টিউমার চেনার উপায়? | টিউমার থেকে বাঁচার উপায়

প্রিয় পাঠকবৃন্দ টিউমার চেনার উপায় সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগল উপকার করে।  মূলত আমাদের শরীরের নানান ধরনের তার মধ্যে অন্যতম একটি ভয়ঙ্কর হচ্ছে টিউমার।

এটিকে ভালভাবে শনাক্ত করার জন্য এটি কীভাবে চিনবে কিংবা এর লক্ষণ কি কি সে সম্পর্কে জানার আগ্রহ প্রকাশ করে থাকে। যার প্রেক্ষিতে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছে।

এই আর্টিকেলে কিভাবে আপনারা টিউমার চিনবেন আগ পর্যন্ত কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে সে সম্পর্কে এখন আমরা বিস্তারিত জানবো।

টিউমার চেনার উপায়

বিনাইন টিউমার এর বৈশিষ্ট্য
বিনাইন টিউমার এর বৈশিষ্ট্য

মূলত আমাদের শরীরের অস্বাভাবিক করবা টিস্যু খন্ড, স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক দ্রুত এবং অনিয়ন্ত্রিতভাবে বৃদ্ধি পায় তাই হচ্ছে টিউমার।

শরীরের এই কোষ গুলো যেহেতু একটি ভিন্নধর্মী যার কারণে এগুলো শরীরের অন্য কোন কোষের সাথে সমন্বয় করতে পারে না।

মূলত একজন মানুষের শরীরের মধ্যে দুই ধরন টিউমার হতে পারে।

এবং এগুলোর কোষের ধরন ও আচার অনুসারে বিভক্ত করা হয়ে থাকে।

যেমনঃ

১.বিনাইনঃতত বিপদজনক নায় এমন টিউমার

২.ম্যালিগনেন্টঃএ টিউমার ক্ষতিকর ও বিপদজনক। ক্যান্সার ও একধরনের ম্যালিগনেন্ট টিউমার।

মোবাইল ব্যাংকিং কি?

এশার নামাজের নিয়ম কি

বিনাইন টিউমার এর বৈশিষ্ট্য 

১. এই টিউমারটি মাত্র একটি আবরণ দ্বারা আবৃত থাকে।

২. এ ধরনের টিউমার বলতো যেখানে হবে ঠিক সেখানেই থাকবে শরীরের কোন জায়গায় ছড়াবে না।

৩. এটি সময়ের সাথে সাথে ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পায়।

৪. মূলত অপারেশন করালে এটি ঠিক হয়ে যায় এবং আর বাড়েনা।

ম্যালিগনেন্ট টিউমার এর বৈশিষ্ট্য

১. মূলত এই ধরনের টিউমার গুলো কোন ধরনের আবরণ দ্বারা আবৃত থাকে না।

মূলত এটি হচ্ছে ক্যান্সারের লক্ষণ এবং এটি অনিয়ন্ত্রিত ও অগোছালোভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকে।

২. এ ধরনের ক্যান্সারজনিত কোষগুলো আশেপাশে অন্য কোন গুলোতে প টিস্যুতে ছড়িয়ে পড়ে।

৩. ম্যালিগন্যান্ট টিউমার খুব দ্রুত বৃদ্ধি পায়।

৪. শরীরের অন্যান্য স্থানে রক্তের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

৫. বেশির ভাগ ক্যান্সার প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসা করলে ভালো হয়ে যায়।

পুনরায় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েই যায়। তাই দীর্ঘ সময় ধরে চিকিৎসা নিতে হয়।

ক্যান্সার রোগের লক্ষণ ও শারীরিক অবস্থা 

১. রুচি সমস্যা ও ক্ষুধামন্দা

২. রক্তশূন্যতা

৩. বমিবমি ভাব

৪. অল্প সময়ে ওজন কমে যাওয়া

৫. দিন দিন দুর্বল হয়ে পড়া ও

৬. ক্যান্সারের ধরন অনুযায়ী অন্যান্য লক্ষণ।

আরও পড়ুনঃ

নায়াগ্রা জলপ্রপাত কোথায় অবস্থিত?

নিঝুম দ্বীপ কোথায় অবস্থিত?

সোমপুর বিহার কোথায় অবস্থিত?

টিউমার চেনার উপায় FAQS

টিউমার চেনার উপায়?

মূলত মানুষের শরীরে ২ ধরণের টিউমার হয়ে থাকে এর মধ্যে একটি হচ্ছে বিনাইন এবং অন্যটি হচ্ছে ম্যালিগনেন্ট। যদি কোন টিউমার আস্তে আস্তে বড় হয় সেটি হচ্ছে বিনাইন আর যে টিউমার খুদ দ্রুত বড় হয় সেটি হচ্ছে ম্যালিগনেন্ট। এই সম্পর্কে বিস্তারিত আর্টিকেলে।

উপসংহার 

সুতরাং আপনাদের শরীরের কোন অংশ যদি টিউমারের মতো ফুলে যায় তাহলে সেই ক্ষেত্রে আপনারা খুব দ্রুতই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন।

মূলত সকল ক্ষেত্রেই ভুলে গেলে টিউমার হয়েছে এটি ভাবা যাবে না।

টিউমার চেনার উপায় গুলো আজকে আমরা এই আর্টিকেলে আলোচনা করেছি।

অবশ্যই আপনারা আলোচনা এবং ভালো ডাক্তারের কাছে দেখান।

আশা করছি আজকে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের সাহায্য করতে পেরেছি।

আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনারা নতুন নতুন বিষয়ক আর্টিকেল এবং অনলাইন থেকে আয় সংক্রান্ত আর্টিকেল পেয়ে যাবেন।

অবশ্যই ভিজিট করুন আমাদের ওয়ের সাইট এবং চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেইজে। 

Leave a Comment

nineteen + 9 =