রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম | নতুন রকেট একাউন্ট খুলেই বোনাস

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে আমাদের অনেকেই জানতে চান। ডাচ বাংলা ব্যাংক পরিচালিত চমৎকার একটি আর্থিক মোবাইল সেবাদাতা সহযোগী প্রতিষ্ঠান হচ্ছে রকেট।

রকেট 2010 সালে বাংলাদেশের প্রথম মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং থেকে পরিবর্তিত হয় রকেট নামকরণ করা হয়েছে।

চমৎকার এই মোবাইল ব্যাংকিং সেবা গ্রাহকদের জন্য রয়েছে বিশেষ ছাড়। চমৎকার এই মোবাইল ব্যাংকিং সেবাটিতে গ্রাহক দিনে দিনে যুক্ত হচ্ছে।

রকেট থেকে রকেট নাম্বারে সেন্ডমানি ফ্রি এবং ক্যাশ আউট চার্জ কম হওয়ার কারণে অনেক গ্রাহকের পছন্দের তালিকায় রয়েছে রকেট।

রকেট এজেন্ট পয়েন্ট এছাড়াও দেশজুড়ে তিন হাজারের বেশি ডাচ বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে আপনি সহজেই টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

বর্তমানে রকেট মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যাবহারে আপনি কি কি সুবিধা পাবেন এই বিষয়ে জানতে পাবেন এখানে।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২

রকেট একাউন্ট একটিভ করার নিয়ম
রকেট একাউন্ট একটিভ করার নিয়ম

বন্ধুরা আপনারা একটি নতুন রকেট একাউন্ট খুলতে তিনটি পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারে।

নিন্মে উল্লেখিত পদ্দতি গুলির যেকোন একটি পদ্দতিতে আপনি সহজেই রকেট একাউন্ট চালু করতে পাড়েন।

  • রকেট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে একাউন্ট খোলার নিয়ম
  • ইউএসএসডি কোড ব্যবহার করে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম
  • ডাচ বাংলা ব্যাংক আউটলেট থেকে রকেট একাউন্ট খোলার পদ্দতি

রকেট একাউন্ট খুলতে কি কি লাগবে?

বর্তমানে ঘরে বসে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম হচ্ছে ভোটার আইডি কার্ড ব্যবহার করে রকেট অ্যাপস এর মাধ্যমে একাউন্ট খোলা।

  • অর্থাৎ রকেট একাউন্ট খুলতে আপনার কাছে ভোটার আইডি কার্ড থাকতে হবে। 
  • একটি মোবাইল নাম্বার ( যে নাম্বারে তখনই রকেট একাউন্ট খোলা হয়নি)। 
  • তবে আপনি জন্ম নিবন্ধন দিয়েও রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন। যা নিন্মে বর্ণনা করা হবে।

আরও পড়ুনঃ

লাহোর প্রস্তাবের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় কি ছিল?

বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু কত?

এশিয়া কাপ ২০২২সময়সূচী, দল, চ্যাম্পিয়ন তালিকা

রকেট এজেন্ট থেকে একাউন্ট খোলার নিয়ম 

রকেট এজেন্ট থেকে একাউন্ট খোলা

বাংলাদেশের প্রতিটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবার এলাকা ভিত্তিক প্রতিনিধি হিসেবে এজেন্টরা কাজ করে থাকেন।

আপনি আপনার ঘরের কাছেই রকেট এজেন্ট পাবেন, যারা রকেট থেকে টাকা উত্তোলন, রকেট থেকে অন্যত্র টাকা সেন্ড করা ও নতুন রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে আপনাদেরকে অবগত করতে পারবে এবং মাত্র 2 মিনিটে একটি একাউন্ট খুলে দিবে।

রকেট একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে কোন ধরনের অর্থ প্রদান করতে হবে না।

এখন সম্পূর্ণ বিনামূল্যেই রকেট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে আপনি একটি রকেট একাউন্ট চালু করতে পারবেন।

  • রকেট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে অরিজিনাল ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে যেতে হবে।
  • সেইসাথে আপনি যে নাম্বারে রকেট একাউন্ট করতে চাচ্ছেন ঐ নম্বরটি মোবাইলে প্রবেশ করিয়ে নিয়ে যাবেন।
  • মনে রাখবেন অরিজিনাল ব্যক্তি অরজিনাল ভোটার আইডি কার্ড রকেট একাউন্ট খোলার সময় প্রয়োজন হবে।  

ইউএসএসডি কোড ব্যবহার করে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট একাউন্ট একটিভ
রকেট একাউন্ট একটিভ করার নিয়ম
  • প্রথমে আপনার মোবাইল থেকে রকেট কোড *৩২২# ডায়াল করুন। 
  • এরপর ১ লিখে রিপ্লাই দিন। 
  • এখন একটি নতুন অপআপ উইন্ডোতে খালি ফিল্ডে আপনার পছন্দমত চার সংখ্যার গোপন পিন বা পাসওয়ার্ড লিখে রিপ্লে দিন।
  • ( বন্ধুরা অবশ্যই এই পিন বা পাসওয়ার্ডটি আপনার রকেট একাউন্ট পাসওয়ার্ড, যা অত্যন্ত গোপনীয় একটি শেয়ার না করার বিষয়) তাই কারো সাথে রকেট পিন শেয়ার করা থেকে বিরিত থাকুন। 
  • এই পদ্ধতিতে আপনার রকেট একাউন্ট টি ফ্রি রেজিস্ট্রেশন হয়ে যাবে। আপনার রকেট একাউন্ট টি খোলা হয়েছে কিনা তা আপনি রকেট এর পক্ষ থেকে ফিরতি এসএমএস এর মাধ্যমে জানতে পারবেন।

তবে এই পদ্ধতিতে রকেট একাউন্ট খোলা হলে আপনি ভবিষ্যতে সমস্যায় পড়তে পারেন। 

কেননা এখানে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে আপনার একাউন্টি ভেরিফাই করেননি। 

তাই আমি আপনাকে অনুরোধ করবো আপনি নিজ থেকেই ইউএসএসডি কোড ডায়াল করে রকেট অ্যাকাউন্ট খুললেও রকেট এজেন্ট পয়েন্টে হাজির হয়ে ভোটার আইডি কার্ডের মাধ্যমে একাউন্টি ভেরিফাই করে নিবেন।

এছাড়াও আপনার কাছে যদি স্মার্ট ফোন থাকে আপনি রকেট অ্যাপস থেকে সহজেই ভোটার আইডি কার্ডের ছবি সিএসএস কোডের মাধ্যমে রকেট একাউন্ট ভেরিফাই করে নিতে পারেন। 

আরও পড়ুনঃ

ফরাসি বিপ্লবের মূলমন্ত্র কি ছিল?

নতুন সিম অফার

অ্যাপ এর সাহায্য রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

নিজেই নিজের মোবাইল থেকে রকেট পার্সোনাল একাউন্ট খুলতে পারবেন। এজন্য আপনার কাছে একটি এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন থাকা জরুরি।

  • নিজের রকেট পার্সোনাল একাউন্ট নিজে খুলতে প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে রকেট অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন। (প্রয়োজনে আপনি বাংলা ভাষা সিলেক্ট করএ নিবেন)। 
  • সফলভাবে রকেট অ্যাপস ডাউনলোড ইনস্টল পরবর্তী রেজিস্টার/লগইন অপশনে ক্লিক করেন আপনার রকেট একাউন্ট করতে ইচ্ছুক কাঙ্ক্ষিত মোবাইল নাম্বারটি দিন। 
  • এরপর আপনার মোবাইলে রকেট অফিস থেকে একটি কল আসবে,  উক্ত ভয়েস কলে আপনাকে রকেট পিন কোড প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হবে।
  • কলটি না কেটে মোবাইলে ডায়াল প্যাড ওপেন করে আপনার কাঙ্খিত চার সংখ্যার রকেট পিন টি প্রদান করুন এবং কলটি কেটে দিন।
  • (তবে পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্য অবশ্যই রকেট একাউন্টের পিন কোডটি মনে রাখবেন)।
  • হের ফর ওটিপি ভেরিফিকেশন এর জন্য আপনার মোবাইলে রকেট কর্তৃপক্ষ একটি ওটিপি নাম্বার সেন্ড করবে যা উক্ত মোবাইলে লাগানো থাকলে সরাসরি ভেরিফাই করে নেবে। 
  • এখন আপনি রকেট অ্যাপস এ লগইন হয়ে যাবেন, এখন তারপর আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড ও ছবি প্রদানের মাধ্যমে সহজেই একটি রকেট একাউন্ট খুলতে পারবে।  
  • তারপর রকেট অ্যাপস থেকে ভোটার আইডি কার্ডের দুই পাশের ছবি তুলুন আপনার তথ্যগুলো চেক করুন এবং পরবর্তী বাটনে ট্যাব করুন।
  • কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর আপনার রকেট একাউন্ট সফলভাবে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়েছে কিনা সেটির কনফার্ম এসএমএস পেয়ে যাবেন। 
  • এভাবেই আপনি নিশ্চিত হয়ে যাবেন যে রকেট মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপস ব্যবহার করে আপনার রকেট একাউন্ট দিয়ে সফলভাবে খোলা হয়েছে কিনা।

ডাচ বাংলা ব্যাংক আউটলেট থেকে রকেট একাউন্ট খোলার পদ্দতি

ডাচ বাংলা ব্যাংক আউটলেট থেকে রকেট একাউন্ট খোলার পদ্দতি 

যদি কোন কারনে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড ব্যবহার করে নিজে রকেট একাউন্ট খুলতে অসমর্থ হন।

তবে আপনার উচিত হবে রকেট এজেন্ট পয়েন্টে আপনার ভোটার আইডি কার্ড ও মোবাইল নাম্বার সহ উপস্থিত হয়ে রকেট এজেন্টদের কাছ থেকে রকেট একাউন্ট খোলার সাহায্য নেয়া। 

তারাও যদি আপনাকে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম বিষয়ে সাহায্য করতে না পারে, তবে আপনি রকেটে একাউন্ট চালু করতে ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং আউটলেটগুলোতে ভিজিট করুন। 

ডাচ বাংলা কাস্টমার সার্ভিস সেন্টার বা ডাচবাংলা আউটলেট থেকে আপনাকে সহজেই রকেট একাউন্ট খোলার বিষয়ে সাহায্য করা হবে এবং তারা একটি অ্যাকাউন্ট খুলে দেবে।

মনে রাখবেন আপনার কাছে যদি জন্ম নিবন্ধন থেকে থাকে তবে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম হচ্ছে আপনাকে সরাসরি ডাচ বাংলা ব্যাংকের সার্ভিস সেন্টারে ভিজিট করতে হবে। 

ডাচ বাংলা ব্যাংকের সার্ভিস সেন্টার গুলি থেকে রকেট একাউন্ট খুলতে আপনাকে যে সকল তথ্য নিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে রকেট একাউন্ট খুলার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলা
জন্ম নিবন্ধন দিয়ে রকেট একাউন্ট খুলার নিয়ম
  • ব্যবহৃত ফোন নাম্বার, যে নাম্বারে আপনি রকেট একাউন্ট খুলতে চাচ্ছেন। 
  • আপনার ব্যবহৃত ১ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।  (প্রয়োজনে)
  • আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি। (প্রয়োজনে)
  • আপনার কাছে ভোটার আইডি কার্ড না থাকলে আপনার অরিজিনাল জন্ম নিবন্ধন নিয়ে যাবেন। 
  • এরপর আপনাকে রকেট কর্তৃক একটি একাউন্ট ওপেনিং ফর্ম দেওয়া হবে সেখানে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করে আপনার বৃদ্ধাঙ্গুলির ছাপ এবং স্বাক্ষর দিতে হবে। 
  • তিন থেকে পাঁচ দিন অপেক্ষা করার পর রকেট একাউন্ট সচল হয়ে যাবে। 
  • আপনার নামে রকেট একাউন্ট টি চালু হয়েছে কিনা তা আপনি এসএমএস এর মাধ্যমে জানতে পারবেন। 

আশা করি উপরোক্ত তিনটি পদ্ধতির মধ্যে যেকোনো একটি পদ্ধতিতে আপনি সহজেই আপনার রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন।  

যদিও আপনার ভোটার আইডি কার্ড যদি স্মার্ট আইডি কার্ড হয় তবে আপনি সরাসরি নিজেই রকেট মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার করে আমাদের দেখানো রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম অনুসরণ করে নিজেই খুলতে পারবেন।

এই ক্ষেত্রে আপনি আপনার ন্যাশনাল স্মার্ট কার্ড নিয়ে রকেট এজেন্ট পয়েন্ট ভিজিট করলে, তারাও আপনাকে খুব দ্রুত ও স্বল্প সময়ের মধ্যে বিনামূল্যে একটি রকেট একাউন্ট খুলে দিতে পারবে। 

রকেট একাউন্ট খুলে সহজেই বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা রকেট একাউন্টের সুবিধা নেওয়ার জন্যই আপনাদের কে এই পোস্ট প্রদান করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ

নগদ একাউন্টের সুবিধা 

Robi recharge offer

গ্রামীণফোন বান্ডেল অফার

GP new sim offer 

রকেট একাউন্ট খোলার সুবিধা 

বর্তমানে বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সমূহের একটি হচ্ছে রকেট।

একটি রকেট একাউন্ট কে আপনি বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করতে পারেন।

বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানিও গার্মেন্টস সেগুলোতে শ্রমিকদের বেতন সরাসরি রকেট একাউন্টে প্রদান করা হয়।

এসব একাউন্ট থেকে রকেট গ্রাহকদের টাকা উত্তোলন করতে কোন ধরনের চার্জ নেওয়া হয় না।

এক কথায় বলতে গেলে বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দোরগোড়ায় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দিতে রকেটের এটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।

একটি রকেট একাউন্ট থেকে অন্য রকেট পার্সোনাল একাউন্টে টাকা সেন্ড করতে কোন ধরনের সেন্ড মানি চার্জ কাটা হয় না।

এছাড়াও অন্যান্য জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা কবে থেকে ক্যাশ আউট চার্জ কম রকেটের।

রকেট সেলারি একাউন্ট গ্রাহকরা ফ্রি ক্যাশ আউট করতে পারেন এটিএম বুথ থেকে।

তবে অন্যান্য সাধারণ রকেট পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীরা প্রতি হাজারে 9 টাকা খরচে ক্যাশ আউট করতে পারেন রকেট এটিএম থেকে। 

সার্বিক দিক বিবেচনা করে বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সমূহের মধ্যে রকেট নির্বাচন করে নিতে পারেন।

তাই আমাদের দেখানো রকেট একাউন্ট একটিভ করার নিয়ম জেনে নিজেই নিজের একাউন্ট খুলুন।

আরও পড়ুনঃ

GP ইন্টারনেট offer

Robi bundle offer

Airtel internet offer

কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলতে হয়?

প্রিয় পাঠক কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলতে হয় এই সম্পর্কে আমরা এই পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। মূলত কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলতে হয় এই প্রশ্নে আপনাকে বলব আপনি রকেট অ্যাপস ব্যবহার করুন অথবা রকেট এজেন্ট পয়েন্টে ভিজিট করুন। 

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম?

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম হচ্ছে রকেট অ্যাপ ব্যাবহার করা। যদি আপনার কাছে এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন না থাকে তবে আপনি রকেট এজেন্ট পয়েন্টে ভিজিট করার মাধ্যমে সহজে রকেট একাউন্ট খুলতে পারেন।

উপসংহার,

আশাকরি আপনি এখানে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। 

রকেট একাউন্ট সম্পর্কে (কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলব) আপনার আরও জানা থাকলে আমাদের কমেন্ট করে জানান।

সুবিধাসমুহ ও অন্যান্য সেবা মূলক সার্ভিস ব্যবহার করে সহজেই আপনি রকেট থেকে ভালো সুবিধা নিতে পারবে। 

বাংলাদেশের চলমান সকল সিমের অফার, মোবাইল ব্যাংকিং সেবা সিমের অফার, এবং ইন্টারনেট থেকে সঠিক তথ্য আরোহন এর জন্য আপনি এগুলোর ভিজিট করুন আমাদের ওয়ের সাইট।

এবং জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Leave a Comment

thirteen − six =