ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম । FB আইডি ডিএক্টিভ করলে কি হয়?

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম সম্পর্কে আপনি জানেন কি? ফেসবুক হচ্ছে একটি বহুল ব্যবহৃত জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক সাইট। বর্তমানে পৃথিবী জুড়ে প্রতিটি সচেতন মানুষই নিজেদের প্রয়োজনে ফেসবুক ব্যবহার করে থাকে।

এছাড়াও বর্তমানের ডিজিটাল মার্কেটিং যুগে ফেসবুক একাউন্ট এর গুরুত্ব অপরিসীম। একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে পারেন বর্তমান সময়ে। 

সেইসাথে আপনি আপনার অপ্রয়োজনীয় সময়ে ফেসবুক আইডিকে ডিএক্টিভ করে রাখতে পারেন যা একান্তই আপনার নিজস্ব ব্যক্তিগত ব্যাপার।

বর্তমান যুগে ফেসবুক অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এবং দিন দিন এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। ছোট-বড় প্রায় সকলেই বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহার করে থাকে। 

অনেকে ফেসবুক থেকে ভালো পরিমাণ টাকা আয় করছেন যা ইতিমধ্যেই আমরা একটি পোস্টে জানিয়েছি।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম 2022 – Rules for deactivating Facebook ID

যেহেতু আমরা বেশির ভাগ মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করে থাকি কিন্তু এমন অনেকেই আছেন যারা এর নিয়ম-কানুন সম্পর্কে জানেন না।

আজকে আমরা যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি যেমন ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট কিভাবে করে এই বিষয়টি অনেকেই জানেন না। 

আজকে আমাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন কিভাবে একটি ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করতে হয়। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করলে কি হয়?

আমরা যারা ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে থাকি তাদের অনেক সময় নানা প্রয়োজনে ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করতে হয়। ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করলে কি হয় তা অবশ্যই আপনাকে জেনে নিতে হবে।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করলে কি হয় তা নিচে উল্লেখ করা হলোঃ

=>১# আপনার ফেসবুক আইডি বা প্রোফাইল কেউ খুজে পাবে না। 

যখন আপনি আপনার ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করবেন তখন সেই আইডি কিংবা আপনার প্রোফাইল পেজ কেউ খুজে পাবে না।

যদি  আপনার কোনো বন্ধু অথবা ফেসবুকে থাকা অন্য কেউ আপনার ফেসবুক আইডির নাম লিখে সার্চ করে তবুও আপনার আইডিটি আসবে না। 

সুতরাং ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভেট করলে আপনার আইডি বা প্রোফাইল হারিয়ে যাবে এবং কেউ আপনার প্রোফাইলে প্রবেশ করতে পারবে না।

=>২# আপনাকে ফেসবুকে কেউ ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবে না

যখন আপনার ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট হয়ে যাবে ফেসবুক সাথে সাথে আপনার ঐ আইডিটা হাইড করে ফেলবে এবং কোথাও আপনার ঐ ফেসবুক আইডি একাউন্টটি খুঁজে পাওয়া যাবে না।

তাই আপনার ঐ আইডিতে কেউ ঢুকতে পারবে না এবং কোন ধরনের ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবে না। 

=>৩# আপনার ফেসবুক পেজ বন্ধ হয়ে যাবে

-আপনি যদি আপনার ডিএক্টিভেট করা ফেসবুক একাউন্টটি দিয়ে কোন ফেসবুক পেজ খুলে থাকেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টের মত আপনার Facebook পেজটিও সাথে সাথে ফেসবুক হাইড করে ফেলবে। 

কিন্তু যদি আপনি আপনার পাশাপাশি ফেসবুক পেজের অন্য কোন এডমিন সংযুক্ত রাখেন, সে ক্ষেত্রে আপনার ফেইসবুক একাউন্টটি হাইড হলেও  আপনাদের পেজটি একটিভ থাকবে। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করার সুবিধা। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করার অনেক সুবিধা রয়েছে।

আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই রয়েছে যারা ছাত্র অবস্থায় ফেসবুক ব্যবহার করি। আমাদের যে সকল পরীক্ষা হয় পরীক্ষার সময়কাল কখনো এক সপ্তাহ আবার কখনো এক মাস হয়ে থাকে।

ঐ সময়কালে আমরা অনেকেই চাই ফেসবুক ব্যবহার না করতে। এটি আমাদের জন্যে ফেসবুক ডিএক্টিভেট করার একটি সুবিধা।

এছাড়াও এই পদ্দতিতে আমরা ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম উপায় অবলম্বন করে সকলে নিজ ইচ্ছা অনুযায়ী ফেসবুক অ্যাকাউন্ট টি পুনয়ায় একটিভ করে ব্যবহার করতে পারবো।

আবার একই ভাবে আমাদের যখন প্রয়োজন হবে তখনই আমরা ফেসবুক একাউন্ট হাইড করতে পারি। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করার অসুবিধা 

 একটি ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করা যেমন সুবিধা রয়েছে তেমনই অসুবিধাও রয়েছে।

যখন আমরা ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ডিএকটিভেট করে রাখবো তখন আমাদের আইডিটি কোথাও খুঁজে পাওয়া যাবে না।

শুধু তাই নয় আমরা আমাদের একাউন্টের মাধ্যমে যে সকল পেজ খুলেছি  সেসকল পেজগুলো আন একটিভ হয়ে যাবে।

আমাদের মধ্যে অনেকেই এমন রয়েছে যারা তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের আইডি পাসওয়ার্ড মনে রাখি না।

যখন আমরা ফেসবুক আইডিটি ডিএক্টিভেট করবো তখন যদি আমাদের আইডি পাসওয়ার্ড ভুলে যাই, তাহলে আমরা আর কখনোই আমাদের আইডিতে লগইন করতে পারবোনা।

এছাড়াও আমাদের অনেক পরিচিত মানুষ রয়েছে যারা আমাদের ফেসবুকে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও আমাদের খুঁজে পায় না।

এতে করে আমাদের পরিচিত মানুষের সাথে আমাদের সামাজিক দূরত্ব বেড়ে যায়। 

আরও পড়ুনঃ

সুন্দর প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড | ছেলেদের ও মেয়েদের জন্য পিক

পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম পদ্ধতি ২০২২?

এতক্ষণ ধরে আমরা জানলাম ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করার সুবিধা অসুবিধা এবং ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করলে কি হয় সে সম্পর্কে।

এখন আমরা জানবো আমরা কিভাবে আমাদের ফেসবুক আইডিটি ডিএক্টিভেট করতে পারি।

আমরা আপনাদের ফেসবুক আইডি কিভাবে ডিএক্টিভেট করতে হয় তা সরাসরি দেখিয়ে দেবো এখানে।

একটি ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করা মাত্র 2 মিনিটের কাজ। 

প্রথম ধাপ- আপনার যে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে তা ফেইসবুক অ্যাপ এ গিয়ে লগ-ইন করে নিন। তারপর আমাদের নির্দেশনা অনুযায়ী থ্রী ডটে ক্লিক করুন।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম step-1
ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম step-1

দ্বিতীয় ধাপঃ Facebook account ID তে থ্রি ডটে ক্লিক করার পর আপনারা একটু নিচে গেলে সেটিংস অপশন পেয়ে যাবেন।

Facebook account ID settings
Facebook account ID settings

তৃতীয় ধাপঃ Facebook account সেটিংস অপশনে ক্লিক করার পর একদম উপরেই আপনারা পেয়ে যাবেন পার্সোনাল ইনফরমেশন। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম
ফেসবুক পার্সোনাল ইনফরমেশন

চতুর্থ ধাপঃ পার্সোনাল ইনফরমেশন এ ক্লিক করার পর আপনারা দেখতে পাবেন আপনাদের ফেসবুক একাউন্টের নাম ইমেইল এড্রেস ফোন নাম্বার ডাটা ইউজেস এর ঠিক নিচে অ্যাকাউন্ট ওনারশিপ এন্ড কন্ট্রোল নামে একটি অপশন আছে। 

ফেসবুক পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট ওনারশিপ এন্ড কন্ট্রোল
ফেসবুক পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট ওনারশিপ এন্ড কন্ট্রোল

পঞ্চম ধাপঃ আপনারা সরাসরি একাউন্ট ওনারশিপ এন্ড কন্ট্রোলে ক্লিক করে দিবেন ম্যানেজ একাউন্ট লেখায় ক্লিক করার পর একাউন্ট ডিএক্টিভেট এর অপশন পেয়ে যাবেন। 

ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভেট অপশন
ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভেট অপশন
একাউন্ট ডিএক্টিভেট

কিভাবে ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করতে হয় – password ব্যবহার

ষষ্ঠ ধাপঃ একাউন্ট ডিএক্টিভেট এর উপর ক্লিক করার পর আপনাদের অন্য একটি পেজে নিয়ে যাওয়া হবে সেখানে আপনাদের কাছে আপনার ফেসবুক একাউন্টের পাসওয়ার্ড চাইবে।

পাসওয়ার্ড ব্যাবহার
পাসওয়ার্ড ব্যাবহার

সপ্তম ধাপঃ পাসওয়ার্ড দিয়ে continue-তে ক্লিক করার পর আপনাদের ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভেট করার কারণ চাইবে আপনি সেখানে আপনার ইচ্ছামত কারণ বসিয়ে continue-তে ক্লিক করে দেবেন।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার
ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার

ফেসবুক একাউন্টের সাথে জরিত পেজ

অষ্টম ধাপঃ এর পরের পেজে আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিয়ে যদি কোন পেইজ খোলা আছে কিনা।

কেননা ফেচবুক আইডি ডিলিট করলে আপনার আইডির সাথে সাথে সে পেজটিও ডিএক্টিভ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুনঃ

কাতার বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব পয়েন্ট টেবিল এবং খেলার বাংলাদেশ সময় 2022

পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ | পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত

সেখানে আপনার কাছে একটি অপশন দেওয়া হবে আপনি চাইলে আপনার ফেসবুক পেজ এর মালিক অথবা এডমিন অন্য কাউকে করতে পারেন।

সেক্ষেত্রে আপনার ফেসবুক পেজটি আপনি পরবর্তীতে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

আপনার ফেসবুক পেজ এডমিন
আপনার ফেসবুক পেজ

এরপর সব  নিয়মকানুন পড়ে ডিএক্টিভেট মাই একাউন্ট এ ক্লিক করলে আপনার একাউন্টে ডিএকটিভেট হয়ে যাবে। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করলে কি হয়
ডিএক্টিভেট মাই একাউন্ট

উপরে একাউন্ট ডিএক্টিভেট সাকসেসফুলি লেখা উঠবে। তখন আপনি বুঝে যাবেন যে আপনার একাউন্টে ডিএক্টিভেট সফলভাবে হয়েছে। 

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম
ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম
ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম কি?

মনে রাখবেন ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম হচ্ছে ফেসবুক অ্যাপ লগিন করে সঠিক সেটিং নির্বাচন করে একাউন্ট দই ডিএক্টিভ করা।

কেন ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করার সময় সতর্ক থাকতে হয়?

বন্ধুরা ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার সাথে সাথে ফেসবুক পেজও ডিএক্টিভ হয়ে যায়। তবে আপনি আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করার পূর্বে ফেসবুক পেজের অ্যাডমিন অন্য কাউকে করতে পারবেন।

কিভাবে ফেসবুক ডিএক্টিভ করা যায়?

আমারা ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম পোস্টে কিভাবে ফেসবুক ডিএক্টিভ করা যায় বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

উপসংহার

আশা করছি ফেসবুক আইডি কিভাবে ডিএক্টিভেট করতে হয় তা আপনাদের খুব ভালোভাবে বোঝাতে পেরেছি।

আমাদের এই পোস্টে যত সুবিধা এবং অসুবিধা এর কথা বলা হয়েছে তা আপনারা খুব ভালোভাবে পড়ে তারপর ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করবেন।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভেট করার সাথে সাথে ও আপনি আবার যদি ইমেইল বা ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সাথে সাথে আইডিটি লগইন করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম টেলিকম অফার ইন্টারনেট দুনিয়ার খবরা-খবার জানতে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেইজে।

আরও পড়ুনঃ

বাংলা মাসের কত তারিখ আজ ২০২২ | আজকের বাংলা তারিখ কত?

বিদায় অনুষ্ঠানের বক্তব্য pdf । Farewell speech in Bangla

Broken Heart Bangla sad SMS 2022 | কষ্টের এসএমএস স্ট্যাটাস বাংলা

Leave a Comment

16 − ten =