কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয় আপনি জানেন কি?

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয় এই বিষয়ে জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগল সার্চ করে থাকেন। আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের সাথে আলোচনা করব কোন ভিটামিন আপনার শরীরে কম থাকলে আপনার মুখে এ ধরনের অস্বস্তিকর ঘা হয়ে থাকে।

মূলত যখন এই ঘা মুখে হয় সেই সময় কোন খাবার খেতে ভালো লাগে না এবং অস্বস্তিকর একটা অবস্থায় আপনি পড়ে যান।

এছাড়াও সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে আপনার মুখের ভিতর এই “ঘা” এর কারণে সারাক্ষণ জ্বালাপোড়া করে। কোন ধরনের খাবার খাওয়া সম্ভব হয়না যদিও খেতে যাই সেক্ষেত্রেও ব্যথা শুরু হয়।

কিন্তু আপনার মুখের মধ্যে যদি প্রতিনিয়ত এ ধরনের ঘা হয় তাহলে এটি মোটেও ভালো কোনো লক্ষণ নয়।

মানুষের শরীরে বিভিন্ন ধরনের রোগ হয়ে থাকে সেইরূপ গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে আলসার।

মুখের মধ্যে আলসার হওয়ার বিভিন্ন কারণ থাকে। অনেক সময় নির্দিষ্ট কোন ভিটামিনের অভাবে ও আপনার মুখের মধ্যে আলসার রোগটি হতে পারে।

মুখে ঘা হওয়ার কারণ কি? কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয়

মুখে ঘা হওয়ার কারণ কি কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয়
মুখে ঘা হওয়ার কারণ কি? কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয়

বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের মতে, ভিটামিন বি১২ এবং শরীরে জিংকের অভাব থাকলে অনেক সময় মুখের মধ্যে ঘা হয়। চিকিৎসকদের মতে, আপনার মুখে আলসার হওয়ার কারণ হতে পারে এ ধরনের ভিটামিনের অভাব।

এ ধরনের সমস্যা যেকোনো মানুষের ক্ষেত্রেই হতে পারে। আবার আপনার যে শুধুমাত্র ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হবে এমন কিন্তু নয়। 

সাধারণত দাঁত, মাড়ি, জিব্বা বা রুবেলের ভিতরে যদি কোন ধরনের সংক্রমণ হয় তাহলে সেখান থেকে কিন্তু মুখে ঘা হতে পারে।

এই সকল উপসর্গ গুলো ছাড়াও আপনারা যারা সিগারেট, জর্দা সহ বিভিন্ন ধরনের তামাক গ্রহণ করে থাকেন তাদের মুখেও এ ধরনের ঘা হতে পারে। 

অনেক সময় মুখের ভিতর ঘা থেকে বড় ধরনের সমস্যায় আপনারা পড়তে পারেন।

এছাড়াও যদি আপনাদের দাঁতের মধ্যে ক্ষয় হয় তাহলে সেটি মারীতে ক্রমাগত লেগে লেগে ঘা তৈরি করে থাকে। 

আপনারা যদি সঠিক সময়ে এ ধরনের ঘা এর চিকিৎসা না করেন তাহলে পরবর্তীতে আপনারা বড় ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন।

যখন আপনার মুখের মধ্যে ঘা হয় তখন ঝাল জাতীয় বা গরম কিছু খাওয়া সম্ভব হয়না। ঝাল বা নুন খেলে আপনার নানান ধরনের সমস্যা হয়। 

মুখের ঘা দূর করার উপায় 

আপনাদের মুখের ঘা অনেক সময় বেশ কিছু দিন স্থায়ী থাকে। 

আবার অনেকের ক্ষেত্রে এটি দুই সপ্তাহের মধ্যেই সেরে যায়। তবে এই ঘা বার বার হওয়া ঠিক নয় বলে ধারণা করেন চিকিৎসকরা। 

পরে একাধিক শারীরিক সমস্যা আসতে পারে এমনকি আপনার পরবর্তীতে একটি জটিল রোগ ধরা দিতে পারে। 

তাই আপনার মুখে যদি ঘা বারবার ফিরে আসে তাহলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন। 

যদি আপনার মুখে ভিটামিনের অভাবে ঘা হয়ে থাকে তাহলে সেই ক্ষেত্রে পুষ্টির ঘাটতি মেটাতে প্রচুর পরিমাণে সবুজ শাকসবজি এবং ফলমূল খান। 

এর পাশাপাশি আপনি নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবারের মধ্যে তাজা সবজিগুলো রাখুন।

মূলত আপনাদের এই সময়ে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন রয়েছে এবং মিনারেল রয়েছে, এ ধরনের খাবার শরীরের জন্য বেশি প্রয়োজন। 

মুখের ভিতর যদি আলসার অথবা ঘা হয় তাহলে সেই ক্ষেত্রে মারাত্মক ব্যথা হয়ে থাকে। 

ব্যথা কমানোর জন্য একাধিক জেলের ব্যবহার মানুষ করে থাকে কিন্তু আপনারা ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন এই রোগের চিকিৎসা নিতে।

আরও পড়ুনঃ

১৬ ডিসেম্বর ২০২২ কততম বিজয় দিবস?

ডায়াবেটিস চিরতরে নিরাময় হবে কিভাবে?

কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয়?

ভিটামিন বি১২ এবং শরীরে জিংক নামক ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয়।

মুখের ঘা দূর করার উপায় কি?

মুখের ঘা দূর করার উপায় হচ্ছে ডাক্তারের পরামর্শ মোতাবেক ঔষধ ব্যবহার এবং সবুজ শাকসবজি বেশি বেশি খাওয়া।

উপসংহার 

প্রিয় পাঠকগণ আজকের আর্টিকেলে কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ঘা হয় সে সম্পর্কে আপনাদেরকে বিস্তারিত জানানো হয়েছে।

আপনাদের মুখের ঘা বিষয়টি নিয়ে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত। 

আর যদি এমনিতে হয়ে থাকে তাহলে ধীরে ধীরে আপনারা এটি থেকে মুক্তি লাভ করতে পারবেন। 

আপনাদের যদি এই বিষয়ে কোন প্রশ্ন অথবা মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন।

অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা আয় সংক্রান্ত আর্টিকেল পড়তে আমাদের ওয়েবসাইটে আপনারা ভিজিট করতে পারেন।

আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে আপনাদের জন্য অনলাইন কাজগুলোর সকল পরামর্শ প্রদান করেছি।

আমাদের ওয়েব সাইট সম্পর্কিত সকল আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজে। 

আরও পড়ুনঃ

আলহামদুলিল্লাহ অর্থ কি? | আলহামদুলিল্লাহ কোথায় ব্যবহার করা হয়

মাশাআল্লাহ অর্থ কি? | কোথায় মাশাআল্লাহ ব্যবহার করতে হয়

ভোটার হালনাগাদ কবে হবে ২০২২ | নুতন ভোটার আইডি কার্ড তৈরি

Leave a Comment

twenty − fourteen =