ফুটবলের জন্ম কোন দেশে? ফুটবল খেলার জন্ম কোথায় হয়?

ফুটবলের জন্ম কোন দেশে বা ফুটবল খেলার জন্ম কোথায় হয়েছে এই সম্পর্কে জানতে চান এখন অনেকেই। যদিও চীন, গ্রিস, রোম ইত্যাদি দেশে ফুটবল খেলা হয়ে আসছে অনেক আগে থেকে, সেখানে ফুটবল সদৃশ্য খেলার অস্থিত্ব প্রায় ২০০০ বছর আগে পর্যন্ত পাওয়া যায়।

তবে তাদেরকে আধুনিক ফুটবলের উদ্ভাবক বলা হয় না। অনেকের মতে ফুটবল খেলার জন্ম হয়েছে চিনে।

কিন্তু আপনি কি জানেন কি, ফুটবল খেলার জন্ম কোথায়? এই নিয়ে অনেক বিতর্ক থাকলেও একটি দেশকে ফুটবলের জনক বলা হয়ে থাকে।

আপনি যদি আধুনিক ফুটবলের জনক কে এই সম্পর্কে জানতে চান তবে সাথে থাকুন, এই আলোচনা টি আপনার জন্য অনেক বেশি প্রয়োজনীয়।

কারণ আজকে আমি আপনাকে সঠিক তথ্য জানিয়ে দিব, ফুটবল খেলার জন্ম কোথায় ও কোন দেশে।

ফুটবলের জন্ম কোন দেশে? ফুটবল খেলার জন্ম কোথায় হয়?

ফুটবলের জনক কে

ফুটবল খেলা ১৮৬৩ সালে ইংল্যান্ডে আবিষ্কার হয়। আধুনিক ফুটবলের উদ্ভব হয় ইংল্যান্ডে।

তাই ফুটবলের জন্ম কোন দেশে এমন প্রশ্ন আপনার কাছে এলে আপনি নির্দিধায় বলে দিতে পারেন ইংল্যান্ডে দেশের নাম। ফুটবলের জন্ম হয় ইংল্যান্ডে দেশে।

যদিও ফুটবলের জন্ম কোন দেশে এই নিয়ে অনেক তর্ক বিতর্ক রয়েছে তবে সকল তর্কবিতর্ক কে ছাপিয়ে বর্তমানে আধুনিক ফুটবলের জনক হিসেবে ইংল্যান্ডকে বলা হয়। 

আপনি যদি একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তবে অবশ্যই আপনি ফুটবলের জন্ম কোন দেশে এই প্রশ্নের উত্তরে ইংল্যান্ড এর নাম লিখবেন।

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান ২০২২

কাতার ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা কবে সময়সূচী ২০২২

পদ্মা সেতুর টোল কোন যানবাহনে কত?

ফুটবল আবিষ্কার করেন কে? ফুটবলের জনক কে 

এখন আপনার মনে আরো একটি প্রশ্ন আসতে পারে তা হল, ফুটবল আবিষ্কার করেন কে? তাহলে আপনাকে একটু পিছনের ইতিহাসে যেতে হবে। 

ফুটবলের জনক কোন দেশ তা জানার পর আপনার জানা উচিত ফুটবলের জনক কে। কেননা ১৯১৫ থেকে ১৯৪৭ পর্যন্ত ঐ সময়ে টোটাল ফুটবল নামে একটি ফুটবল খেলের সংকলন চালু ছিলো পৃথিবীতে। 

টোটাল ফুটবল পদ্ধতিকে আরো বেশী আধুনিক করে পরবর্তীতে ধাপে ধাপে উন্নীত করে বর্তমান ফুটবলের সংক্রন্টি আমরা দেখতে পাচ্ছি তার একটি আধুনিক রূপ বলতে পারেন।

তবে ক্লাব ভিত্তিক ফুটবল ও ফুটবল প্লেয়ার পরিবর্তন এবং ফুটবলে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করা হয়েছে তখন থেকেই।

টোটাল ফুটবল এর জনক, জ্যাক রেনল্ডস, যিনি মূলত আজাক্স এর ম্যানেজার ছিলেন 1915 সালের সময় থেকে 1947 সাল পর্যন্ত প্রথম টোটাল ফুটবল এর প্রচলন হয় এনার ই হাত ধরেই।

আরও পড়ুনঃ

নোয়াখালী ভাষায় বন্ধুর জন্মদিনের শুভেচ্ছা কিভাবে জানাবেন

নতুন বছরের শুভেচ্ছা মেসেজ ২০২৩

ফুটবলের জনক কোন দেশ?

ফুটবলের জনক কোন দেশ
ফুটবলের জনক কোন দেশ

কারণ বর্তমান সময়ে এসেও অধিকাংশ মানুষ মনে করেন প্রথম ফুটবল খেলা আবিষ্কার হয়েছিল চীন দেশে।

কিন্তু আপনি যদি আরও তথ্যের গভীরে যেতে পারেন। তাহলে আপনি জানতে পারবেন ফুটবল খেলা অনেক প্রাচীনকাল থেকে চলে আসছে, ইতিহাসের পাতা থেকে জানা যায় গ্রিক সভ্যতা এবং রোমান সভ্যতার আমলে প্রচলিত ছিল বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় খেলাটি।

তাহলে এবার আপনি একটু ভেবে দেখুন যে, এই ফুটবল খেলা আসলে কত আগে থেকে চালু হয়েছে।

ইতিহাস থেকে স্পষ্টভাবে জানা যায় যে, খ্রিস্টপূর্ব ৩৫০ সালের দিকে প্রাচীন ইতিহাসের রোমান সভ্যতা এবং গ্রিক সভ্যতার যুগেও মানুষরা ফুটবল খেলত। 

তবে তাঁদের ফুটবল খেলার ধরণ বর্তমান সময়ে যে ধরণের ফুটবল খেলা হয়ে থাকে তার থেকে অনেকটাই ভিন্ন ছিল।

তাই ফুটবল এর আবিষ্কারক দেশ হিসাবে চিনকে বলা হলেও আধুনিক ফুটবলের আবিষ্কারক হিসেবে ইংল্যান্ড এর নাম এসে থাকে। 

ইতিহাস নয় বরং খেলার মানদন্ডের ভিত্তিতেই আন্তর্জাতিক ফুটবল এর সংস্থা (ফিফা) নিজের মতামত পরিবর্তন করে, ফুটবলের জনক হিসাবে ইংল্যান্ড এর নাম নির্ধারণ করেছেন।

প্রথম ফুটবল এর মত যে খেলাটি চীনে খেলা হত সেই খেলার নাম Cuju (কুজু). সেই খেলা কে ফুটবলের সর্ব প্রথম রূপ হিসেবে উল্লেখ করে থাকনে অনেকে। এবং চীনের ভাষা Cuju শব্দের অর্থ হচ্ছে Kick Ball (কিক বল)।

আরও পড়ুনঃ

জার্মানির প্রথম মহিলা চ্যান্সেলর কে?

৭ জন বীরশ্রেষ্ঠের নামের তালিকা ও পদবী বিস্তারিত

ফুটবলের ইতিহাস

টোটাল ফুটবলের ভিত্তি কে আরও বেশি আধুনিক করে হাঙ্গেরি ১৯৫০ সালে, যা ফুটবল খেলায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন বয়ে আনে। 

সে সময় হাঙ্গেরি গোল্ডেন টিমের মাধ্যমে পুরো ফুটবল বিশ্বকে রাজত্ব করে। জ্যাক রেইনল্ডস, যিনি ১৯১৫–১৯২৫, ১৯২৮–১৯৪০ এবং ১৯৪৫–১৯৪৭ সালে আয়াক্সের কোচ ছিলেন, প্রথম এই পদ্ধতিটি প্রত্যক্ষ এবং পরিশোধন করে ফুটবলে সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করেন।

রাইনাস মিশেলস, যিনি রেইনল্ডসের অধীনে খেলেছেন, পরবর্তীতে আয়াক্সের কোচের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

তিনি রাইনাস মিশেলস এই ধরনাটিকে পুনরায় পরিশোধন করেন যা বর্তমানে “টোটাল ফুটবল” নামে পরিচিত।

তিনি ১৯৭০ এর দশকে আয়াক্স এবং নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলে এই কৌশল ব্যবহার করেন। 

যদিও ক্রুইফ সেন্টার ফরোয়ার্ড হিসেবে মাঠে নামতেন, তিনি পুরো মাঠেই খেলতেন।

যার ফলে টোটাল ফুটবলের মত একটি গতিশীল কৌশলের প্রয়োজন পড়ে।

তবে ক্রুইফের সতীর্থরা তার নড়াচড়ার সাথে নিজেদের মানিয়ে নেন। তারা প্রয়োজনমত অবস্থান পরিবর্তন করে খেলার ধারা বজায় রাখতেন।

আধুনিক ফুটবল টোটাল ফুটবলের ব্যাবহার

টোটাল ফুটবলকে অনেক সময় আক্রমণাত্মক ফুটবল বলে অপব্যবহার করা হয়েছে, তবে ফুটবলকে বর্তমান সময়ে নিয়ে আসতে এই কৌশল গুলো অবলম্বন করে আমরা আধুনিক ফুটবল শৈলি খুঁজে পেয়েছি । 

প্রকৃতপক্ষে টোটাল ফুটবল হল প্ররোচক যা পাল্টা আক্রমনবিহীন এবং অবস্থান পরিবর্তন ও অধিক চাপ প্রয়োগ ভিত্তিক একটি ফুটবল কৌশল।

বিশ্বের জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনা, আর্সেনাল, অ্যাথলেতিক ক্লাব দি বিলবাও, এএফসি আয়াক্স এবং স্পেন জাতীয় ফুটবল দল যে পদ্ধতিতে খেলে তা “টিকি-টাকা” নামে পরিচিত।

বর্তমান ফুটবলের মূল ধারাটি এসেছে টোটাল ফুটবল থেকে, তাই ফুটবলে টোটাল ফুটবল এর গুরুত্ব অনেক। 

১৯৮৮ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত বার্সেলোনার কোচ থাকাকালীন সময় ক্রুইফ যে কৌশল ব্যবহার করতেন তার উন্নত ও বিবর্ধিত রূপই হল টিকি-টাকা।

আরও পড়ুনঃ

মরক্কোর খেলা কবে?

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রথম অধিনায়ক কে?

ফুটবলের রাজা কে?

ফুটবলের রাজা হচ্ছেন পেলে। সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন পেলে। ১৯৭০ সালের বিশ্বকাপের পর নিজেকে সর্বকালের সেরা ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে প্রমাণ করেন পেলে।

১৯৫৮, ১৯৬২ এবং ১৯৭০ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে নেয় ব্রাজিল। টানা চারটি (১৯৫৮,৬২,৬৬,৭০) টুর্নামেন্টের তিনটিরই ট্রফি ওঠে ব্রাজিলের হাতে। ১৯৭০ সালের বিশ্বকাপে পেলে খেলেন তার চতুর্থ বিশ্বকাপের শেষটি।

এই যুগটাকে ফুটবলে ব্রাজিল ফুটবলের স্বর্ণযুগ বলা হয়ে থাকে এবং তা সম্ভব হয়েছে ফুটবলের জাদুকর পেলে এর চমকপ্রদ ফুটবল খেলা উপহার এর মাধ্যমে।

আরও পড়ুনঃ

মেসির মোট গোল সংখ্যা কত? বিশ্বকাপে মেসির গোল কত

টিভিতে আজকের খেলার সময়সূচি ২০২২

বর্তমান সময়ে ফুটবলের সেরা খেলোয়াড় কে?

বর্তমান সময়ে ফুটবলের সেরা খেলোয়াড়ের নাম হচ্ছে মেসি।

শুধু বিশ্বকাপ ব্যতীত অন্যান্য সকল ট্রাফি মেসির শোকেচে শোভা পাচ্ছে।

কাতারে অনুষ্ঠিত 2022 ফিফা বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে আর্জেন্টিনা দল এবং নিজের সর্বশেষ পঞ্চম বিশ্বকাপ খেলেছেন লিওনেল মেসি।

আশা করা হচ্ছে লিওনেল মেসি নিজের পঞ্চম ফিফা বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে তার সেই শিরোপা শোকেস কানায় পূর্ণ করবেন।

বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রথম মুসলিম আয়োজক দেশ কোনটি

বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রথম মুসলিম আয়োজক দেশ হচ্ছে কাতার। 2022 ফিফা ফুটবল বিশ্বকা এর ২২ তম আসর কাতারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনা বনাম অস্ট্রেলিয়ার পরিসংখ্যান 

ব্রাজিল বনাম দক্ষিণ কোরিয়া পরিসংখ্যান

ফুটবলের জন্ম কোন দেশে ও সেরা ফুটবলার সম্পর্কে প্রশ্ন ও উত্তর

বর্তমান সময়ে ফুটবলের সেরা খেলোয়াড় হচ্ছে মেসি।

ফুটবলের রাজা হচ্ছেন পেলে। ব্রাজিলের হয়ে চারটি ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ খেলে ৩ টিতে শিরোপা জিতে পেলে নিজেকে এই অনন্য উচ্চতায় নিয়ে জান।

বর্তমান বিশ্বের জনপ্রিয় খেলা ফুটবল খেলার জন্ম হয় ইংল্যান্ডে।

বর্তমান সময়ে ফুটবলের জাদুকর মনে করা হয় মেসি কে।

ফুটবলের জন্ম কোন ইংল্যান্ডে।

উপসংহার,

আশা করি আপনি জানতে পেরেছেন ফুটবলের জন্ম কোন দেশে, ফুটবলের জনক কোন দেশ এবং ফুটবলের ইতিহাস সম্পর্কে।

ফুটবলের জাদুকর কে? ফুটবলের রাজা কে? কেন পেলে কে ফুটবলের রাজা বলা হয় সেই সম্পর্কে জানানো হয়েছে।

ফুটবল খেলা সম্পর্কে আপনার আরও জানার থাকলে আমাদের কমেন্ট করে জানান।

 ব্লগিং help, টেলিকম অফার, মোবাইল ব্যাংকিং সেবা বিকাশ, নগদ, রকেট অফার এবং ইন্টারনেট থেকে টাকা ইনকাম সম্পর্কিত তথ্য জানতে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

এবং ফেজবুকে আপডেট পেতে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

আরও পড়ুনঃ

গুগল ট্রান্সলেট ইংলিশ টু বাংলা সফটওয়্যার ফ্রি ডাউনলোড পদ্ধতি

১৬ ডিসেম্বর উপলক্ষে কবিতা

কারাগারের রোজনামচা নামকরণ কে করেছেন?

কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ কোয়াটার ফাইনাল সময়সূচি বাংলাদেশ

১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের ভাষণ

Leave a Comment

thirteen − two =

%d bloggers like this: