয়ম ধাপে ধাপে দেখিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো।

হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে প্রথমে জন্ম তথ্য যাচাই করতে হবে।

প্রথমধাপঃ জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করণ ওয়েবসাইট লিংক

এজন্য প্রথমে এই লিঙ্কে প্রবেশ করতে হবে। জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে এখানে ক্লিক করুন https://bdris.gov.bd/br/search। 

অথবা ছবিটির মতো পেজ ভিউতে যেতে সরাসরি ছবিটির উপর ক্লিক করুন।

ক্লিক করার পর এমন একটি পেজভিউ দেখতে পাবেন।

জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি নতুন পেজ

দ্বিতীয় ধাপঃ জন্ম সনদ নম্বর লিখুন

এখানে আপনি Birth Registration Number লেখার ঘরে যার জন্ম সনদ যাচাই করবেন তার ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদ নাম্বারটি লিখুন।

তার নিচের ফিল্ডে Date of Birth (YYY-MM-dd) লেখার ঘরে যে ব্যক্তির জন্মনিবন্ধন যাচাই করবেন তার জন্ম তারিখ লিখবেন। এক্ষেত্রে প্রথমে বছর তারপরে মাস এবং দিন লিখতে হবে।

তৃতীয় ধাপঃ ক্যাপচা পূরণ

এখন পেজটির শেষ অংশের কাজ অর্থাৎ ক্যাপচা পূরণ করুন। সংখ্যা যোগ বা বিয়োগ অথবা কিছু ছবির ক্যাপচা আসবে যা আপনাকে পূরণ করতে হবে।

সেক্ষেত্রে সংখ্যা যোগ বিয়োগ করতে বললে তার উত্তর নিচের ফাঁকা ঘরে লিখতে হবে।

এই ক্যাপচা মূলত গুগল ইউজার যে হিউম্যান অর্থাৎ মানুষ, তার প্রমানের জন্য গুগল ব্যবহার করে থাকে।

অনেক সময় গুগলে রবোটিক সিস্টেমে কাজ করানো হয়। ক্যাপচা রোবট পূরণ করতে সক্ষম থাকে নাহ। 

বেশ। আশা করছি  আপনি সফল ভাবে যাবতীয় তথ্য বসিয়েছেন। এবার  পেজটির সার্চ অপশনে ক্লিক করুন। 

জন্ম-সনদ-যাচাই-করণ-পদ্ধতি
জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতির পূর্বের পেজ

আপনাদের বিষয়টি সহজ করার লক্ষ্যে এই লাইনের উপরের ছবিটিতে সার্চ অপশন লাল কালি দিয়ে দেখিয়ে দিতে চেষ্টা করেছি। 

কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে আপনি যার জন্ম সনদ যাচাই করতে চাচ্ছেন তার সকল তথ্য আপনার সামনে চলে আসবে। 

ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম

এক্ষেত্রে বলে রাখি, সবকিছু ঠিকঠাক পূরণ করে ফলাফলে যদি লেখা দেখেন যে Matching birth records not found তাহলে বুঝে নিবেন যে ওই ব্যক্তির জন্ম সনদের কোনো একটি তথ্য ভুল আছে অথবা ওই জন্ম সনদটি ডিজিটালাইজ করা হয়নি। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ইউনিয়ন পরিষদ অথবা পৌরসভায় যোগাযোগ করে আপনার জন্ম সনদটি অনলাইন  করে নিবেন।

তো, এতক্ষণে আমরা শেখার চেষ্টা করলাম   জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি -2022 সম্পর্কে।

আশা করছি, এই আর্টিকেলটি পরার পড়ে আপনার আর অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই বা বের করতে বা অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে আর কোনো বেগ পেতে হবে নাহ। 

দেখুন কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করবেন 2022 

আপনি উপরের নিয়ম অনুযায়ী যদি জন্ম সনদ যাচাই করতে পারেন তাহলে বুঝবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল। তাহলে আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন খুব অনায়েশেই। 

খান থেকে জন্ম সনদ অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে হলে জন্ম সনদটি সামনে প্রদর্শনী হওয়ার পরে, আপনি প্রিন্ট কমান্ড (ctrl + P) অর্থাৎ, কিবোর্ডের ctrl বাটন চেপে কিবোর্ডের P বাটনটি চাপেন।

এরপর, আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট টু পিডিএফ সিলেক্ট করে একটি পিডিএফ হিসেবে সেভ করবেন। 

এরপর পিডিএফটি প্রিন্ট করে বা পিডিএফ হিসেবে সংরক্ষণ করতে পারেন। 

এখন, আপনি যদি আপনি আপনার হাতের মোবাইল ফোন দিয়ে জন্ম সনদ যাচাই করে অনলাইন কপি সেভ করে রাখতে চান।

তাহলে, ঠিক একই ভাবে জন্ম সনদ বের করে পিডিএফ ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন অথবা স্ক্রিনসট দিয়ে রাখতে পারবেন। 

 এছাড়াও, আপনার জন্ম সনদটি আপনার ইউনিয়ন, পৌরসভা অথবা সিটি কর্পোরেশন অফিস থেকে জন্ম সনদ ডিজিটাল কপি সংগ্রহ করতে পারবেন। 

এবার জেনে নেওয়া যাক অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই ওয়েবসাইটে ব্যক্তির কি কি তথ্য দেওয়া থাকে যা চাইলেই দেখা সম্ভব? 

ইতিমধ্যে আপনি যে জন্ম সনদ দেখার উদ্দেশ্যে বের করছেন সেখানে যেসব তথ্য দেখতে পাচ্ছেন এর সব তথ্যই অনলাইনে সংরক্ষিত রয়েছে এবং সেখান থেকে প্রদর্শিত হয়ে থাকে।

এর মধ্যে আপনি যেসব তথ্য দেখতে পাবেন, ব্যক্তির নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম, ব্যক্তির লিঙ্গ, সম্পূর্ণ ঠিকানা এবং জাতীয়তা।

এছাড়াও, ব্যক্তির জন্ম সনদ কখন তৈরি হয়েছে এবং কথা থেকে করা হয়েছিলো তার সম্পূর্ণ তথ্য আপনি দেখতে পাবেন। 

সবথেকে মজার বিষয় হলো, আজকে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করেন, তখন আজ পর্যন্ত আপনার বয়স কয় বছর কয় মাস কত দিন এর সব বিস্তারিত সহ দেখতে পাবেন।

কিভাবে শুধু নাম দিয়ে অনলাইন জন্ম সনদ যাচাই করা যায় 

জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি
জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি

হ্যাঁ, আপনি ঠিকই শুনছেন। Birth certificate online verification শুধু মাত্র নামের মাধ্যমেও করা যায়।

কিন্তু এটা আপনি নিজের জন্ম সনদ নিজে অনলাইন যাচাই করতে পারবেন না।

এই রাইট আপনাকে দেওয়া হয়নি।

এটা করার জন্য শুধুমাত্র ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা এবং সিটি কর্পোরেশনকে এই রাইট দেওয়া হয়েছে। 

ধরুন, আপনার জন্ম সনদ হারিয়ে গেছে। আবার আপনার জন্ম সনদের নাম্বার আপনার জানা নেই।

ঘরে বসে মোবাইলে আয় 2022

এমতাবস্থায়, আপনি আপনার ইউনিয়ন বা পৌরসভায় গিয়ে জানালে তারা আপনার নাম লিখে তাদের রাইট ব্যবহার করে আপনার জন্ম সনদ যাচাই করে জন্ম নিবন্ধন নাম্বার বের করে আপনাকে দিতে পারবে।

আপনি চাইলে তার একটি সফট কপি আপনাকেও দিতে পারবে এবং জন্ম সনদ ডাউনলোড pdf আকারেও সংগ্রহ করতে পারেন। 

জন্ম সনদ যাচাই করতে গেলে অনলাইনে তথ্য না পাওয়ার কারণ কি? 

অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করতে গিয়ে আপনার জন্ম সনদ অনলাইনে না পাওয়ার অন্যতম কারণ আপনার জন্ম ০১/০১/২০০১ তারিখের আগে। কারণ, জন্ম নিবন্ধন অনলাইন bdris এ এর ডাটাবেজ সংগ্রহীত করা নাই। 

আপনি যদি এমন সমস্যায় পড়েন, তাহলে এর সমাধানের জন্য অনলাইনে নতুন করে জন্ম নিবন্ধন সনদের জন্য আবেদন করতে হবে।

এক্ষেত্রে আপনাকে যা করতে হবে তা আপনাকে জানানোর জন্য চেষ্টা করছি। চলুন জেনে নেওয়া যাক –

বর্তমান সময় তো অনলাইনের যুগ। আবার আমরা এখন তুলনামূলক ডিজিটাল বাংলাদেশে বসবাস করছি।

অনলাইনে কি না সম্ভব? যদি কোরবানির গরু পর্যন্ত অনলাইনে কিনতে পারি তাহলে জন্ম সনদের জন্য আবেদন কেন করতে পারবো না? হ্যাঁ, ঠিকই পড়ছেন আপনি। 

অনলাইনে সম্পূর্ণ ঝামেলা বিহীন ভাবে অনলাইনে জন্ম সনদের জন্য সরকারি ওয়েবসাইট bdris এর নতুন জন্মনিবন্ধনের জন্য আবেদন এ যেতে হবে।

সরাসরি যেতে bdris birth certificate application এ ক্লিক করুন। 

Bdris birth certificate application এ ক্লিক করার পর সকল তথ্য সঠিক ভাবে দিতে হবে।

এভাবে আবেদন করলে আশা করি একদিনের মধ্যে সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

সরকারি এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করে নতুন জন্ম সনদ আবেদনের সকল তথ্য ওয়েবসাইট ব্যবহার নিয়মাবলীতে দেওয়া আছে। 

আরও পড়ুনঃ ব্লগ লিখে আয় করার উপায়

এবার দেখে নেওয়া যাক জন্ম নিবন্ধন অনলাইন সংশোধন করার উপায়। কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা যায়? যেভাবে করতে হবে অনলাইন জন্ম সনদের অনলাইন সংশোধন- 

আপনি সরকারি ওয়েবসাইট bdris থেকে আমাদের দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করলেন। আপনি দেখতে পেলেন আপনার জন্ম সনদে বেশ কিছু ভুল আছে।

এখানে বলে রাখা ভালো, একটি আকার বা ই কারের ভুল; মানেও মারাত্মক ভুল। এই ভুল দেখা মাত্র আপনি নিজেই সংশোধন করে নিতে পারবেন। 

সেক্ষেত্রে  এখানেও আপনাকে সরকারি ওয়েবসাইট bdris এর সংশোধন শাখায় যেতে হবে। আপনাদের সুবিধার্থে অনলাইনে জন্ম সনদের ভুল সংশোধনের উপায় এ ক্লিক করুন। 

ক্লিক করার পর নিচের ছবিতির মতো একটি পেজ দেখতে পাবেন। 

অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই
অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই

এখানে দেখতে পাবেন ৪ টি বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে।

এগুলি মনোযোগ দিয়ে পড়ে তার মধ্যে থেকে দেখে নিন আপনার সমস্যা এখানে আছে কি না এবং সমাধান যোগ্য কি না।

সমাধান যোগ্য হলে ৪ টি বিষয়ের নিচে জন নিবন্ধন নম্বরের জায়গায় আপনার জন্ম সনদের নাম্বার বসিয়ে অনুসন্ধানে ক্লিক করুন। 

অনুগ্রহ করে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন।

আপনার নেট কানেকশন ফাস্ট হলে খুব কম সময়ের মধ্যে চলে আসবে আপনার জন্ম সনদের সংশোধনী করার সকল ধাপগুলো।

এবার আপনার সমসসার সমাধান করে ফাইলটি সেভ করে দিন।

ব্যাচ, হয়ে গেলো আপনার জন্ম সনদ সংশোধন। অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে এমনকি হাতের স্মার্ট ফোন থেকেও করে নিতে পারেন এই সহজ প্রক্রিয়ার কাজটি। 

এবার আপনার জন্ম সনদটি জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি 2022 অবলম্বন করে দেখে নিন। দেখতে পাবেন আপনার সংশোধনী জন্ম সনদটি দেখতে পাবেন। 

এবার জেনে নেওা যাক জন্ম তথ্য যাচাই – online bris ব্যবহার করে কিভাবে বাংলা থেকে ইংরেজি করা যায় আপনার জন্ম সনদ 

আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করে বাংলা থেকে ইংরেজিতে করতে প্রথমেই সরকারি জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট bdris এ ক্লিক করুন।

এরপর ওয়েবসাইট থেকে তথ্য সংশোধন মেন্যুতে প্রবেশ করুন। এরপরের স্টেপে, আপনার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ ব্যবহার করে জন্ম সনদ বের করুন। 

এরপরের তৃতীয় স্টেপ হিসেবে আপনি যে ইউনিয়ন অথবা পৌরসভায় আবেদন করছিলেন সেখাঙ্কার নিবন্ধন কার্যালয় সিলেক্ট করুন।

এরপর ইংরেজি তথ্য যুক্ত করে ঠিকানা বিস্তারিত যা যা দরকার সব লিখুন। এরপর আবেদনকারী অর্থাৎ, যার জন্ম সনদ তার তথ্য প্রদান করে সাবমিট করে দিন। 

বেশ হয় গেল আপনার জন সনদ বাংলা থেকে ইংরেজি করা। 

এবার জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করি। এর সব প্রশ্ন বিভিন্ন জনমনে ঘুরপাক খাচ্ছে যার উত্তর আমরা নিয়ে আসছি।

জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি পোস্টে চেষ্টা করছি আপনাদের সর্বাধিক কমন সমস্যার সমাধান দিতে।

আমরা মনে করি এই আর্টিকেলটি পরার পড়ে জন্ম নিবন্ধন নিয়ে আপনাকে যেন আর কোন আর্টিকেল পড়তে না হয়। 

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক এপপ্স

প্রিয় পাঠক জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক এপপ্স নামে কোন অ্যাপ নেই। আপনাকে জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করতে https://bdris.gov.bd/br/search ওয়েবপেজ ভিজিট করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ

জন্ম সনদ নিবন্ধন সংক্রান্ত প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্নঃ  জন্ম নিবন্ধন কি?

উত্তরঃ জন্ম মৃত্যু নিবন্ধন আইন ২০০৪ এর ২৯ নাম্বার আইন অনুযায়ী এর আওতায় একজন ব্যক্তির নাম, লিঙ্গ, জন্ম তারিখ, জন্ম স্থান, পিতা মাতার নাম, জাতীয়তা এবং স্থায়ী ঠিকানা নির্ধারিত কোন নিবন্ধক কত্রিক রেজিস্টারের দ্বারা লেখা বা এন্ট্রি প্রদান এবং জন্ম সনদ প্রদান করাই হলো জন্ম নিবন্ধন। 

প্রশ্নঃ ঝামেলা বিহীন সরকারি কোন এপস বা ওয়েবসাইট শুধুমাত্র জন্ম সনদ কেন্দ্রিক ? 

উত্তরঃ জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সবকিছু একমাত্র  bdris ওয়েবসাইট এবং এপস এক্মাত্র ঝামেলা বিহীন জন্ম সনদ কেন্দ্রিক সরকারি ওয়েবসাইট।  

প্রশ্নঃ অনলাইনে জন্ম সনদ করা যায় কি না? 

উত্তরঃ হ্যাঁ। অবশ্যই অনলাইনে জন্ম সনদ আবেদন করে করা যায়। এর পূর্ণ প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে এই আর্টিকেলের উপরে উল্লেখ করে আসছি। চেষ্টা করেছি আপনাদের সুন্দর করে বোঝানর। 

প্রশ্নঃ ১৭ ডিজিটের থেকে কম নাম্বারের জন্ম সনদ ১৭ ডিজিটের করা যায়? করা গেলে তা অনলাইনে কিভাবে করা যায়? 

উত্তরঃ ধরুন আপনার জন্ম সনদটি ১৬ সংখ্যার। তাহলে প্রথম ১১ ডিজিটের পর ০ যুক্ত করেন। এভাবে ১৭ ডিজিটের করা যাবে। অনলাইনের মাধ্যমে করতে হলে bdris অয়েবসাইতে গিয়ে সংসধনিতে গিয়ে সংশোধন করতে হবে। 

প্রশ্নঃ এখনো যাদের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কয়া হয়নি এগুলর সমাধান কি? 

উত্তরঃ ম্যনুয়াল জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার জন্য বেশ কয়কবার সময় দেওয়াহয়েছে। তারপরেও যারা করেনি তাদের এখন  এই একই নম্বর দিয়ে অনলাইন করার সুযোগ নাই।

এদের এখন নতুন করে জন্ম সনদ করতা হবে। এতে করে জন্ম সনদটি পরিবর্তন হয়ে যাবে।

তবে এজন্য নাগরিকের কোন ক্ষতি বা সমস্যা হবে নাহ। 

প্রশ্নঃ এর আগের সফটওয়ারে সংশোধিত BDRIS তথ্য সফটওয়ারে পাওয়া না গেলে করণীয় কি? 

উত্তরঃ এমন হলে সে সকল তথ্যের তালিকা নির্বাহী অফিসারের বা ডিডিএলজির মাধ্যমে রেজিস্টার জেনারেলের কার্যালয়ে প্রেরণ করা হলে তা সেখান থেকে হালনাগাদ করে দেওয়া হবে। 

তবে এই কাজ ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনের করণীয় কাজ। এই কাজ সাধারন জনগনের নয়।

সাধারন জনগন তাদের সংশোধিত তথ্য বা জন্ম সনদ BDRIS এ না পেলে ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি করপরেশনে জানাবে শুধু মাত্র।

প্রশ্নঃ জমজ সন্তানের বেলায় কোন পদ্ধতিতে জন্ম সনদ করতে হবে? 

উত্তরঃ জমজ সন্তানদের জন্ম সনদের বেলায় প্রথম একের পর এক আবেদন করতে হবে। এর পর নিবন্ধন করতে হবে। একটি নিবন্ধন সম্পন্নের পর আরেক্তি করলে তেকনিক্যাল সমস্যায় পরতে হবে। 

প্রশ্নঃ বিবাহিত নারীর বেলায় স্বামীর নাম এবং স্থায়ী ঠিকানা কোনটি হবে? 

উত্তরঃ যেকোনো জন্ম সনদে শুধুমাত্র মাতা এবং পিতার নাম লিখতে হবে। জন্ম সনদে কোনো অবস্থাতেই স্বামীর নাম লেখার সুযোগ নাই। আর বিবাহিত মহজিলার স্থায়ী ঠিকানা হবে পুরবে যে ঠিকানা দেওয়া ছিল সেটিই। 

প্রশ্নঃ বাংলা ও ইংরেজী সনদ একসাথে প্রদান করা যাবে কিনা?

উত্তরঃ হ্যাঁ, বাংলা ও ইংরেজী সনদ একইসাথে প্রদান করা যাবে এবং এটি এখন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হববে নাহ। প্রয়োজন হলে একটি কাগজের এক পিঠে বাংলা এবং  অপরপিঠে ইংরেজী জন্ম সনদ প্রদান করা যাবে।

প্রশ্নঃ পিতা মাতার বিবাহ বিচ্ছেদ বা একজন হারিয়ে গেলে সন্তানের জন্ম সনদ কিভাবে করতে হবে? 

উত্তরঃ এমন পরিস্থিতিতে পিতা অথবা মাতা একজনের তথ্য, অর্থাৎ যার পরিচয়ে সন্তান থাকবে তাকে অবিভাভক পিতা অথবা অভিভাবক মাতা করে শুধু একজনের তথ্য দিয়েই জন্ম সনদ করতে হবে বা করা যাবে। 

প্রশ্নঃ পিতা অথবা মাতা যে কোনো একজন বিদেশি হলে সন্তানের জন্ম নিবন্ধন কিভাবে করতে হবে?

 উত্তরঃ বাবা অথবা মা যিনি দেশি থাকবেন তার স্থায়ী থিকানার প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিয়ে যোগাযোগ করতে হবে। এরপর নিবন্ধক প্রয়োজনীয় হালনাগাদ শেষে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার অনুমতিক্রমে সন্তানের জন্ম সনদ করে দিবেন। 

হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই ও ডাউনলোড সম্পর্কে বেশি জানতে চাওয়া প্রশ্ন

জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি কি?

নিজেই নিজের জন্ম সনদ যাচাই করতে https://bdris.gov.bd/br/search লিংকে প্রবেশ করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ নম্বর, জন্ম তারিখ ও কেপছা পূরণের মাধমে জন্ম সনদ চেক করতে পারবেন।

অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করার উপায়?

অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করতে আপনাকে https://bdris.gov.bd/br/search লিংকে প্রবেশ করে সনদ নম্বর ও জন্ম তারিখ লিখে কেপছা পুরন করতে হবে।

হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার উপায়?

যদি আপনার কাছে হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন নম্বর না থাকে তবে সনদ হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে বা পেতে আপনাকে আপনার এলাকার উনিয়ন পরিশদে যেতে হবে। তারা আপনাকে আপনার নাম দিয়ে সার্চ করে হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করে দিবে।

আরও পড়ুনঃ

পসংহার

পরিশেষে বলতে চাই, এতক্ষণ আর্টিকেলটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

আমাদের দিক থেকে আমরা সর্বাধিক চেষ্টা করেছি জন্ম সনদ সম্পর্কে আপনাদের জানানোর।

আপনাদের জানানোর জন্য আমরা সবসময় মুখিয়ে থাকি।

আপনি আমাদের পাশে থেকে নিত্য নতুন বিষয় নিয়ে জানতে শিখতে পারেন।  

আশা করছি আজকের লেখাতি আপনাদের জন্য অনেক উপকারী ছিলো।

জন্ম সনদ বা জন্ম নিবন্ধন নিয়ে আর একটিও আর্টিকেল পড়তে হবে না আপনাকে, যদি আপনি এই আর্টিকেলটি পড়েন সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে। 

আমাদের সাথে থাকতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিত করুন এবং চোখ রাখুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে।

ধন্যবাদ। 

Leave a Comment

eighteen − 9 =