পৃথিবীর বৃহত্তম ব দ্বীপ কোনটি? | ব দ্বীপ কাকে বলে

প্রিয় পাঠকগণ পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপ কোনটি? এ বিষয়ে কি আপনারা জানেন। আজকের এই আর্টিকেলে আলোচনা করতে চলেছি পৃথিবীর বৃহত্তম অথবা সবচেয়ে বড় ব দ্বীপ কোনটি কে বলা হয়। আপনাদের মধ্যে অনেকেই এ বিষয়ে জানার জন্য আমাদের কাছে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এবং এছাড়াও আরো বিভিন্ন সময়ে নানান পরীক্ষায় আমরা এই প্রশ্নটিই দেখতে পাই। অনেক সময় বিসিএস পরীক্ষা তো এই প্রশ্নটিই আসার সম্ভাবনা থাকে।

যার কারণে আজকের এই আর্টিকেলে আমরা পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ব দ্বীপ সম্পর্কে জানবো এবং সঠিক উত্তরটি জানার চেষ্টা করব। আমাদের মধ্যে অনেকেই নানান ধরনের উত্তর প্রদান করে থাকে। কিন্তু আজকের এই আর্টিকেলে আপনার সম্পূর্ণ সঠিক তথ্যটি পাবেন।

পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপের নাম কি 

পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপের নাম কি
পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপের নাম কি

আমরা পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম ব-দ্বীপ কোনটি সেটি জানার আগে আমাদের ব-দ্বীপ কাকে বলে এই সম্পর্কে জেনে নেয়ার প্রয়োজনীয়তা আছে।

ব-দ্বীপ কে ইংরেজিতে ডেল্টা বলা হয়ে থাকে।

এই ডেল্টা একটি গ্রিক ভাষার বর্ণ যেটিকে অনেকটা ত্রিভুজের আকৃতির মত ভাবা হয়।

আবার আমরা সকলে একটি বিষয় খেয়াল করবো যে বাংলা ভাষার “ব” বর্ণ টি অনেকটাই ত্রিভুজাকৃতির।

অর্থাৎ ব-দ্বীপ বলতে এমন একটি ভূখণ্ডকে বুঝায় জানো দিবা জলসীমা দ্বারা ভূখণ্ড থেকে আলাদা এবং এটি দেখতে অনেকটা ত্রিভুজ আকার অথবা ডেল্টার মত।

আমরা একটি বিষয় খেয়াল করলে দেখতে পাবো যে ভারত উপমহাদেশে বিশ্বের উল্লেখযোগ্য বৃহত্তর নদীগুলো প্রবাহিত হয়। 

যার কারণে ভারত বর্ষ এবং বাংলাদেশ ব-দ্বীপ সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি ছিল। 

প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশের খুলনা-যশোর-ঢাকা অঞ্চল একটি ব-দ্বীপ। 

পদ্মা ও মেঘনা নদী এই অঞ্চলটিকে “ব” আকৃতিতে মূল ভূখণ্ড থেকে আলাদা করেছে। যার কারণে এই অংশটিকে ব-দ্বীপ বলা হয়।

আরও পড়ুনঃ

কোনটির পরিবাহকত্ব বেশি?

ধর্মীয় রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান কোনটি?

বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা কোনটি?

পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপ কোনটি 

বর্তমান পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম ব-দ্বীপ হচ্ছে বাংলাদেশ। তবে এক্ষেত্রে পুরো বাংলাদেশে কিন্তু ব-দ্বীপ নয়। 

এখানে আগেই উল্লেখ করা হয়েছে যে খুলনা বরিশাল সুন্দরবন এ সকল অঞ্চলগুলোকে ব-দ্বীপ হিসেবে ধরা হয়ে থাকে।

এই অঞ্চলগুলোকে পদ্মা এবং যমুনা নদী মূল ভূখন্ড থেকে আলাদা করে রেখেছে। আমরা এ বিষয়ে অবগত যে একটি দ্বীপ হচ্ছে এমন এক ভূখণ্ড যার চারদিকে পানি দ্বারা আবদ্ধ থাকবে।

আপনারা যদি একটু ভালভাবে লক্ষ করেন তাহলে বুঝতে পারবেন যে দ্বীপের সাথে একটি ব-দ্বীপ এর মূল পার্থক্য হচ্ছে যে দ্বীপের ক্ষেত্রে সাধারণত দেখা যায় এই চারদিকে সমুদ্র অবস্থিত কিন্তু ব-দ্বীপ এর ক্ষেত্রে সমুদ্র ছাড়া নদী ও থাকতে পারে।

তবে আগে উল্লেখ করা হয়েছে যে, বদ্বীপ এর আকৃতি ত্রিভুজাকৃতি হয়ে থাকবে।

আপনারা অনেকটা যাকে বাংলা অক্ষরের “ব” বা গ্রিক শব্দ ডেল্টার মত বলতে পারেন।

ঠিক এই কারণে এই বিশেষ দ্বীপগুলোকে ব-দ্বীপ বা ডেল্টা বলা হয়।

আমাদের দেশের মানচিত্র যদি ভালো করে লক্ষ্য করে থাকেন তাহলে সহজেই একটি ত্রিভুজাকৃতির অংশ দেখতে পারবেন।

এই ভূখণ্ডটিই হচ্ছে একটি ব-দ্বীপ। আশা করছি, কেন বাংলাদেশকে ব-দ্বীপ বলা হয়ে থাকে সেটা ইতিমধ্যে বুঝে ফেলেছেন।

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় পরাজয়গুলো কি?

ন্যাটোর সদস্য দেশ কয়টি কি কি? 

বেতন মওকুফের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম?

পৃথিবীর বৃহত্তম ব দ্বীপ কোনটি FAQS

পৃথিবীর বৃহত্তম ব দ্বীপ কোনটি?

পুরো পৃথিবীর বৃহত্তম ব দ্বীপ হচ্ছে বাংলাদেশ।

উপসংহার 

প্রিয় পাঠকবৃন্দ আজকের এই আর্টিকেল এ পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপ কোনটি সে সম্পর্কে আপনাদেরকে জানানোর জন্য গঠন করা হয়েছে। 

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভাল লেগেছে এবং আপনারা আজকের এই আর্টিকেল থেকে পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। 

আবার অনেকেই হয়ত বাংলাদেশের নামটি শুনে অবাক হয়েছেন। 

ভবিষ্যতে যদি কখনো আপনাদের সামনে এমন প্রশ্ন আসে যে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ব-দ্বীপ কোনটি।

আশা করছি তখন খুব সহজেই নিজের দেশটির নাম ধরে বলে দিতে পারবেন।

আপনাদের যদি এ বিষয়ে কোন প্রশ্ন অথবা মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিংফেসবুক মার্কেটিংফেসবুক পেজ থেকে টাকা আয়ব্লগিং এর মত অনলাইন প্লাটফর্ম গুলোতে কাজ করতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত আর্টিকেলগুলো পড়ুন।

আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটের এসকল আর্টিকেলগুলো থেকে অনলাইন ভিত্তিক কাজ সম্পর্কিত বিস্তারিত ধারণা পেয়ে যাবেন।

একই সাথে আমাদের রয়েছে সংক্রান্ত সকল আপডেট গুলো সবার আগে পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেইজে

Leave a Comment

2 × 5 =