ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া কি? | কিভাবে ঋণ থেকে মুক্তি পাবেন

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগলের মাধ্যমে আমাদের কাছে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করতে চলেছি আপনারা ঋণগ্রস্ত হলে কোন দোয়াটি পড়বেন।

বিভিন্ন ধর্মে আমরা অনেক ধরনের ঋণ করে থাকি। একটি জিনিস সবসময় মনে রাখবেন প্রকৃতপক্ষে কখনো কারো জীবনে ঋণ ভালো কিছু বয়ে আনে না। তাই সব সময় আমাদের উচিত ঋণ মুক্ত থাকা।

ঋণ থেকে মুক্তি লাভের জন্য হাদীস শরীফে কার্যকরী দুটি দোয়া আলোচনা করা হয়েছে। আমরা মূলত আজকে এই আর্টিকেলে আপনাদেরকে সেই কার্যকরী দোয়া গুলো উপস্থাপন করব। আপনার আজকের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

দুশ্চিন্তা ও ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া

দুশ্চিন্তা ও ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া
দুশ্চিন্তা ও ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া

খুব দ্রুত ঋণ থেকে মুক্তি হতে সক্ষম হওয়ার জন্য আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কিছু আমল এবং দোয়া শিক্ষা দিয়েছেন।

তিনি নিজেও যেকোনো ঋণ হতে বাঁচার জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে সবসময় আশ্রয়প্রার্থনা করতেন।

একবার ঋণ থেকে রক্ষা পেতে প্রার্থনারত অবস্থায় এক ব্যক্তি তাকে দেখে বলেন, ‘হে আল্লাহর রাসুল!

আপনি ঋণ থেকে খুব বেশি বেশি আশ্রয় প্রার্থনা করে থাকেন!’ নবি (সা.) বলেন- ‘মানুষ ঋণী হলে, কথা বলতে গিয়ে মিথ্যা বলে এবং অঙ্গীকার করলে, রক্ষা করে না। ’(বোখারি, হাদিস নং : ২৩৯৭)

اللَّهُمَّ اكْفِنِي بِحَلاَلِكَ عَنْ حَرَامِكَ، وَأَغْنِنِي بِفَضْلِكِ عَمَّنْ سِوَاكَ

উচ্চারণ : আল্লা-হুম্মাকফিনী বিহালা-লিকা ‘আন হারা-মিকা ওয়া আগনিনী বিফাদ্বলিকা ‘আম্মান সিওয়া-ক।

অর্থ: ‘হে আল্লাহ! হারামের পরিবর্তে তোমার হালাল রুজি আমার জন্য যথেষ্ট কর।

আর তোমাকে ছাড়া আমাকে কারো মুখাপেক্ষী করো না এবং স্বীয় অনুগ্রহ দ্বারা আমাকে স্বচ্ছলতা দান কর।

হাদিসের মধ্যে এসেছে, একবার হযরত আলী রাদিয়াল্লাহু আনহুর কাছে এক ব্যক্তি তার ঋণ পরিশোধের জন্য কিছু সাহায্য চেয়েছিল।

এসময় আলী রাদিয়াল্লাহু আনহু তাকে বলেন, আমি কি তোমাকে কয়েকটি শব্দ শিক্ষা দেবো, যা আমাকে রাসুল সাল্লালাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সালাম শিক্ষা দিয়েছেন?

যদি তুমি এটি সঠিকভাবে পাঠ করো, তাহলে মহান আল্লাহ তায়ালা তোমার ঋণ মুক্তির ব্যাপারে দায়িত্ব নেবেন।

যদি তোমার ঋণের বোঝা পাহাড় সমান হয়।

এরপর হযরত আলী রাদিআল্লাহু আনহু ওই ব্যক্তিকে উপরে উল্লেখিত দোয়া পড়তে বলেছিলেন। -তিরমিজি শরীফ, হাদিস নং ৩৫৬৩।

আরও পড়ুনঃ

ঘুম থেকে উঠার দোয়া কোনটি?

ফজরের নামাজের নিয়ম ও নিয়ত

এশার নামাজের নিয়ম কি?

ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া আরবি

আপনারা যারা ঋণের মধ্যে রয়েছেন তাদের জন্য আরেকটা কথা হাদীসে উল্লেখ করা হয়েছে।

হজরত আবু সাঈদ খুদরি রাদিআল্লাহু আনহু বলেন, একদিন রসুল সাল্লাল্লাহু আলইহি ওয়াসাল্লাম মসজিদে নববিতে প্রবেশ করে আনসারি একজন লোককে দেখতে পেলেন, যার নাম আবু উমামা।

রসুল তাকে বললেন, আবু উমামা! ব্যাপার কী, নামাজের সময় ছাড়াও তোমাকে মসজিদে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে?

আবু উমামা বললেন, ইয়া রসুলাল্লাহ! অনেক ঋণ এবং দুনিয়ার চিন্তা আমাকে গ্রাস করে রেখেছে।

তখন রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে বললেন, আমি কি তোমাকে এমন কিছু কালিমা শিখিয়ে দেব।

যেগুলো বললে আল্লাহ তায়ালা তোমার চিন্তাকে দূর করে দেবেন এবং তোমার ঋণগুলো আদায় করে দেবেন।

তিনি বলেন, জি হ্যাঁ ইয়া রসুলাল্লাহ! অবশ্যই বলুন, তখন রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে নিম্নের দোয়াটি শিখিয়ে দেন এবং তা সকাল সন্ধ্যায় পড়তে বলেন।

আবু উমামা বলেন, আমি রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের এ দোয়াটি পড়তে লাগলাম ফলে আল্লাহ তায়ালা আমার চিন্তা দূর করে দিলেন এবং আমার ঋণগুলোও আদায় করে দিলেন।

দোয়াটি হলো-

اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنَ الْهَمِّ وَالْحَزَنِ، وَالْعَجْزِ وَالْكَسَلِ، وَالْبُخْلِ وَالْجُبْنِ، وَضَلَعِ الدَّيْنِ وَغَلَبَةِ الرِّجَالِ

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিনাল হাম্মি ওয়াল হাযানি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিনাল-‘আজযি ওয়াল-কাসালি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিনাল-বুখলি ওয়াল-জুবনি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিন দ্বালা‘য়িদ্দাইনি ওয়া গালাবাতির রিজা-ল।

বাংলা অর্থ:

‘হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি আপনার আশ্রয় নিচ্ছি দুঃশ্চিন্তা ও দুঃখ থেকে, অপারগতা ও অলসতা থেকে, কৃপণতা ও ভীরুতা থেকে, ঋণের ভার ও মানুষদের দমন-পীড়ন থেকে।- সহিহ বুখারি, হাদিস নং ২৮৯৩।

মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সকলকে ঋণ থেকে মুক্ত থাকার তৌফিক দান করুন।

আমিন।

আরও পড়ুনঃ

সুরা বাকারার শেষ দুই আয়াত

আসরের নামাজ কত রাকাত?

নামাজের ফরজ কয়টি?

ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া FAQS

ঋণ থেকে মুক্তির দোয়া কোনটি?

اللَّهُمَّ اكْفِنِي بِحَلاَلِكَ عَنْ حَرَامِكَ، وَأَغْنِنِي بِفَضْلِكِ عَمَّنْ سِوَاكَ
উচ্চারণ : আল্লা-হুম্মাকফিনী বিহালা-লিকা ‘আন হারা-মিকা ওয়া আগনিনী বিফাদ্বলিকা ‘আম্মান সিওয়া-ক।

উপসংহার 

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ আজকের এই আর্টিকেলের ইন থেকে মুক্তির দোয়া আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছে।

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সঠিক তথ্য প্রদান করে সাহায্য করতে পেরেছি।

আপনারা অবশ্যই ঋণগ্রস্থ হলে এই দোয়া গুলো পাঠ করবেন।

মহান আল্লাহ তায়ালা আপনাদের সকলকে ঋণ থেকে মুক্তি করার ব্যবস্থা করে দিবেন ইনশাআল্লাহ।

আপনাদের যদি এই বিষয়ে কোন প্রশ্ন কিংবা মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানান।

আমরা বিভিন্ন সময়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করার কথা ভেবে থাকি।

তবে কিভাবে আমরা অনলাইন থেকে টাকা আয় করব সে সংক্রান্ত কোনো ধারণা আমাদের নেই।

আপনাদের এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে অনেক আর্টিকেল রয়েছে।

যেখানে সম্পন্ন গাইডলাইন সহকারে আপনাদেরকে অনলাইন ভিত্তিক কাজগুলো শেখানো হয়।

তাই ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট পাশাপাশি আমাদের ফেসবুক পেইজে জয়েন করুন। 

Leave a Comment

4 × 4 =