বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয়? | কেন বুকে ব্যাথা বাড়তে পারে

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয় সেই সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকে গুগল সার্চ করে থাকেন। মানুষের নানান সময় নানান দিক থেকে অতিরিক্ত পরিশ্রমের কারণে স্বাভাবিকভাবেই বুকে ব্যথা হতে পারে।

সে ক্ষেত্রে যদি ব্যথাটি গুরুতর হওয়ায় এবং অসহনীয় হয় তাহলে অবশ্যই খুব দ্রুত বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত। তবে যদি ব্যথাটি আপনার সহনীয় পর্যায়ে থাকে সে ক্ষেত্রে ঘরোয়া উপায়ে আপনারা ব্যথা দূর করার জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করতে পারেন।

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করব বুকে যদি ব্যথা হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনারা কি করতে পারেন সেই সম্পর্কে।

বুকে ব্যাথা হলে করনীয়

বুকে ব্যাথা হলে করনীয়
বুকে ব্যাথা হলে করনীয়

যদিও আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কারণে বুকে ব্যথা অনুভব করে থাকি।

কিন্তু পরিশ্রম এর কাজ করার পর অনেকেই বুকের ব্যথা অনুভব করতে থাকেন।

ব্যথা কখনো তীব্র আবার কখনো হালকা হিসেবে দেখা দিতে পারে।

এই অবস্থায় অনেকেই এই ব্যথাকে গুরুত্ব প্রদান করে না। কিন্তু আপনি কি জানেন এটি আপনার জন্য একটি বড় বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

এই ধরনের বুকের ব্যথার কারণ ও উপসর্গ নিয়ে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা বিভিন্ন ভাবে নিজেদের মতামত পোষণ করেছেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে পরিশ্রমের সময় অর্থাৎ যেকোন ভারী কাজ কিংবা উদাহরণস্বরূপ সিঁড়ি দিয়ে উঠার সময়, পাহাড়ে ওঠার সময় এসকল কাজগুলো করার সময় বুকে ব্যথা অনুভব হতে পারে।

এছাড়াও দৌড়ে বাসে উঠার সময়, তাড়াহুড়া করে কোন কাজ করার সময়, বাজারের ব্যাগ হাতে নিয়ে হাঁটার সময়, যে কোনো ভারী জিনিস তোলার সময়, অত্যাধিক উত্তেজনা শরীরের মাঝে সৃষ্টি হলে, খাবার খাওয়ার পর ভরাপেটে হাঁটলে বুকে ব্যথা বা চাপ অনুভব হতে পারে।

আপনি যখন পরিশ্রম করছেন তখন হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে ব্লক থাকলে বা রক্তপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হলে বুকে ব্যথা হতে পারে।

মূলত হৃদপিন্ডের মাঝে করোনারি রক্তনালীতে থাকলে বা রক্তনালীতে চর্বি জমে রক্তনালী সরু হলে সে ক্ষেত্রে পরিশ্রমের সময় অতিরিক্ত রক্ত সরবরাহের প্রয়োজন হয়।

কিন্তু আপনার রক্তনালীতে ব্লক থাকার জন্য রক্ত সরবরাহের ঘাটতি দেখা যায়।

এর ফলে আপনার হৃদপিণ্ডের মাংস পেশিতে অক্সিজেন এবং খাবার অভাব দেখা যায়।

আর ঠিক এই সমস্যার কারণে আপনাদের বুকে ব্যথা হয়ে থাকে।

বুকে ব্যাথার কারন | বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয়

আপনার হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে ব্লক জনিত ব্যথা সাধারণত বুকের মাঝখানে হয়ে থাকে।

কখনো কখনো এটি বাবা সে আবার কখনও কখনও এটি ডানপাশে হতে পারেন।

এ ধরনের ব্যথাগুলো বুকের উপরের দিকে গলার কাছে কিংবা বামহাত দিয়ে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

হৃদপিন্ডের রক্তনালীর ব্লক জনিত ব্যথা ও উপরের পেটে হতে পারে।

অথবা গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা ভেবে ভুল হতে পারে।

তাছাড়া এ ধরনের ব্যথা শুধু গলার ওপর চাপ চাপ ধরনের হতে পারে, মনে হয় গলায় কিছু আটকে আছে এবং নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসবে।

এ ছাড়া হৃদপিণ্ডের ব্লকজনিত ব্যথা পিঠের পেছনে হতে পারে, ডান হাত বা বামহাতেও হতে পারে।

আরও পড়ুনঃ

ই ক্যাপ কিসের ঔষধ?

ডক্সিসাইক্লিন কিসের ঔষধ?

zimax 500 কিসের ঔষধ?

কী সমস্যা হতে পারে | বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয়

বুকে ব্যাথার কারন
বুকে ব্যাথার কারন

আপনার যদি হৃদপিন্ডের ব্লক জনিত ব্যথা হয় তাহলে সেই ক্ষেত্রে গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা মনে করে ভুল করবেন না।

এটি আপনার জন্য খুবই ভয়ঙ্কর বিপদ ডেকে আনতে পারে।

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে উপরের পেটে ব্যথা হলে তার রবি নিজে অথবা অন্যকোন গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা মনে করে অ্যান্টাসিড গ্যাস্ট্রিকের ট্যাবলেট খেয়ে বসে থাকে।

এটি আপনার জন্য খুবই মারাত্মক একটি সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে। 

এখন একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন হচ্ছে পেটে ব্যথা গ্যাস্ট্রিকের জন্য নাকি রক্তনালী ব্লগের জন্য তা কিভাবে বুঝবেন?

আপনার গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা মূলত বহুদিন ধরে মাঝে মাঝে হয়ে থাকে।

কিন্তু অপরদিকে হার্টের ব্লকের কারণে হার্ট অ্যাটাক হলে উপরের পেটের ব্যথা প্রথমবারের জন্য বা নতুন ধরনের ব্যাথা অনুভব হলে।

এর সঙ্গে যদি প্রচুর ঘাম হয় অথবা বমি বমি ভাব হয় তবে তা হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।  

পেটে ব্যথা হার্ট অ্যাটাকের কারণে হলে কী করা উচিত

কোন রোগীর যদি কখনো পেটে ব্যথা না হয় তাহলে হঠাৎ করে কোনদিন পেটে ব্যথা হলে এর পাশাপাশি যদি শরীরের ঘাম বা বমি বমি ভাব হয় সে ক্ষেত্রে হৃদপিন্ডের ব্লক জনিত সমস্যা হতে পারে।

সে ক্ষেত্রে আপনারা খুব শীঘ্রই নিকটস্থ হাসপাতাল কিংবা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ইসিজি রক্ত পরীক্ষা যেমন কার্ডিয়াক Troponin-i পরীক্ষাটি করে নেয়া দরকার।  

হৃদপিণ্ডের রক্তনালিতে ব্লকজনিত বুকে ব্যথার বৈশিষ্ট কী

হৃদপিণ্ডের রক্তনালিতে ব্লকজনিত বুকে ব্যথা সাধারণত বুকের মাঝখানে হয়।

পরিশ্রম করলে বাড়ে, বিশ্রাম নিলে কমে, নাইট্রেট জাতীয় ওষুধ জিহ্বার নিচে দিলে বা জিহ্বার নিচে স্প্রে করলে কমে।

বুকের ব্যথা বাম হাতের ভেতরের দিক দিয়ে নিচের দিকে নামে, বুকে ব্যথার সঙ্গে সঙ্গে অতিরিক্ত ঘাম হতে পারে।

করণীয়

পরিশ্রমের সময় বুকে ব্যথা হলে তা হৃদপিণ্ডের রক্তনালিতে ব্লকজনিত কারণে হতে পারে বিধায় অতিসত্বর হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।

ইসিজি, ইকোকার্ডিওগ্রাম, ইটিটি এবং অন্য পরীক্ষা যেমন- করোনারী এনজিওগ্রাম করতে পারেন।

হৃদপিণ্ডের রক্তনালিতে ব্লকজনিত কারণে বুকে ব্যথা হলে ইসিজি স্বাভাবিক থাকতে পারে।

আরও পড়ুনঃ

পায়খানার সাথে রক্ত পড়া কিসের লক্ষণ?

ঘন ঘন সর্দি লাগা কিসের লক্ষণ?

ঘুমের মধ্যে ঝাকুনি কিসের লক্ষণ?

বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয় FAQS

পরিশ্রমের সময় বুকে ব্যথা হলে তা হৃদপিণ্ডের রক্তনালিতে ব্লকজনিত কারণে হতে পারে বিধায় অতিসত্বর হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।

ইসিজি, ইকোকার্ডিওগ্রাম, ইটিটি এবং অন্য পরীক্ষা যেমন- করোনারী এনজিওগ্রাম করতে পারেন।

উপসংহার 

সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ বুকে ব্যাথা হলে কি করনীয় সেই সম্পর্কে জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগলের মাধ্যমে সার্চ করেছিলেন।

আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদেরকে এই সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা প্রদান করা হয়েছে।

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভাল লেগেছে এবং আত্মার আজকের এই আর্টিকেল থেকে বুকে ব্যথা হলে প্রাথমিক করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

আপনাদের যে আজকের এই আর্টিকেল সংক্রান্ত কোনো প্রশ্ন বা মতামত থাকে তাহলে সেটি আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন।

আপনারা যারা অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা আয় করতে ইচ্ছুক তাদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে সংক্রান্ত আর্টিকেল রয়েছে।

আপনারা চাইলে আপনাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন এবং আমাদের ফেসবুক পেইজে ফলো করে রাখতে পারেন।

Leave a Comment

18 + fourteen =