পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ | পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত

পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ সম্পর্কে এই পোস্টে আপনাকে জানবো। কেননা বাংলাদেশের দক্ষিণা অঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হচ্ছে ২৫ জুন ২০২২। তাই পদ্মা সেতু টোল রেট ২০২২ বিস্তারিত জানতে অনেকেই এখন থেকে গুগল সার্চ করে থাকেন। আপনারা যারা পদ্মা পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশের দক্ষিণ অঞ্চলে যাতায়াত করতে থাকেন তাদের পদ্মা সেতুর টোল সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা থাকা জরুরী।

চলের প্রমত্ত পদ্মার ওপর নির্মিত হবে একটি সেতু, এতে ঢাকার সঙ্গে দক্ষিন-পশ্চিমের যোগাযোগে উন্মাচিত হবে নতুন সম্ভবনা এ স্বপ্ন বহুদিনের। যা এখন বাস্তবে পরিণিত।

নিজস্ব অর্থায়ন হলেও আমাকে আপনাকে এই টাকার দায় বহন করতে হবে না। যারা পদ্মা সেতু ব্যবহার করবে তাদেরকে এই সুবিধা ভোগের বিনিময়ে সেতু নির্মাণ ব্যয় পরিশোধ করতে হবে।

Contents hide
4 পদ্মা সেতু ব্যবহারকারী ১৩ রুটের বাস ভাড়া নির্ধারণ

পদ্মা সেতু তৈরিতে খরচ কত টাকা?

পদ্মা সেতুর টোলের তালিকা
স্বপ্নের পদ্মা সেতুর টোলের তালিকা

পদ্মা সেতু তৈরিতে খরচ হয় বা মোট ব্যয় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৩০০ কোটি টাকা অনুদান এবং ২৯ হাজার ৮৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা ঋণ।

কত % সুদের হারে পদ্মা সেতুর উপর ঋণ নেওয়া হয়েছে

অর্থ বিভাগ তথা বাংলাদেশ সরকার ২% সুদে ঋণ গ্রহণ করে সেতু কর্তৃপক্ষকে ১% সুদে ঋণ দিয়েছে। অর্থ বিভাগের নিজস্ব বিনিয়োগ ৬০২ কোটি টাকা।ঋণ পরিশোধের মেয়াদ ৩৫ বছর। প্রতি মাসে শোধ করতে হবে ৮২৬ কোটি টাকা

পদ্মা সেতুর ঋণপরিশোধের মাধ্যম কি

পদ্মা সেতুর ঋণ পরিশোধের মাধ্যম হচ্ছে টোল। বর্তমানে পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে।

এবং কোন যানবাহন থেকে কত টাকা টোল নেয়া হবে তা নির্ধারণ করেছে সরকার। জানিয়ে চলছে না মহলে আলোচনা সমালচনা।

পদ্মার ফেরি ভাড়া ও সেতুর টোল

পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত
পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত

বর্তমানে পদ্মা নদী পার হতে ফেরিতে যানবাহন ভেদে ভাড়া দিতে হয় ৭০ থেকে ৩ হাজার ৯৪০ টাকা প্রায়।

ব্লগ লিখে আয় করার উপায় | ঘরে বসে বাংলা লিখে টাকা আয় করুন! বিকাশ পেমেন্ট

পদ্মা সেতুতে যানবাহন ভেদে টোল দিতে হবে ১০০ থেকে সাড়ে ৫ হাজার টাকা।

ফেরিতে করে পদ্মা পাড় হতে যে পরিমাণ টোল আদায় করা হত সেই হিসাবে পদ্মা সেতুতে টোল বৃদ্ধির হার ৪২ শতাংশ থেকে সাড়ে ৫১ শতাংশ।

পদ্মা সেতু পার হওয়ার জন্য যানবাহনের যে টোল নির্ধারণ করা হয়েছে, সেটি এতদিনকার ফেরি সার্ভিসের দেড়গুণ এবং যমুনা নদীর ওপরে নির্মিত বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলের প্রায় দ্বিগুণ।

তবে এই বিষয়ে ভিন্ন মহলের কথা সরকারকে শুনতে হচ্ছে।

পদ্মা সেতুর টোলের তালিকা ২০২২

যানবাহনটোল
মোটরসাইকেল১০০
কার/জিপ৭৫০
পিকআপ১,২০০
মাইক্রোবাস১,৩০০
ছোট বাস১,৪০০
মাঝারি বাস২,০০০
বড় বাস২,৪০০
ছোট ট্রাক (৫ টন পর্যন্ত)১,৬০০
মাঝারি ট্রাক (৫-৮ টন)২,১০০
মাঝারি ট্রাক (৮-১১ টন)২,৮০০
ট্রাক (৩ এক্সেল পর্যন্ত)৫,৫০০

পদ্মা সেতু ব্যবহারকারী ১৩ রুটের বাস ভাড়া নির্ধারণ

পদ্মা সেতু ব্যবহারকারী ১৩ রুটের বাস ভাড়া তালিকা
পদ্মা সেতু ব্যবহারকারী ১৩ রুটের বাস ভাড়া তালিকা

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে চলাচল করে এমন ১৩ রুটের ভাড়ারপদ্মা সেতুর টোল সমন্বয় করে ভাড়া ১০ থেকে ১১ টাকা বাড়ানো হবে।

তবে ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে ব্যবহারের জন্য সরকার টোল আরোপ শুরু করলে বাস ভাড়া আবারো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত এক্সপ্রেসওয়ের দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার।

ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে ব্যবহারের জন্য সরকার টোল আরোপ করলে,যেভাড়া নির্ধারন হতে পারে।

  • ঢাকা-ভাঙ্গা-মাদারীপুর-বরিশালের ভাড়া ৪১২ টাকা,
  • ঢাকা-রাজৈর-গোপালগঞ্জের ভাড়া ৫০৪ টাকা,
  • ঢাকা-গোপালগঞ্জ-খুলনার ভাড়া ৬৪৯ টাকা,
  • ঢাকা-জাজিরা-শরীয়তপুরের ভাড়া ২১৮ টাকা,
  • ঢাকা-বরিশাল-পিরোজপুরের ভাড়া ৫৩৪ টাকা,
  • ঢাকা-গোপালগঞ্জ-বাগেরহাট-পিরোজপুরের ভাড়া ৬২৮ টাকা,
  • ঢাকা-বরিশাল-পটুয়াখালীর ভাড়া ৫০১ টাকা,
  • ঢাকা-ভাঙ্গা-মাদারীপুরের ভাড়া ৩২৭ টাকা,
  • ঢাকা-গোপালগঞ্জ-খুলনা-সাতক্ষীরার ভাড়া ৬৩৩ টাকা,
  • ঢাকা-ভাঙ্গা-ফরিদপুরের ভাড়া ২৮৮ টাকা,
  • ঢাকা-মাদারীপুর-বরিশাল-ভোলা-চর ফ্যাশনের ভাড়া ৬৫৩ টাকা,
  • ঢাকা-বুড়িগঙ্গা দ্বিতীয় সেতু-শরীয়তপুরের ভাড়া ২১৯ টাকা,
  • এবং ঢাকা-মাদারীপুর-বরিশাল-পটুয়াখালী-কুয়াকাটার ভাড়া ৬৯৪ টাকা হবে।

সেতু বিভাগ সূত্র জানায়, প্রস্তাবিত টোলহার সেতু চালুর ১৫ বছরের জন্য প্রযোজ্য হবে।

প্রতি ১৫ বছর পরপর টোলের হার ১০ শতাংশ করে বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে।

দেশের দুই প্রধান সেতু ও পদ্মা নদীর ফেরিটোলের হিসাব-নিকাশ ও পার্থক্য

সেতু বিভাগের প্রকাশিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে বিভিন্ন যানবাহনের জন্য সরাকার যে পদ্মা সেতুর টোল তালিকা প্রকাশ করেছে তা জানিয়েছি।

পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত ও গাড়ির ভাড়া জানার পর আপনাকে এই বিষয়ে আরাও বিস্তারির জানাবো।

পদ্মা সেতুর মোটরসাইকেলের টোল

একটি মোটরসাইকেলকে পদ্মা সেতু পাড় হতে দিতে হবে ১০০ টাকা।

মাওয়া প্রান্ত দিয়ে ফেরি পার হতে এই খরচ ৭০ টাকা।

পদ্মার তুলনায় দৈর্ঘ্যে অর্ধেক বঙ্গবন্ধু সেতু পার হতে মোটরসাইকেলের খরচ ৫০ টাকা।

দৈর্ঘ্যের হিসাবে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেলের টোল দাঁড়াচ্ছে প্রতি কিলোমিটারে ১০ টাকা ৭৫ পয়সা।

আর বঙ্গবন্ধু সেতুতে তার পরিমাণ ১০ টাকা ১৫ পয়সা।

সেই হিসাবে পদ্মা পাড়ি দিতে যমুনার তুলনায় মোটরসাইকেলকে প্রতি কিলোমিটারে বেশি দিতে হবে ৬০ পয়সা।

আরও পড়ুনঃ

স্লিভার কাকে বলে? What is Sliver in Bangla

ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড | surokkha gov bd টিকা কার্ড ডাউনলোড

পদ্মা সেতুর প্রাইভেট কার ও সাধারণ জিপে টোল

পদ্মা পাড়ি দিতে প্রাইভেট কার ও সাধারণ জিপে টোল ঠিক করা হয়েছে ৭৫০ টাকা।

ফেরিতে বর্তমানে এই ধরনের গাড়ি পারাপারে দিতে হচ্ছে ৫০০ টাকা। যমুনা পাড়ি দিতে পদ্মার তুলনায় অর্ধেক দৈর্ঘ্যের বঙ্গবন্ধু সেতুর ক্ষেত্রে এই টোলের পরিমাণ ৫৫০ টাকা।

সে ক্ষেত্রে প্রাইভেট কারে যমুনা পাড়ি দিতে কিলোমিটারপ্রতি খরচ ১১১ টাকা ৬১ পয়সা।

আর পদ্মা সেতুতে কিলোমিটার প্রতি খরচ ৮০ টাকা ৬৬ পয়সা।

পদ্মা সেতুতে টোল প্রতি কিলোমিটারে কম ৩০ টাকা ৯৫ পয়সা।

পদ্মা সেতুর পিকআপ ও বিলাসবহুল জিপের টোল

পিকআপ ও বিলাসবহুল জিপ পারাপারে ফেরিতে দিতে হচ্ছে ৮০০ টাকা। পদ্মা সেতু পার হতে সেই টোলের পরিমাণ ১ হাজার ২০০ টাকা।

পদ্মার তুলনায় অর্ধেক বঙ্গবন্ধু সেতুতে এই টোল ৬০০ টাকা।

সেই হিসাবে এই ধরনের গাড়িতে পদ্মা সেতুতে কিলোমিটারপ্রতি টোল খরচ ১২৯ টাকা ৬ পয়সা।

আর বঙ্গবন্ধু সেতুতে তা ১২১ টাকা ৭৫ পয়সা। অর্থাৎ পিকআপ ও বিলাসবহুল জিপে পদ্মা সেতুতে কিলোমিটারে খরচ বাড়ছে ৭ টাকা ৩১ পয়সা।

পদ্মা সেতুর মাইক্রোবাসে টোল

মাওয়া প্রান্তে মাইক্রোবাস পারাপারে ফেরিতে লাগে ৮৬০ টাকা। সেটি বাড়িয়ে পদ্মা সেতুতে করা হয়েছে ১ হাজার ৩০০ টাকা।

অর্ধেক দৈর্ঘ্যের বঙ্গবন্ধু সেতুতে মাইক্রোবাসের খরচ লাগে ৭৫০ টাকা। সেই হিসাবে পদ্মা সেতুতে মাইক্রোবাসে প্রতি কিলোমিটারে টোল ১৩৯ টাকা ৮২ পয়সা।

আর বঙ্গবন্ধু সেতুতে তার পরিমাণ ১৫২ টাকা ১৯ পয়সা। অর্থাৎ মাইক্রোবাসে পদ্মা সেতুতে কিলোমিটার হিসাবে বঙ্গবন্ধু সেতুর তুলনায় খরচ কমে আসবে ১২ টাকা ৩৭ পয়সা।

আরও পড়ুনঃ

NID Card Download Bangladesh | আইডি কার্ড অনলাইন কপি ডাউনলোড

টেলিটক এমবি চেক করার কোড কত? টেলিটক ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক

পদ্মা সেতুর ৩১ আসন বা এর কম আসনের ছোট বাসের টোল

৩১ আসন বা এর কম আসনের ছোট বাসের জন্য পদ্মা সেতুতে দিতে হবে ১ হাজার ৪০০ টাকা। ফেরিতে এসব গাড়িকে দিতে হচ্ছে ৯৫০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে যমুনা পাড়ি দিতে এই ধরনের বাসকে দিতে হচ্ছে ৭৫০ টাকা।

তার মানে বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৩১ বা এর কম আসনের ছোট বাসের জন্য কিলোমিটার প্রতি টোল আসে ১৫২ টাকা ১৯ পয়সা।

আর পদ্মা সেতুতে আসে ১৫০.৫৭ টাকা। এ ক্ষেত্রে পদ্মা সেতুতে কিলোমিটারে খরচ কম পড়বে ১ টাকা ৬২ পয়সা।

পদ্মা সেতুর মাঝারি বাসের টোল

মাওয়া প্রান্ত দিয়ে পদ্মা পাড়ি দিতে মাঝারি বাসকে ফেরিতে দিতে হয় ১ হাজার ৩৫০ টাকা। পদ্মা সেতু দিয়ে পারাপারে তা লাগবে ২ হাজার টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে যমুনা পাড়ি দিতে এই ধরনের বাসকে দিতে হচ্ছে ১ হাজার টাকা।

অর্থাৎ পদ্মা সেতুতে মাঝারি বাসের খরচ পড়বে কিলোমিটারে ২১৫ টাকা ১০ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুতে এই খরচ কিলোমিটারে ২০২ টাকা ৯৩ পয়সা।

ফলে পদ্মায় বাসমালিকদের খরচ বাড়ছে প্রতি কিলোমিটারে ১২ টাকা ১৮ পয়সা।

পদ্মা সেতুর বড় বাসের টোল

পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ সম্পর্কে অনেকের ভিন্ন মোট রয়েছে। তবে পদ্মা সেতু টোল রেট বিস্তারিত আপনার কাছে কেমন লেগেছে আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন।

মাওয়া প্রান্ত দিয়ে বড় বাসে ফেরিতে পদ্মা পারাপারে লাগছে ১ হাজার ৫৮০ টাকা। সেতুতে লাগবে ২ হাজার ৪০০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে এই ধরনের বাসে খরচ পড়ে ১ হাজার টাকা। অর্থাৎ পদ্মা সেতুতে বড় বাসের খরচ পড়বে কিলোমিটারে ২৫৮ টাকা ১২ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুতে এই খরচ ২০২ টাকা ৯৩ পয়সা। ফলে পদ্মায় বড় বাসমালিকদের খরচ বাড়ছে প্রতি কিলোমিটারে ৫৫ টাকা ১৯ পয়সা।

পদ্মা সেতুর ৫ টনের ট্রাকের টোল

পদ্মা সেতুতে ৫ টনের ট্রাক এ সেতু পাড়ি দিলে গুনতে হবে ১ হাজার ৬০০ টাকা। পাঁচ টন পর্যন্ত এই ট্রাক পারাপারে ফেরিতে দিতে হচ্ছে ১ হাজার ৮০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে এই ধরনের ট্রাক পারাপারে টোল দিতে হয় ১ হাজার টাকা।

অর্থাৎ পদ্মা সেতুতে পাঁচ টনের ট্রাকের খরচ পড়বে কিলোমিটারে ১৭২ টাকা ৮ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুতে এই দূরত্বের খরচ ২০২ টাকা ৯৩ পয়সা। ফলে পদ্মা সেতুতে ছোট ট্রাকে খরচ কমছে প্রতি কিলোমিটারে ৩০ টাকা ৮৫ পয়সা।

পদ্মা সেতুর পাঁচ টন থেকে আট টনের মাঝারি ট্রাকের টোল

পাঁচ টন থেকে আট টনের মাঝারি ট্রাকের জন্য পদ্মা সেতুতে দিতে হবে ২ হাজার ১০০ টাকা, ফেরিতে লাগছে ১ হাজার ৪০০ টাকা।

একই আকারের ট্রাকের জন্য বঙ্গবন্ধু সেতুতে দিতে হয় ১ হাজার ২৫০ টাকা।

এই হিসাবে পদ্মা সেতুতে পাঁচ থেকে আট টনের ট্রাকে টোলের খরচ পড়বে কিলোমিটারে ২২৫ টাকা ৮৬ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুতে এই দূরত্বের খরচ ২৫৩ টাকা ৬৫ পয়সা।

অর্থাৎ পদ্মা সেতুতে এই ধরনের ট্রাতে কিলোমিটারপ্রতি কম নেয়া হচ্ছে ২৭ টাকা ৭৯ পয়সা।

পদ্মা সেতুর ৮ টন থেকে ১১ টনের মাঝারি ট্রাকের টোল

পদ্মা সেতুতে ৮ টন থেকে ১১ টনের মাঝারি ট্রাকের টোল ধরা হয়েছে ২ হাজার ৮০০ টাকা।

ফেরিতে এই ধরনের গাড়ি পারাপারে লাগছে ১ হাজার ৮৫০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে এই গাড়িগুলোকে টোল হিসেবে দিতে হয় ১ হাজার ৬০০ টাকা।

অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে মাঝারি ট্রাকে প্রতি কিলোমিটারে পদ্মা সেতুর খরচ ৩০১ টাকা ১৪ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুর সেতুতে এই খরচ ৩২৪ টাকা ৬৮ পয়সা।

এই হিসাবে বঙ্গবন্ধু সেতুর তুলনায় পদ্মা সেতুতে কিলোমিটারপ্রতি খরচ কমবে ২৩ টাকা ৫৪ পয়সা।

পদ্মা সেতুর থ্রিএক্সেলের ট্রাকের টোল

থ্রিএক্সেলের ট্রাক পারাপারে পদ্মা সেতুতে টোল ঠিক করা হয়েছে সাড়ে ৫ হাজার টাকা।

ফেরিতে এই ধরনের গাড়ি পারাপারে লাগছে ৩ হাজার ৯৪০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে এই ধরনের ট্রাক পারাপারে লাগছে ২ হাজার টাকা।

কিলোমিটারপ্রতি খরচের হিসাবে দেখা যায় পদ্মা সেতুতে ৫৯১ টাকা ৫৩ পয়সা। যা বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৪০৫ টাকা ৮৫ পয়সা।

এ ক্ষেত্রে পদ্মা সেতুতে খরচ বাড়ছে প্রতি কিলোমিটারে ১৮৫ টাকা ৬৭ পয়সা।

আরও পড়ুনঃ

অনলাইনে নিজের পাসপোর্ট চেক করুন ঘরে বসে

সিলভার কাকে বলে | What is Silver in Bangla?

পদ্মা সেতুর মালবাহী ট্রেইলারের (ফোর এক্সেল) টোল

পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ দেখে অনেকে নেতিবাচক মন্তব্য করেন। বিশেষ করে বড় যানবাহন গুলির টোল চার্জ দেখে।

মালবাহী ট্রেইলারের (ফোর এক্সেল) টোল পদ্মা সেতুতে ধরা হয়েছে ৬ হাজার টাকা। ফেরিতে এই ধরনের গাড়ি পারাপারে লাগে ৪ হাজার টাকা।

আর যমুনা পাড়ি দিতে এই ধরনের ট্রাককে দিতে হচ্ছে ৩ হাজার টাকা।

দেখা যাচ্ছে মালবাহী ট্রেইলারে (ফোর এক্সেল) প্রতি কিলোমিটারে পদ্মা সেতুর খরচ ৬৪৫ টাকা ৩০ পয়সা।

বঙ্গবন্ধুর সেতুতে এই খরচ ৬০৮ টাকা ৭৭ পয়সা।

অর্থাৎ পদ্মা সেতুতে খরচ বাড়ছে কিলোমিটারপ্রতি ৩৬ টাকা ৫৩ পয়সা।

চার এক্সেলের ওপরে মালবাহী ট্রেইলারের জন্য প্রতি এক্সেলে পদ্মা সেতুতে যোগ হচ্ছে দেড় হাজার টাকা।

আর বঙ্গবন্ধু সেতুতে যোগ হচ্ছে ১ হাজার টাকা।

পদ্মা সেতুর টোল আদায়কারী ও সেতুর রক্ষণাবেক্ষণে ঠিকাদার কোম্পানীর নাম

এই কাজ পেয়েছে কোরিয়া এক্সপ্রেস করপোরেশন (KEC) ও চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (MBEC)।

এর মধ্যে এমবিইসি বর্তমানে মূল সেতু নির্মাণকাজ এবং কেইসি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে।

আগামী পাঁচ বছরের জন্য এই দুটি প্রতিষ্ঠান টোল আদায়, সেতু ও সেতুর দুই প্রান্তের যানবাহন চলাচল ব্যবস্থাপনায় আধুনিক পদ্ধতি চালু এবং সেতু ও নদী শাসনের কাজ রক্ষণাবেক্ষণ করবে।

এর জন্য পাঁচ বছরে তাদের দিতে হবে ৬৯৩ কোটি টাকা।

পদ্মা সেতু টোল তালিকা বিষয়ে আমার মতামত

পদ্মা সেতুর টোল চার্ট সম্পর্কে অনেকের অনেক মতামত থাকলেও দেশের উন্নয়নের স্বার্থে আপনাকে অবশ্যই সরকার নির্ধারিত ফি প্রদানের মাধ্যমে পদ্মা সেতু পার হতে হবে। 

কেননা সেতু তৈরি ও সংযোগ সড়ক তৈরি করার পরে একটি স্বপ্নের পদ্মা সেতু জনগণের জন্য উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে। 

ফেরি থেকে পদ্মা সেতুর টোল তালিকা লক্ষ্য করে অনেকেই সরকারকে নানান কথা বলছে।

তবে আমি মনে করি পদ্মা সেতুর টোল যাই হোক না কেন এই সেতু আমাদের জন্য গর্বের।

পদ্মা সেতুর ও পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ সম্পর্কে আপনি কি ভাবছেন তা আমাদের কমেন্ট করে জানান।

পদ্মা সেতুর টোল কোন যানবাহনে কত?

ভিন্ন ভিন্ন যানবাহনের জন্য পদ্মা সেতুর টোল ভিন্ন ভিন্ন। পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ পোস্টে আমারা বিস্তারিত জানিয়েছি আপনাদের।

পদ্মা সেতুর টোলের হার ও তালিকা?

এই পোস্টে পদ্মা সেতুর টোলের হার ও তালিকা দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ

যৌথ ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম | কিভাবে খুলবেন যৌথ একাউন্ট

দাম শব্দটি বাংলায় কিভাবে এসেছে?

ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করার নিয়ম | English to Bengali Translating

উপসংহার

আশা করি আপনি পদ্মা সেতুর টোল তালিকা ২০২২ সম্পর্কে জনাতে পেরেছেন। পদ্মা সেতুর টোল কোন যানবাহনে কত টাকা এই সম্পর্কে আপনার কম মতামত থাকলে আমাদের কমেন্ট করে জানান।

বন্ধুরা আমাদের এই ওয়েবসাইটে আমরা সর্বদা চেষ্টা করি আমাদের ভিজিটরদের সঠিক তথ্য প্রদান করতে। 

আপনি যদি বাংলায় বিভিন্ন তথ্য ভাণ্ডার সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান নিতে চান তবে রেগুলার আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট। 

ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Leave a Comment

six − 5 =