Bkash Merchant Reporting Portal | বিকাশ মার্চেন্ট কি ও ব্যাবহার

Bkash Merchant Reporting Portal সম্পর্কে জানতে অনেকেই আগ্রহী। বিকাশ মার্চেন্ট হচ্ছে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বা সেবা প্রদানকারী দের জন্য। বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্টে রয়েছে অনেক বানিজ্যিক সুবিধা। 

এই পোস্টে bkash merchant reporting portal নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার, চেষ্টা করবো আপনাদের সঠিক তথ্য দিতে, ইনশাআল্লাহ।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করার অনেক গুলি সুবিধা রয়েছে, কেননা একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে হলে গ্রাহকদের অনেক ধরনের সুবিধা দিতে হয়।

এছারও বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর রিপোর্টিং পোর্টাল ও কিভাবে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট চালু করবেন নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে এই পোস্টে।

আশা করি এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লে বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বিকাশের মার্চেন্ট একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সম্পর্কে জানতে পারবেন।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট কি? (What is Bkash merchant account?)

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা
বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা

সকলের জন্য বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট নয়, মূলত বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট হলো ব্যবসায়ীদের জন্য। গ্রাহকের ডিজিটাল লেনদেন এর সুবিধা দিতে ব্যবসায়ীরা বিকাশ মার্চেন্ট ব্যবহার করতে পারেন। 

ডিজিটাল যুগে ডিজিটাল লেনদেনের একটি উদাহরণ হচ্ছে বিকাশ মার্চেন্ট, বিকাশের পার্সোনাল একাউন্ট থেকে কেনাকাটার পেমেন্ট করা যাবে এই একাউন্টে।

আমরা সবাই জানি এটিএম কার্ড বা শপিং কার্ড ব্যবহার করে কেনাকাটা করা যায়। 

আর এই কার্ড ব্যবহার করে কেনাকাটা করার জন্য ব্যবসায়ীদের কাছে কার্ড পাঞ্চ করার জন্য পাঞ্চ মেশিন থাকে।

আপনার কার্ড পাঞ্চ করলেই ব্যবসায়ীদের একাউন্টে টাকা স্থানান্তর হয়ে যায়। 

তেমনি ব্যবসায়ীদের সাথে গ্রাহকদের পেমেন্ট সুবিধা দেওয়ার জন্য বিকাশ কর্তৃপক্ষ বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা নিয়ে এসেছে। 

অর্থাৎ বিকাশ একাউন্টে থাকা টাকা ব্যবহার করে করে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট থাকা দোকানগুলোতে সহজেই কেনাকাটা করতে পারবেন বিকাশ গ্রাহক।

আরও পড়ুনঃ

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ সম্পর্কে

কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব?

What is email marketing Bangla

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবেন 

কেন আপনি বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ব্যাবহার করবেন? 

ব্যবসায়ীরা বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট ব্যবহার করেও গ্রাহকের কাছ থেকে কেনা-কাটার টাকা পেমেন্ট নিতে পারেন। 

তবে বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট থেকে টাকা সেন্ড করতে বিকাশ কর্তৃপক্ষকে সেন্ড মানি চার্জ দিতে হয়। 

সেইসাথে বিকাশ পার্সোনাল থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য আলাদা খরচ রয়েছে, এতে বিকাশ গ্রাহক এবং ব্যবসায়ী উভয়ই লোকসানের মুখে পড়েন।  

সাধারণ বিকাশ ব্যবহার করি এবং ব্যবসায়ীদের মধ্যে টাকা লেনদেন কে সহজ করতেই মূলত বিকাশ মার্চেন্ট নিয়ে এসেছে বিকাশ কর্তৃপক্ষ।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট কেনাকাটার পেমেন্ট প্রদান করতে কোনো ধরনের অতিরিক্ত খরচ হবে না। 

তাই Bkash merchant account ব্যবহার করুন আপনার কেনাকাটার লেনদেন সম্পন্ন করতে। 

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা

  • কেনাকাটার পেমেন্ট সহজে করা যায় বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট থাকে। 
  • কিয়া’র কোড স্কেন করে টাকা পেমেন্ট করার সুবিধা থাকায় কম সময়ে ঝামেলামুক্ত লেনদেন সম্ভব।
  • ফিজিক্যালি টাকা রাখার প্রয়োজন পরে না, কারণ গ্রাহক তার ক্রয় করা পণ্যের মূল্য অনুযায়ী পেমেন্ট দিয়ে যায়, ফলে দোকানে ঝামেলা হয় না।
  • এর পাশাপাশি টাকা ভাংতি নিয়েও ঝামেলা নেই।  
  • বেশী কাস্টমার হলেও সামাল দেওয়া যায় খুব সহজেই। 
  • গ্রাহকদের এবং দোকানদার উভয়ের সময় খরচ হয় কম।
  • খুব সহজেই বিকাশ প্রতিনিধির কাছ থেকে দোকানদার মার্চেন্ট একাউন্টের টাকা উত্তোলন করতে পারেন। 
  • আর টাকা উত্তোলন করতে কোনো রকম চার্জ দিতে হয় না।

What is Bkash Merchant Reporting Portal? 

Bkash Merchant Reporting Portal ব্যবহৃত হয় বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর রিপোর্ট দেখা বা স্টেটমেন্ট চেক করার জন্য।

এজন্য আপনাকে বিকাশ মার্চেন্ট রিপোর্ট দেখতে বিকাশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করতে হবে।

রিপোর্ট চেক করতে Bkash Merchant Reporting Portal লিংক https://www.bkashcluster.com:9081/mr_portal/ তে ভিজিট করুন। তারপর আপনার ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে সহজেই বিকাশ মার্চেন্ট স্টেটমেন্ট চেক করুন। 

Bkash Merchant Reporting Portal
Bkash Merchant Reporting Portal

এছাড়াও বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ব্যবহারকারীদের জন্য রয়েছে বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ, এই অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহক খুব সহজেই নিজ লেনদেন রিপোর্ট দেখতে পারবেন।

bKash Merchant app download

এছাড়াও বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ ব্যবহারে রয়েছে আকর্ষণীয় সব সুযোগ সুবিধা।

আর এই সকল সুবিধা উপভোগ করতে হলে অবশ্যই আপনাকে বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে।

আপনি যদি বিকাশ মার্চেন্ট ব্যবহারকারী হন তবে গুগল প্লে স্টোর থেকে এখনি বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ ডাউনলোড করুন। 

বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ লিংক নিচে দেওয়া হলো।

BKASH MERCHANT APP

ইতিমধ্যেই আমরা আপনাদের জানিয়েছি আপনি অ্যাপ ব্যবহারের পাশাপাশি বিকাশ অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ব্যবহার করে Bkash merchant reporting portal এর সকল তথ্য জানতে পারবেন।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম?

বর্তমানে বিকাশ কর্তৃপক্ষ ব্যবসায়ীদের কে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খুলে দেয়ার জন্য নিজেরাই ব্যবসায়িক দোকানগুলোতে ভিজিট করছে।

আপনার যদি একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থাকে তবে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ট্রেড লাইসেন্স এবং বিকাশ করা হয়নি এমন একটি সিম সহ বিকাশ প্রতিনিধির সাথে যোগাযোগ করলে দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনাকে একটি বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খুলে দেয়া হবে।

এজন্য আপনাকে কোন ধরনের ফি দিতে হবে না। 

আরও পড়ুনঃ

বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম

আজকের খেলার সময় সূচি প্রথম আলো

লাহোর প্রস্তাবের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় কি ছিল?

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম?

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম হচ্ছে নিজ পার্সোনাল একাউন্ট থেকে পেমেন্ট অপশান নির্বাচন করা। অথবা বিকাশ মার্চেন্ট কিউআর কোড স্ক্যান করে টাকা পেমেন্ট করা।

উপসংহার,

আশা করি আপনি Bkash merchant reporting portal সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। 

বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ, বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খোলার নিয়ম এবং বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সমূহ সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইটে থাকা এই সম্পর্কিত আর্টিকেল গুলো পড়ুন।

আপনার মার্চেন্ট একাউন্টে ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড জানতে আপনি Bkash merchant reporting portal লগইন করার পূর্বে বিকাশ প্রতিনিধির কাছ থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করুন।

আরও পড়ুনঃ

নগদ একাউন্টের সুবিধা 2022 কি কি

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? 

Blog meaning in Bengali

Leave a Comment

4 + 4 =