জুম্মার নামাজ কয় রাকাত? | জুম্মার নামাজের নিয়ত এবং নিয়ম জানুন

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ জুম্মার নামাজ কয় রাকাত এই সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকে গুগলের মাধ্যমে সার্চ করেছেন। জুমার নামাজ সম্পর্কে জানার আগ্রহের শেষ মানুষের কখনোই নেই। সাপ্তাহিক প্রধান ইবাদাত হচ্ছে জুম্মার নামাজ।

প্রতি সপ্তাহে একবার করে মুসলমান মমিন ব্যক্তিরা জুম্মার নামাজ উপলক্ষে জামে মসজিদে একত্রিত হয়। সকলের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একসাথে নামাজ আদায় করেন।

এছাড়া নামাজের আগে খুতবা শোনা এবং ইমাম সাহেবের মুখে ইসলাম সম্পর্কে নানান জ্ঞান মূলক কথা শোনা হয়।

মহান আল্লাহ তায়ালা এই জুম্মার দিন টিকে বিশেষ একটি দিন হিসেবে মানুষের কাছে প্রেরণ করেছেন।

এই জুমার দিন সম্পর্কে সকল বিষয়ে জানা থাকা আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

তাই আজকের এই আর্টিকেলে আমরা জুম্মার নামাজ সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

জুম্মার নামাজ কত রাকাত

জুম্মার নামাজ কত রাকাত
জুম্মার নামাজ কত রাকাত

ইসলামিক শরীয়ত অনুযায়ী জুম্মার নামাজ দুই রাকাত ফরজ।

এ বিষয়টি নিয়ে কোন ব্যক্তির কোন ধরনের মত পার্থক্য নেই।

কিন্তু ফরজের আগে চার রাকাত এবং ফরজের পর চার রাকাত রয়েছে।

তাই অধিকাংশ মানুষ সর্বমোট দশ রাকাত নামাজ আদায় করে থাকে।

আবার এছাড়াও অনেকেই জুম্মার সময় দুই রাকাত সুন্নত নামাজ আদায় করে।

যদিও মানুষের মাঝে সুন্নত নিয়ে অনেক মতামত রয়েছে কিন্তু দুই রাকাত ফরজ নামাজ নিয়ে কোন শঙ্কা নেই।

জোহরের নামাজের পরিবর্তে সপ্তাহে একটি দিনে ফরজ হিসেবে দুই রাকাত জুম্মার নামাজ আদায় করতে হয়।

যদিও সময় একই কিন্তু যোহর নামাজের সঙ্গে জুম্মার নামাজের নিয়ম গত কিছু পার্থক্য রয়েছে।

সপ্তাহের একটি দিন শুক্রবারে প্রাপ্তবয়স্ক মুমিন-মুসলমান একটি নির্দিষ্ট সময়ে একই স্থানে একত্রিত হয়ে জামায়াতের সঙ্গে যে দিনে যোহর নামাজের পরিবর্তে এই নামায ফরয আদায় করে সেজন্যই নাম আজকে জুম্মার নামাজ বলা হয়।

জুমার নামাজের গুরুত্ব ও ফজিলত সম্পর্কে কোরআনুল কারিমে আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেন-

 یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوۡۤا اِذَا نُوۡدِیَ لِلصَّلٰوۃِ مِنۡ یَّوۡمِ الۡجُمُعَۃِ فَاسۡعَوۡا اِلٰی ذِکۡرِ اللّٰهِ وَ ذَرُوا الۡبَیۡعَ ؕ ذٰلِکُمۡ خَیۡرٌ لَّکُمۡ اِنۡ کُنۡتُمۡ تَعۡلَمُوۡنَ –  فَاِذَا قُضِیَتِ الصَّلٰوۃُ فَانۡتَشِرُوۡا فِی الۡاَرۡضِ وَ ابۡتَغُوۡا مِنۡ فَضۡلِ اللّٰهِ وَ اذۡکُرُوا اللّٰهَ کَثِیۡرًا لَّعَلَّکُمۡ تُفۡلِحُوۡنَ

‘হে মুমিনগণ! জুমার দিনে যখন নামাজের আজান দেওয়া হয়, তখন তোমরা আল্লাহর স্মরণের পানে তাড়াতাড়ি করো এবং বেচাকেনা বন্ধ করো।

এটা তোমাদের জন্যে উত্তম যদি তোমরা বুঝ।

এরপর নামাজ সম্পন্ন হলে তোমরা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড় এবং আল্লাহর অনুগ্রহ (রিজিক) তালাশ কর ও আল্লাহকে অধিক স্মরণ করো, যাতে তোমরা সফলকাম হও।’ (সুরা জুমুআ : আয়াত ৯-১০)

যোহরের নামাজ কয় রাকাত

বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার নাম

জুম্মার নামাজের নিয়ত | জুম্মার নামাজ কয় রাকাত

চার রাকাত কাবলাল জুম্মার নিয়ত:

বাংলা উচ্চারণঃ নাওয়াইতু আন উছাল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা আরবায়া রাকাআতি ছালাতি কাব্‌লাল জুমুয়াতি, সুন্নাতি রাসূলিল্লাহি তয়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল্‌ ক্বাবাতিশ্‌ শারীফাতি আল্লাহু আক্‌বার।

অর্থঃ আমি কেবলামুখী হয়ে আল্লাহ্‌র ওয়াস্তে চার রাকায়াত কাবলাল জুম্মার সুন্নতে মুয়াক্কাদা নামাজের নিয়ত করলাম। আল্লাহু আকবর।

জুম্মার দুই রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ত:

বাংলা উচ্চারণ: নাওয়াইতু আন্‌ উসকিতা আন্‌ জিম্মাতী ফারদুজ্জহ্‌রি, বি-আদায়ি রাকয়াতাই ছালাতিল্‌ জুমুয়াতি, ফারজুল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল্‌ ক্বাবাতিশ্‌ শারীফাতি আল্লাহু আক্‌বার।

অর্থঃ আমার উপর জুহরের ফরজ নামাজ আদায়ের যে দায়িত্ব রয়েছে, আমি কেবলামুখী হয়ে, জুম্মার দুই রাকায়াত ফরজ নামাজ আদায়ের মাধ্যমে তা পালনের নিয়ত করলাম।

আল্লাহু আকবর।

চার রাকাত বাদাল জুম্মার নিয়ত:

বাংলা উচ্চারণঃ নাওয়াইতু আন উছাল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা আরবায়া রাকাআতি ছালাতি বাদাল জুমুয়াতি, সুন্নাতি রাসূলিল্লাহি তয়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল্‌ ক্বাবাতিশ্‌ শারীফাতি আল্লাহু আক্‌বার।

অর্থঃ আমি কেবলামুখী হয়ে আল্লাহ্‌র ওয়াস্তে চার রাকায়াত বাদাল জুম্মা সুন্নাতে মুয়াক্কাদা নামাজের নিয়ত করলাম। আল্লাহু আকবর।

আরও পড়ুনঃ

ফজরের নামাজ কয় রাকাত

১ মিটার সমান কত ইঞ্চি 

আমার বন্ধু শেখ রাসেল রচনা

জুম্মার নামাজ কয় রাকাত FAQS

জুম্মার নামাজ কয় রাকাত?

ইসলামিক শরিয়ত অনুযায়ী জুম্মার নামাজ ফরজ ২ রাকাত। এবং ফরজের আগে ৪ রাকাত এবং পরে ৪ রাকাত সুন্নত আদায় করা হয়। এছাড়াও এর বাহিরে অনেক মুসলিম ২ রাকাত সুন্নত আদায় করে।

জুম্মার ২ রাকাত ফরজ নামজের নিয়ত?

নাওয়াইতু আন্‌ উসকিতা আন্‌ জিম্মাতী ফারদুজ্জহ্‌রি, বি-আদায়ি রাকয়াতাই ছালাতিল্‌ জুমুয়াতি, ফারজুল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল্‌ ক্বাবাতিশ্‌ শারীফাতি আল্লাহু আক্‌বার।

উপসংহার 

প্রিয় পাঠকগণ জুম্মার নামাজ কয় রাকাত এই সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগলের মাধ্যমে সার্চ করেছিলেন।

আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদের সাথে জুম্মার নামাজ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভাল লেগেছে এবং আপনারা সঠিক নিয়মে জুম্মার নামাজ আদায় করবেন।

মহান আল্লাহ তা’আলা আমাদের সকলকে সঠিক নিয়মে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করার তৌফিক দান করুন।

আমিন।

আপনারা যারা ভাবছেন অনলাইন থেকে টাকা আয় করা যায় কিভাবে তাদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে অনলাইন কাজের গাইড লাইন সহ আর্টিকেল রয়েছ।

সেই সকল আটিকেল গুলো পড়ে আপনি ও আপনার ক্যারিয়ারকে অনলাইনে করে তুলতে পারেন।

তাই অবশ্যই ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট এবং জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজে

Leave a Comment

six + 4 =