সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে? | সেন বংশ সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বর্ণনা

প্রিয় পাঠকবৃন্দ সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে এবিষয়ে জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগলের মাধ্যমে সার্চ করে থাকেন। আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের উদ্দেশ্যে সেন বংশ সম্পর্কে প্রস্তুত করা হয়েছে। 

সেন বংশ কে প্রতিষ্ঠা করেছেন এবং সেন বংশের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা নিয়ে আজকের এই আর্টিকেল গঠন করা হয়েছে। আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগবে এবং আপনার আপনাদের কাঙ্ক্ষিত প্রশ্নের উত্তর আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন।

আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়ার দোয়া কোনটি?

বাংলাদেশসহ পাকিস্তান এবং ভারত যখন সকল দেশগুলো ভারতবর্ষের মধ্যে ছিল তখন দেশগুলো পরিচালনা করত রাজা ধারা। সে সময় নানান ধরনের বংশ পরিচিতি গড়ে উঠেছিল। তখন সেন বংশ নামে একটি বংশের প্রভাব অনেক বেশি ছিল।

বাংলার সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে ছিলেন

বাংলার সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে ছিলেন
বাংলার সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে ছিলেন

হিন্দু সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন হেমন্ত সেন।

যিনি সেন বংশের মূল প্রতিষ্ঠাতা সামন্ত সেনের পুত্র ছিলেন।

সামন্ত সেন কখনোই রাজা উপাধি ধারণ করেন নি, তবে তার পুত্র হেমন্ত সেন স্বাধীন সেন নামে একটি রাজ্য প্রতিষ্ঠা করে প্রথম মহারাজা উপাধি ধারণ করেছিলেন।

হেমন্ত সেন এর জন্ম একটি হিন্দু বাক্ষণ পরিবারে।

তার পরিবার বাংলা থেকে দক্ষিণ ভারতের কর্ণাটকে গিয়েছিল।

তাদের পুরো পরিবার সহ তিনি রাঢ় অঞ্চলে ফিরে এসেছিলেন।

তাদের পুরো পরিবারই ব্রহ্মক্ষত্রিয় বর্ণের অন্তর্ভুক্ত ছিলেন।

পাল সাম্রাজ্য টি দুর্বল হওয়ার কারণে তিনি রাজশাসন ভার লাভ করেছিলেন। 

হেমন্ত সেন কে পাল সম্রাটকে রক্ষার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

পরবর্তীতে তিনি ১০৭০ থেকে ১০৯৬ পর্যন্ত এ ভূমিকা পালন করেন।

হেমন্ত সেন এর পুত্র বিজয় সেন পরবর্তীতে রাজত্ব চালিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ

টুইটারে সবচেয়ে বেশি ফলোয়ার কার?

আইসোটোপ কাকে বলে

ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে FAQS

সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে?

হিন্দু সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন হেমন্ত সেন। কিন্তু মূল সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা সামন্ত সেন।

হেমন্ত সেনের পুত্রের নাম কি?

হেমন্ত সেনের পুত্রের নাম হচ্ছে বিজয় সেন।

উপসংহার 

প্রিয় পাঠকগণ আজকের এই আর্টিকেলটি সেন বংশের প্রতিষ্ঠাতা এবং তার জীবনী সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বর্ণনা আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছে।

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের যথা প্রশ্নের উত্তর পেতে সাহায্য করবে।

এবং আপনারা আজকের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ে ইতিহাস সম্পর্কে সামান্য তথ্য জানতে পারবেন।

আপনাদের যদি এ বিষয়ে কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

আমরা সব সময় আপনাদের কমেন্টের উত্তর প্রদান করতে প্রস্তুত রয়েছি। 

অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা, ডিজিটাল মার্কেটিংফেসবুক মার্কেটিংফ্রিল্যান্সিং এবং ব্লগিং এর মত অনলাইন প্লাটফর্ম এ কিভাবে কাজ করবেন সে সম্পর্কে আর্টিকেল আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে। 

আপনারা চাইলে সে সকল আর্টিকেলগুলো পড়ে নিজেদের ক্যারিয়ার অনলাইনে গঠন করতে পারেন। 

সেই সাথে আমাদের ওয়েবসাইট সংক্রান্ত সকল আপডেট পেতে চোখ রাখতে হবে আমাদের ফেসবুক পেইজে

Leave a Comment

six − five =