১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা । বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা

আপনি কি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা খুঁজছেন? যদি তাই হয় তবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা নিয়ে সাজানো আমাদের আজকের এই পোস্টটি পূর্ণাঙ্গ করুন। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি শেখ মুজিবুর রহমান বা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা লিখে শেষ করা যাবে না।

তাই এখানে আমরা এখন পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে যতগুলো কবিতা রচিত হয়েছে। সেই কবিতা সমূহের মধ্য থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা সমূহ নিয়ে আজকের এই আর্টিকেলটি তৈরি করেছি।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি যারা করতে ইচ্ছুক তাদের জন্য এই পোস্টটি সেরা একটি ব্লগ পোস্ট হতে যাচ্ছে। যেখানে আমরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছন্দ, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতা এবং বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোটদের কবিতা আবৃত্তি করা যায় এমন কবিতাগুলোর সমন্বয় করেছি।

Contents In Brief

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি । বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি
১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি

শুরুতে আমরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিদের কবিতা গুলি আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব। চলুন দেরি না করে দেখে নেয়া যাক ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা।

১৫ আগস্ট সম্পর্কে বক্তৃতা ইতিপূর্বে আমাদের ব্লগে প্রকাশিত হয়েছে। আপনি যদি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি করতে চান তবে সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন।

কবিতার নাম: বাংলার শ্রেষ্ট সন্তান

মুজিব বাংলার শ্রেষ্ট সন্তান, টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম।
যার জন্য এই বাংলার মাটি, হয়েছে আজ ধন্য।

নেতা নয়কো, মহান নেতা
এই বাংলার, জাতির পিতা।

বাঙ্গালীদের জাগায় সাহস, জাগায় মনে শক্তি।
মুজিব তুমি জাতির পিতা, রইলো শ্রদ্ধা ভক্তি।

কবিতা : ১৫ই আগস্ট সেই কালো রাত – লেখকঃ- বেবী বড়ুয়া

১৫ই আগস্ট গভীর রাত, সকলে ঘুমে বিভোর।
চারিদিকে নিঝুম রাতের ঝিঁঝিঁ পোকার ডাক।

হঠাৎ কিসের যেন শব্দ কানে,

উঠে বসলেন জাতির পিতা শেখ মুজিব,
চশমাটা খুঁজতেই বেগম বল্লেন,
কি হলো তোমার?

চিন্তিত মুজিব,
ভারি কন্ঠে বল্লেন রেণু,
বাহিরে কিসের গন্ডগোল?

চমকে উঠে রেণু বলেন,
না তুমি যেওনা,
আমি দেখছি।

সাথে সাথে হায়েনার দল,
ঝাঁপিয়ে পড়লো।

চারিদিকে প্রচন্ড গুলির আওয়াজ,
উত্তেজিত কন্ঠে মুজিব বলেন কি হলো,
কিসের আওয়াজ।

উঠে দাঁড়ালেন, বের হবেন,
ততক্ষণ হায়নার দলেরা,
একে একে সবাইকে, শেষ করে দিয়ে!!
ছোট্ট রাসেলকে টেনে হেঁচড়ে নিয়ে এলো।.

ডিসকাউন্টে সকল সিমের মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার
ক্রয় করতে DESH OFFER সাইটে ভিজিট করুন।

রাসেলের কাকুতি, মিনতি,
কতো বাঁচার চেষ্ঠা,
নরপশুদের হাত থেকে আর বাঁচতে পারবেনা যেনে।

বল্লো কাকু আমায় একটু পানি দাও,
আমি পানি খাবো।
নরপশুরা তাও দিলো না।

জাতির পিতা শেখ মুজিব এলো ঘরের বাইরে,
শিঁড়িতে পা রাখতেই চারদিক থেকে,
অজশ্র গুলিতে বুকটা করে দিলো ঝাঁঝরা,
বাঁচতে দিলোনা বঙ্গমাতাকেও।.

এমন বিরল ঘটনা,
পৃথিবীর সেরা করেছে ইতিহাস।

এই বাংলায় যাদের জন্য,
বঙ্গবন্ধু জীবনের অর্ধেকের বেশি সময় করেছে পার জেলখানায়।

তারা কিনা করল খুন,
অবশেষে হায়েনারই বেসে।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি যারা করবেন তাদের জন্য নিন্মুক্ত কবিতা সমূহ খুবই চমৎকার হবে বলে আমরা আশা করি।

কবি শরিফ আহমাদ বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা লিখেছেন, যে কবিতাগুলো আপনি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা অনুষ্ঠানে নির্দ্বিধায় পরিবেশন করতে পারবেন।

ডিসকাউন্টে সকল সিমের মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার
ক্রয় করতে DESH OFFER সাইটে ভিজিট করুন।

শোক দিবস – লেখক শরিফ আহমাদ

ঐতিহাসিক শোক দিবসের রক্ত ঝরা গল্প,
লিখছি ছড়ায় অল্প !

আগষ্ট মাসের পনেরো তারিখ,
আধার ঘেরা রাতে,
দেশদ্রোহীরা হামলা চালায়,
মহান নেতার গা’তে ।

তার আরো যে স্বজন ছিলো,
পায় যেখানে যাকে,
হত্যা করে তাকে ।

দেশ প্রকৃতির রঙিন স্বপ্ন,
শেষ করেছে তারা,
ওদের একদিন বিচার হবে,
কেউ পাবে না ছাড়া ।

প্রতি বছর আগষ্টের সেই,
দিন করা হয় স্মরণ,
হয় বুকের রক্ত ক্ষরণ।

বঙ্গবন্ধুর ছড়া – লেখক শরিফ আহমাদ

বঙ্গবন্ধুর ছড়া লিখতে,
ইতিহাসের পাতায় টিকতে,
যেই দিয়েছি হাত,
তার কাহিনী অশ্রু ঝরায়,
রাতের পরে রাত।

আমার সাথে রাতের তারা,
বন-বনানীর নিঝুম পাড়া,
সবাই দিলো যোগ,
বঙ্গবন্ধুর চলে যাওয়ায়,
সবার মনে শোক।

শোকের থেকে শক্তি নিয়ে,
তার প্রতি প্রেম-ভক্তি নিয়ে,
লিখছি ছড়া রোজ,
তার মতো এক মহান নেতা,
বিশ্ব করে খোঁজ।

শোক দিবসের ছড়া – বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতা

আপনারা যারা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতা পছন্দ করেন তাদেরকে বলছি, আপনারা লেখক শরিফ আহমাদ বঙ্গবন্ধু চির সুখে থাকুক ছোট ছড়া লিখতে পারেন।

আমি নিশ্চিত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠানে আপনি এই ছড়াগুলো থেকে যে কোন একটি ছড়া পছন্দ করে সাজিয়ে গুছিয়ে বলবেন।

চির সুখে থাকুক- লেখক শরিফ আহমাদ

বঙ্গবন্ধুর নাম
এই পৃথিবীর সবাই জানে
দেয় সকলে দাম ,
গরিব-দুঃখির আপন ছিলেন তিনি
বাঙালিরা তার কাছে আজ ঋণী।

শ্রেষ্ঠ ভাষণ তার
দুনিয়াতে এমন নজীর
আর হবে না আর,
তিনি ছিলেন স্বাধীনতার মূলে
দেশ গড়েছেন শান্তি সুখের ফুলে ।

আজকে তিনি নেই
শোক দিবসে লাখো মানুষ
হারিয়ে ফেলে খেই,
কত মানুষ দুআ মাহফিল করে
চির সুখে থাকুক মাটির ঘরে ।

বঙ্গবন্ধুর নামে – লেখক শরিফ আহমাদ

স্কুলের এক অনুষ্ঠানে, …

খুব আনন্দ হাসি-গানে
বলতে হবে ছড়া,
তাই হয়েছে বন্ধ খোকার পড়া ।

কোন ছড়াটা হবে কেমন
আবৃত্তি হয় যেমন যেমন
সবকিছু নেয় শিখে,
ছড়া পাঠে যায় যেন সে টিকে ।

অনুষ্ঠানে হাজার মানুষ
যায় উড়িয়ে কথার ফানুস
সবার সামনে গিয়ে,
হঠাৎ করে খোকার হলো কি-এ ।

কবির মতো চলতে থাকে
নতুন ছড়া বলতে থাকে
বঙ্গবন্ধুর নামে,
হয় বিজয়ী ভালোবাসার খামে ।

বঙ্গবন্ধু কে নিয়ে ছড়া কবিতা:

মুজিব মানে – লেখক শরিফ আহমাদ

মুজিব মানে মুক্ত আকাশ
ঝলমলে এক রবি
মুজিব মানে রক্তে আঁকা
স্বাধীনতার ছবি ।

মুজিব মানে স্বপ্ন আশা
আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা
লাল গোলাপের ঘ্রাণ,
মুজিব মানে বাংলাদেশের প্রাণ ।‌

মুজিব মানে ন্যায়ের শাসন
ঐতিহাসিক দেওয়া ভাষণ
জেগে ওঠার সুর,
মুজিব মানে আলোর সমুদ্দূর ।

মুজিব মানে গানের ছন্দ
ত্যাগের মাঝে খুব আনন্দ
বিজয়ের উল্লাস,
মুজিব মানে শান্তি-সুখের বাস ।

মুজিব মানে বীর বাঙালির
সজাগ রাখা দৃষ্টি
মুজিব হলো আল্লাহপাকের
অপূর্ব এক সৃষ্টি।

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতা, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতা রয়েছে এখানে।

আপনার পছন্দের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা খুজে নিন এবং আবৃত্তি করুন।

জাতির পিতা- লেখক শরিফ আহমাদ

জন্ম থেকে শুধু তোমার
নাম মোবারক শুনেছি
বীর গাঁথা সব গল্প শুনে
দেখার স্বপ্ন বুনেছি ।

স্বপ্নে তোমায় দেখবো বলে
কতো মান্নত করেছি
তোমার নামে গান কবিতা
শব্দ মালায় গড়েছি ।

নিত্য তোমার ভাষণ শুনি
শুনি তোমার কাহিনী
বীর বাঙালি কেমনে ভাগায়
পাক হানাদার বাহিনী ।

তোমার জন্য দেশ পেয়েছি
তুমি বইয়ের পাতাতে,
জাতির পিতা থাকবে তুমি,
সবার হৃদয়- মাথাতে ।

১৫ আগস্ট সম্পর্কে কবিতা
ইতিহাসের নায়ক
শরিফ আহমাদ

মুজিব তুমি জাতির পিতা
গরীব দুঃখীর পরম মিতা
সবাই পাগল শুধু তোমার জন্য
ধন্য তুমি ধন্য ।

তুমি ইতিহাসের নায়ক
আগুন জ্বলা সুরের গায়ক
তোমার ভাষণ কাঁপায় যেন বিশ্ব
সবাই তোমার শিষ্য ।

তোমার জন্য দেশ পেয়েছি
শক্তি সাহস বেশ পেয়েছি
কৃতজ্ঞ তাই শহুরে লোক-চাষী
তোমায় ভালোবাসি ।

কবিতার নাম: স্বাধীন বাংলাদেশ

আপনি যদি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা উৎসর্গ করতে চান, তবে আপনি স্বাধীন বাংলাদেশ নামক কবিতাটি বঙ্গবন্ধু নামে উৎসর্গ করতে পারেন।

আমরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা পোস্টে সঠিকভাবে লেখাটি উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি।

সে এক কালো শো’ষণের দিন
শকুনেরা’ একটি দেহ ছিড়ে খাবে বলে
ষড়যন্ত্র’ আটে।

দেহে ছড়িয়ে দিতে চায়, বিষা’ক্ত রস।
দেহ পেতে চায় নিজের করে।
নিলাম ডেকেছে পূর্ব পাড়ার হাটে।

দেহে থাকা কোষ গুলো
মৃত’ প্রায় আর আতঙ্কে থাকে।
শকু’নের ছায়া পড়লো
খেয়ে দিতে চায় মুখ মন্ডল টাকে।
গলায় বি’ষ ঢুকিয়ে
কন্ঠ খেতে আটে ফন্দি।
উত্তপ্ত কোষ ও র’ক্ত কোষের তেজে
কন্ঠ খেতে ব্যর্থ হয়।
তাই হৃদপিন্ডকে করেছে বন্দি।

দেহে তখন হৃদপিন্ডের বড় প্রয়োজন
কোষ গুলো উত্তপ্ত হয়ে উঠে।
হৃদপিড তখন মুক্ত হয় ,
তবে হৃদপিন্ড তখনও শান্ত নয়।
শকু’ন দেহের উপর ছোবল মেরে
নিতে চায় সব লুটে।

শকুন সর্বত্র ব্য’র্থ হয়ে
দেহের প্রতিনিধি চায়।
চায় নিজে দেহে প্রতিনিধিত্ব করে
যেনো সব চুষে শুষে খায় ।

সেখানেও ব্য’র্থ হয় শকুনেরা
শকুন তখন দিশেহারা ।
জোর করে হামলে পড়ে
দেহের উপর তারা ।

হৃদপিন্ড দেহকে বাঁচাতে
কোষগুলোকে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখায় ।
কোষ গুলোকে জাগায় শক্তি ,
তাদের সংগ্রামী হয়ে বাঁচতে শেখায় ।

হৃদপিন্ড আবারও বন্দি হয়
হায়ে’না শকুনের হাতে ।
তার দেখানো স্বপ্ন মিশে থাকে
কোষ গুলোর সাথে ।
যতই ঝড় আসে
কেউ পিছু হাটেনি তাতে ।

শুকুনেরা হাঁপিয়ে যায় ,
পরাজয় দেখে তারা ,
দেহের মগজ খেতে চায় ।
তারপরও ব্যর্থ হয়ে
ফিরে যায় ।

একটি দেহ স্বাধীন হয় ।
হৃদপিন্ডর নেতৃত্বে জন্ম নেয়
একগুচ্ছ স্বাধীন কোষকলা ।
সে কোষ কলা একটি জাতি
যার নাম বাঙ্গালী ।
আর সে দেহ একটি
স্বাধীন দেশ ।
বাংলাদেশ ।

আরও পড়ুনঃ

২৬ শে মার্চ কেন স্বাধীনতা দিবস ঘোষণা করা হয়? 

সুন্দরবন সম্পর্কে ১০ টি বাক্য বাংলা

কবিতার নাম: কালো’ রাত – August 15 poem about Bangabandhu

কালো রাত
ভীষণ কা’লো রাত
একটি দেশের ইতিহাসে
এক আধার ঘন কা’লো রাত ।

থমকে গিয়েছিলো
একটি দেশ ।
অভিভাবক হীন করেছে ,
করেছে নিঃশেষ ।

সে রাতের পর
কবির কলমের কালি ফুরিয়েছিলো ।
কবিতার লাইন গুলো
হয়ে আছে অসমাপ্ত ।

একটি জাতিকে
করা হয়েছে পিতৃহীন ।

সে রাতের পর ,
মানুষ মানুষ চিনতে পারে নাহ ।
জাতির স্বপ্ন
ভেঙ্গে যায় সে রাতে ।
জাতি হারিয়েছে তার চোখ ।
যে চোখে ছিলো
একটি সোনার বাংলা স্বপ্ন ।

সে রাতে
১৮টি গু’লি একটি দেহে বিদ্ধ হয়নি ।
বিদ্ধ হয়েছে
একটি জাতির বুকে ।

সে রাতের পর
ঘুমিয়ে গেছে একটি জাতি ।
কেউ আর জাগিয়ে তুলে নি
তারপর ।

সে জাতি পেলো না
তার স্বপ্ন দ্রষ্টাকে
স্বপ্নের সোনার বাংলা দেখাতে ।
সে জাতি হারালো
হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালীকে ।
হারালো তার জন্মদাতাকে ।

সে হারানোর রাত
১৫ আগষ্টের রাত ।
দেশ গড়ার কারিগর
গায়ে র’ক্ত মেখে
নিলো চির বিদায় ।

হারিয়ে যাবে না সে কভূ
হৃদজয়ী সে কারিগর ।
বেচে রবে ততদিন ,
যত দিন এই বাংলা আছে ,
যতদিন এই আকাশ বাতাস
বাংলার আছে ।
যতদিন বাঙ্গালী নামের একটি জাতি আসে ।
মুজিব একটি জাতিতে একবারেই আসে

আরও পড়ুনঃ

E-Passport Status Check By SMS and Online BD

ঋণাত্মক কাজের উদাহরণ কি?

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা প্রশ্নোত্তর পর্ব

কত সালে বঙ্গবন্ধুকে জুলিও কুরী পুরস্কারে ভূষিত করে?

১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধুকে জুলিও কুরী পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

বঙ্গবন্ধুকে রাজনীতির কবি উপাধি দেন কে?

নিউজ উইরুস (উইকস), যুক্তরাষ্ট্রের সাপ্তাহিক ম্যাগাজিন বঙ্গবন্ধুকে রাজনীতির কবি উপাধি দেন।

বঙ্গবন্ধু কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?

বঙ্গবন্ধু গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন।

উপসংহার,

আশা করি আপনি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা খুঁজে পেতে সক্ষম হয়েছেন। উপরোক্ত উল্লেখিত কবিতা সমূহ ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করিতে পারিবেন।

আমরা এখানে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা গুলি যারা লিখেছেন তাদের কবিতাগুলো আপনাদের সামনে উপস্থাপন করেছি।

১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগস্ট আমাদের বাঙালি জাতির জন্য খুবই দুঃখজনক একটি দিন ছিল। ঐদিন ঘাতক বাহিনী নির্মমভাবে হত্যা করেছে একই বাড়িতে একে একে ২৬ জনকে।

সেদিন শুধু বঙ্গবন্ধু পরিবারের ১৫ জন সদস্য শহীদ হয়েছিলেন। সমগ্র বঙ্গবন্ধু পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়া হয়েছে। আমাদের পক্ষ থেকে সেদিন যারা শহীদ হয়েছিলেন তাদের জানাই গভীর শ্রদ্ধা।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিখ্যাত কবিতা সম্পর্কে আপনার কোনো মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। 

সব বিষয়ে নিত্য নতুন আর্টিকেল পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

আমরা আপনাদেরকে আপনাদের সুবিধার্থে  –

অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা আয়

টেলিকম অফারইন্টারনেট অফার এবং ব্লগিং টিপস সহ নানান ধরনের গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেলগুলো প্রদান করে থাকি।

জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। 

কমদামে মিনিট, ইন্টারনেট ও বান্ডেল অফার কিনতে ভিজিট করুনঃ এখানে ক্লিক করুন
ডিজিটাল টাচ ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এই পেজ ভিজিট করুন
ডিজিটাল টাচ সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুনঃ এই লিংকে
অনলাইনে টাকা ইনকাম সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুনঃ www.digitaltuch.com সাইট ।

Leave a Comment