আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান ২০২৩ | হেড টু হেড কে এগিয়ে

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান 2023 সম্পর্কে অনেকেই জানতে চান। আর্জেটিনা বনাম ফ্রান্স ফুটবল দল দুটির মধ্যে কোন দল বেশি শক্তিশালী, সর্বশেষ খেলা 10টি ম্যাচে কোন দলের জলের সংখ্যা বেশি এই সম্পর্কে আপনারা জানতে পারবেন আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে। আসন্ন আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স ম্যাচের পূর্বে Argentina vs France Stats 2023 জানতে চাইলে অবশ্যই এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো, আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান। তার আগে কিছু বলে নিতে চায়। বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর শুরু হলেই ধুম পড়ে যায় জমজমাট উত্তেজনার। আর ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা এই দল দুইটি থাকে সবার আলোচনার শীর্ষে। আবার, জার্মানি, পর্তুগাল, ফ্রান্স দলগুলোর সাপোর্টারও পাওয়া যায় অনেক। ফ্রান্স ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন। আজ আমরা আলোচনা করব আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান নিয়ে। 

ইতিহাসে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে বেশ কয়েকবার, কোন দল বেশি সংখ্যক বার ম্যাচে জয়ী হয়েছে তাও থাকছে এই লেখায়। একই সাথে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় হার ও জয় নিয়েও আলোচনা করব। সাথে ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ ২০২২ এ আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা কতটুকু, তা-ও জানিয়ে দিবো লেখার একদম শেষে। 

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান | Argentina vs France Stats

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান ২০২৩
আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান ২০২৩

এখানে আপনাদের সুবিধার্থে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের মুখোমুখি হওয়া প্রত্যেকটি ম্যাচ সম্পর্কে আমরা নিচের ছকে দেখিয়ে দিয়েছি। কোন দল কত গোলে বিজয়ী হয়েছিল,  ম্যাচগুলোর আয়োজক কে ছিল, ম্যাচগুলো কবে অনুষ্ঠিত হয়েছিল, তার সব তথ্য দিয়ে দিচ্ছি এই পরিসংখ্যান-এ। তাহলে, চলুন দেখে নেয়া যাক, আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান।

তারিখ/সময়দলগোলবিজয়ী দলপ্রতিযোগী
১৫ জুলাই, ১৯৩০আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স ১ – ০আর্জেন্টিনা Fifa World Cup
৩ জুন, ১৯৬৫আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স০ – ০ম্যাচ ড্রInternational Friendly
৮ জুন, ১৯৭১আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স৩ – ৪ফ্রান্সInternational Friendly
১২ জানুয়ারি, ১৯৭১আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স২ – ০আর্জেন্টিনাInternational Friendly
২৫ জুন, ১৯৭২আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স০ – ০ম্যাচ ড্রIndependence 
১৮ মে, ১৯৭৪আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স১ – ০আর্জেন্টিনাInternational Friendly
২৬ জুন, ১৯৭৭আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স০ – ০ম্যাচ ড্রInternational Friendly
৬ জুন, ১৯৭৮আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স২ – ১আর্জেন্টিনাFifa World Cup
৬ মার্চ, ১৯৮৬আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স০ – ২ফ্রান্সInternational Friendly
৭ ফেব্রুয়ারী, ২০০৭আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স১ – ০আর্জেন্টিনাInternational Friendly
১১ ফেব্রুয়ারী, ২০০৯আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স২ – ০আর্জেন্টিনাInternational Friendly
৩০ জুন, ২০১৮আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স৩ – ৪ফ্রান্সFifa World Cup
আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান থেকে প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণ

এখন পর্যন্ত পরিসংখ্যান বলছে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স দুইটি দলই বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন। আর্জেন্টিনা সর্বশেষ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয় ১৯৮৬ সালে। আর অন্যদিকে ফ্রান্স সর্বশেষ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়নের শিরোপা জিতে নেয় ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে। 

আর্জেন্টিনা বনাম  ফ্রান্স পরিসংখ্যান এর দিকের একদম শুরুতে তাকালে দেখা যায়, এই দল দুইটির প্রথম খেলা অনুষ্ঠিত হয় ১৯৩০ সালের ১৫ জুলাই। আর সেবছর প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ। তবে ১-০ গোলের ব্যবধানে আর্জেন্টিনা ফ্রান্সকে হারিয়ে দিয়ে জিতে যায়। সেই ম্যাচটির আয়োজক মূলত ফিফা বিশ্বকাপ ছিল।

কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ছাড়াও আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স একে অপরের বিপক্ষে বেশ কিছু প্রতিযোগিতার অধীনে ম্যাচ খেলেছিল। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সময় খেলেছে,

  • আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ এর অধীনে – ৮ বার
  • দ্বিতীয়ত, ফিফা বিশ্বকাপএর অধীনে – ৩ বার
  • তৃতীয়ত, Independence এর হয়ে – ১ বার

আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের অনুষ্ঠিত হওয়া ১২ টি ম্যাচের মধ্যে, আর্জেন্টিনা জয়ী হয় ৬ বার, জেতার হার- ৫০%, ফ্রান্স জয়ী হয় ৩ বার, জেতার হার- ২৫%, ম্যাচ ড্র হওয়ার হার- ২৫%

সবচেয়ে বড় জয় ও সবচেয়ে বড় হার

আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের একে অপরের বিপক্ষে ম্যাচ খেলে উভয় পক্ষের সবচেয়ে বড় জয় ও সবচলয়ুবর হারের ফলাফল বিশ্লেষণঃ

ফ্রান্সের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় জয়-

১২ জানুয়ারী, ১৯৭১ ও ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০০৯ এই দুই বার আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় জয় হয় ফ্রান্সের বিপক্ষে।  কারণ, এই দুইবারই আর্জেন্টিনা ফ্রান্সকে হারিয়ে দেয় ২ গোলের ব্যবধানে। আর ফ্রান্সের গোলসংখ্যা ছিল ০। 

ফ্রান্সের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় হার-

৬ মার্চ ১৯৮৬ এর ম্যাচে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় হার হয় ফ্রান্সের বিপক্ষে। সেবার ফ্রান্স আর্জেন্টিনাকে ২ – ০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে দেয়। 

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় জয়-

৬ মার্চ ১৯৮৬ এর ম্যাচে ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় জয় হয় আর্জেন্টিনার বিপক্ষে। সেবার ফ্রান্স আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে দেয়। 

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ফ্রান্সের বড় হার-

১২ জানুয়ারী, ১৯৭১ ও ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০০৯ এই দুই বার ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় জয় হয় আর্জেন্টিনার বিপক্ষে।  কারণ, এই দুইবারই আর্জেন্টিনা ফ্রান্সকে হারিয়ে দেয় ২ গোলের ব্যবধানে। আর ফ্রান্সের গোলসংখ্যা ছিল ০। তাই ফ্রান্স শেষ পর্যন্ত হেরে যায়।

ডিসকাউন্টে সকল সিমের মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার
ক্রয় করতে DESH OFFER সাইটে ভিজিট করুন।

আর্জেটিনা বনাম ফ্রান্স কোন দল বেশি শক্তিশালী?

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান এর দিকে লক্ষ করলে বেশ ভালোভাবেই লক্ষ করা যায় যে, আর্জেন্টিনা আর ফ্রান্স দুইটি দলই মাঠে নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলার চেষ্টা করে। তবে পরিসংখ্যান অনুযায়ী ফ্রান্সের তুলনায় আর্জেন্টিনার জিতে যাওয়ার হার দ্বিগুণ।  

সর্বশেষ আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান দেখলে আরো দেখা যায়, আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স দুই দল মিলে মোট ১২ টি ম্যাচ খেলেছে। সে দিক থেকে ফ্রান্স জিতেছে মাত্র ৩ টি ম্যাচ। আর আর্জেন্টিনা জিতেছে ৬ টি ম্যাচ। আর ড্র হয়েছে তিনটি ম্যাচ।

ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনার ম্যাচ জিতে যাওয়ার হার এর দিকে লক্ষ করলে ফ্রান্স এর জিতে যাওয়ার হার আর্জেন্টিনার জিতে যাওয়ার হারের তুলনায় অর্ধেক। মাঠে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স দুইটি দলই আক্রমণাত্মক। বিশেষ করে আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি ও ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পে মাঠে একে অপরের মুখোমুখি হলে কতটা আক্রমণাত্মক হবে তা বোঝা কারোর জন্য কঠিন নয়।

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনা কোন মহাদেশে অবস্থিত?

আর্জেন্টিনা কতবার কোপা আমেরিকা জিতেছে

ফিফা বিশ্বকাপ লাইভ ২০২৩ | FIFA World Cup Live 2023

এবারের কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স দুইটি দলই অংশগ্রহন করেছে। ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পে প্রথম থেকেই চমক দেখাচ্ছেন এবারের বিশ্বকাপে। আর আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসির এটা শেষ বিশ্বকাপ হলেও, তিনি মাঠের মধ্যে প্রাণখোলা পারফরম্যান্স করেছেন। তবে এবারো প্রথম থেকে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স একসাথে ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ ২০২২ এর মাঠে নামেনি। 

ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ এর ময়দানে আর্জেন্টিনা গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচটিতে হেরে গেলেও পরের প্রতিটি ম্যাচ জিতে যায়। আর নক আউট পর্ব পেরিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে আসে। সর্বশেষ কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচটি পেনাল্টি শুট আউট পর্যন্ত গড়ায়।

ডিসকাউন্টে সকল সিমের মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার
ক্রয় করতে DESH OFFER সাইটে ভিজিট করুন।

এরপরে আর্জেন্টিনা শেষ পর্যন্ত ম্যাচে বিজয়ী হয়ে নিজেদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে নেয়। আর অন্যদিক থেকে ফ্রান্সও বেশ ভালো পারফরম্যান্স দেখিয়েছে প্রথম থেকে। ফ্রান্স ও ইংল্যান্ড একে অপরের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে এবার।

ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স দুইটি দলই মাঠে উত্তেজিত অবস্থায় থাকে। কিন্তু দুই দলই বেশ ভালো, আর পূর্বে বিশ্বকাপ জিতে নেয়া চ্যাম্পিয়ন। তবে ফ্রান্স ও ইংল্যান্ড খেলার মাঠে একে অপরকে ছাড় দিয়ে চলবে না। দুই দলই মাঠে নিজেদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করবে, সেমিফাইনালে নিজেদেরকে টিকিয়ে রাখার লক্ষ্যে।

আর যদি আর্জেন্টিনার মতো ফ্রান্সও এবার সেমিফাইনালে উঠে যায়, আর সেমিফাইনাল থেকে আর্জেন্টিনা ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলে যদি ফাইনালে উঠে যায়। অন্যদিকে ফ্রান্স মরক্কো বা পর্তুগালের বিপক্ষে খেলে শেষ পর্যন্ত যদি ফাইনালে উঠে যায়, তাহলে, ফাইনাল ম্যাচে আবারও দেখতে পাওয়া যাবে আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স এর ম্যাচ। আর একই সাথে আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান এ যুক্ত হবে আর একটি নতুন ম্যাচ।

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় পরাজয়গুলো কি?

আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ কতবার নিয়েছে?

অলিম্পিক ফুটবল চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা কত বার?

উপসংহার,

আশা করি আপনারা সকলে আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান সবটুকু জানতে পেরেছে। 

বিশ্বকাপ নিয়ে যদি এরকম আরো নতুন নতুন লেখা পেতে চান, তাহলে অবশ্যই আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন।

আর একই সাথে এই লেখা নিয়ে কোনো ধরনের মন্তব্য থাকলে বা কোনো প্রকার অভিযোগ থাকলে তা জানিয়ে দিন কমেন্ট সেকশনে।

কমদামে মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার কিনতে ভিজিট করুনঃ এখানে ক্লিক করুন
ডিজিটাল টাচ ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এই পেজ ভিজিট করুন
ডিজিটাল টাচ সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুনঃ এই লিংকে
অনলাইনে টাকা ইনকাম সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুনঃ www.digitaltuch.com সাইট ।

Leave a Comment