রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয়? আপনি জানেন কি!

একজন সচেতন বাঙালি হিসেবে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয় এই সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান থাকা জরুরি। কেননা রাষ্ট্রভাষা বাংলা অর্জন করতে বাঙ্গালীদের লড়াই করতে হয়েছে। রাষ্ট্রভাষার জন্য লড়াই করে নিজের জীবন পর্যন্ত দিয়েছেন অকুতোভয় বীর বাঙালিরা। 

তাই রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই বলে সংগ্রাম কখন থেকে শুরু হয়েছিল, রাষ্ট্রভাষা অর্জনের লক্ষ্যে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কিভাবে কাজ করেছিল এবং কত সালে এই পরিষদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এই সকল বিষয়গুলো সকল বাঙালির জানা উচিত।

বিশেষ করে সমাজে এমন কিছু লোক রয়েছে যারা বর্তমানে মাতৃভাষা বাংলাকে ত্যাগ করে অযথা অকারনে অন্যান্য ভাষায় কথা বলতে গিয়ে মাতৃভাষার অবমাননা করছেন, তাদের জানা উচিত মাতৃভাষার জন্য বাঙালিরা কি ধরনের আত্মত্যাগ করেছিলেন।

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয়? 

সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয় কত সালে
সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয় কত সালে

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয় ১৯৪৭ সালের ১৯৪৭ সালের ১ অক্টোবর। স্বৈরাচারী পাকিস্তানী সরকারের কাছ থেকে মাতৃভাষা বাংলা আদায়ের লক্ষ্যে সেই সময়ে বাঙালি রাজনীতিবিদ, ছাত্র এবং বুদ্ধিজীবীদের সমন্বয়ে রাষ্ট্রভাষা বাংলা সংগ্রাম পরিষদ প্রতিষ্ঠা করা হয়। 

মূলত রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই এ দাবি আদায়ের লক্ষ্যে এই সংগ্রাম পরিষদ বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠনের উদ্যোগ নেন কে? 

তৎকালীন তমদ্দুন মজলিস প্রথম রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন। ১৯৪৭ সালের ডিসেম্বর মাসে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। 

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের প্রথম প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক ছিলেন নুরুল হক ভূঁইয়া।

এই পরিষদ গঠনের আরো যারা প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে কাজ করেছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন-

  • শামসুল আলম 
  • আবুল খায়ের 
  • আবদুল ওয়াহেদ চৌধুরী 
  • অলি আহাদ 

পরবর্তীতে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কমিটিকে আরো সম্প্রসারণ করা হয় এবং আরও ব্যক্তিবর্গকে কমিটিতে যুক্ত করা হয়। 

তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন মোহাম্মদ তোয়াহা এবং সৈয়দ নজরুল ইসলাম।

তবে প্রতিষ্ঠাতা আহব্বায়ক ভূঁইয়ার তত্ত্বাবধানে এই সংগ্রাম পরিষদ প্রথমে গোপনে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল।

তবে 1১৯৪৮ সালের প্রথম প্রান্তিকে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও কলা অনুষদের সাথে বৈঠকে সারাদেশে বাংলাকে আরো বেশী গুরুত্ব দেয়ার কথা আলোচনা করেন।

এবং ঐ বৈঠকে বাংলা ভাষাকে শিক্ষার প্রাথমিক মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করার প্রস্তাব করা হয়।  

পরবর্তীতে ১৯৪৮ সালে ২ মার্চ ফজলুল হক হলে কামরুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে তমদ্দুন মজলিস ও মুসলিম ছাত্রসমাজের মধ্যে একটি যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। ঐ সভায় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ সম্প্রসারণ করে প্রথম সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয়। 

এরপর “রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই” দাবি আদায়ে যতগুলো সংগ্রাম রাজপথে নেমেছে, ততগুলো সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছে সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ। 

তবে সার্বিক দিক দিয়ে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠনের ফলেই বাংলা ভাষা আন্দোলনের উৎপত্তি হয়েছে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন। 

তাই আমরা আজ মাতৃভাষা বাংলায় গর্ব করে বলতে পারি নিজ মনের আবেগ গুলি।

রক্তের বিনিময়ে অর্জিত এই ভাষাকে কেউ ছোট করে দেখবেন না বলে সকলের কাছে আকুল আবেদন। 

আরও পড়ুনঃ

জরিমানা মওকুফের জন্য আবেদন

অসুস্থতার জন্য অফিসে ছুটির আবেদন 

পরীক্ষার জন্য অফিসে ছুটির আবেদন

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয় FAQS

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয়?

তৎকালীন পাকিস্তানী সরকারের কাছে মায়ের ভাষা বাংলা চাই, এই দাবী আদায়ে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ ১৯৪৭ সালের ১ অক্টোবর গঠিত হয়।

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছিল কে?

ঐতিহাসিক তমদ্দুন মজলিস ১৯৪৭ সালের ডিসেম্বরে প্রথম রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের প্রথম প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক কে?

রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের প্রথম প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক ছিলেন নূরুল হক ভূঁইয়া।

সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয় কত সালে?

সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠিত হয় ১৯৪৮ সালে ২ মার্চ।

উপসংহার,

আশাকরি রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয় এই সম্পর্কে আপনি বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। 

সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ বাংলা ভাষার জন্য রক্ত দিয়েছে এবং বাংলা ভাষাকে বিশ্ব দরবারে সম্মানিত করেছে।

কমপক্ষে ভাষা শহীদদের সম্মান করে হলেও মায়ের ভাষা বাংলা কে যথেষ্ট নম্র-ভদ্র ও শ্রদ্ধার সহিত স্মরণ করা উচিত। কারণ বাংলা ভাষায় আদায়ে তার রক্ত দিয়েছে।

রাষ্ট্রভাষা বাংলা সম্পর্কে আরো জানতে চাইলে আমাদের একটি কমেন্ট করে জানান।

এবং এছাড়া এই পোষ্ট সম্পর্কে আপনার মন্তব্য থাকলে অবশ্যই আমাদের ফেসবুক পেজে অথবা কমেন্ট বক্সে একটি সুন্দর মন্তব্য করুন। 

আরও পড়ুনঃ

অফিসিয়াল চিঠি লেখার নিয়ম

মেম্বার হওয়ার যোগ্যতা বয়স

অনলাইনে ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন

Leave a Comment

four × three =