পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি?

প্রিয় পাঠকগণ পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি এটি জানার জন্য আপনারা অনেকেই গুগল সার্চ করে থাকেন। আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে পৃথিবীর সবচেয়ে দেশের সাথে পরিচয় করিয়ে দিব।

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগবে। এবং পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ সম্পর্কে আপনাদের সকল প্রশ্নের উত্তর আপনারা পেয়ে যাবেন।

আধুনিক ইতিহাসের জনক কে?

পৃথিবীতে অনেক দেশ রয়েছে। একেক দেশে একেক কারণে বিখ্যাত হিসেবে বিবেচনা করা হয়।  আজকে আমরা পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ সম্পর্কে সকল তথ্য জানার চেষ্টা করব।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা
ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ হলো ভ্যাটিকান সিটি। ইতালির রোম শহরে অবস্থিত একটি স্বাধীন দেশ হল ভ্যাটিকান সিটি।

ধর্মভিত্তিক রাষ্ট্র পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ হিসেবে পৃথিবীর বুকে পরিচিত। ভ্যাটিকান সিটি একটি নগররাষ্ট্র হলেও এর আয়তন একটি শহরের চেয়েও ছোট।

এই ভ্যাটিকানসিটি মূলত রোমান ক্যাথলিক গির্জার সদর দপ্তর। 

এ শহরের প্রধান হলেন কোক। এ দেশটি নামের শহর কাজে দেশ হলেও আয়তন মাত্র ১১০ একর। 

যদি কিলোমিটারের হিসাব করা হয় তাহলে এ শহরটি আধা বর্গকিলোমিটারও নয়।

এটি এমন একটি শহর যা আর একটি দেশের রাজধানীর মাঝখানে অবস্থিত। ইতালির রাজধানী রোমের ভ্যাটিকান পাহাড়ের উপরে ভ্যাটিকান সিটি অবস্থিত।

টিবের নদীর পশ্চিমে একটি প্রায় ত্রিভুজ আকৃতির এলাকা হলো ভ্যাটিকান সিটি। ভ্যাটিক্যান সিটি কে সার্বভৌমত্ব অঞ্চল বলা হয়ে থাকে।

মধ্যযুগ এবং রেনেসাঁর সময় নির্মিত প্রাচীর ধারা ভ্যাটিকান সিটি রোম শহর থেকে আলাদা হয়েছিল।

প্রাচীর ঘেরা এই এলাকার মধ্যে কিছু দালাল, বাগান এবং শহরের রাস্তার চত্বর রয়েছে। ভ্যাটিকান সিটির সবচেয়ে বড় দালান বা ভবন হল সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা রোমান ক্যাথলিকদের এটি প্রধান গির্জা।

ভ্যাটিকান সিটি মূলত এক ধরনের ছিট মহল।

ক্রেতাদের এই প্রধান গির্জাটি বেশ কয়েক শতাব্দী ধরে ইতালির বেশ কিছু অঞ্চল স্থাপন করেছে। সেসময় সকল অঞ্চলের প্রধান ছিলেন পোপ।

সকল পোপয় রাষ্ট্রের মধ্যে ভ্যাটিকান সিটি একমাত্র টিকে থাকা সর্বশেষ রাষ্ট্র।

এরপর ভ্যাটিক্যান অর্থাৎ পোপইয় অঞ্চল গুলোর সাথে ইতালির নানা বিতর্কের সৃষ্টি হয়। 

পরবর্তীতে ১৯২৯ সালে স্বাক্ষরিত হয় লাতেরান চুক্তি।

পোপরা ক্ষতিপূরণ হিসেবে তাদের সকল রাজ্য ইতালি হাতে তুলে দেয় তবে ভ্যাটিকান সিটির ছাড়া।

তারপর থেকেই একটি স্বাধীন এবং সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে এটি প্রকাশিত হয়।

এ শহরের অপর নাম হল Hely see।

আরও পড়ুনঃ

মানুষ কবিতার মূলভাব

ফেসবুক মার্কেটিং কি?

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা এবং অন্যান্য তথ্য

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা মাত্র ৮৪০ জন ।

এখানকার বাসিন্দারা সবচেয়ে বেশি যাজক এবং সুইচ প্রহরী।

এখানকার বেশিরভাগ জনগণই আসেন প্রাচীরের বাইরের ইতালি থেকে।

অর্থাৎ, তারা রোজ রোজ এক দেশ থেকে আরেক দেশে কাজ করতে যান।

মূলত সেই ছোট্ট দেশে কোন শিল্প কর্ম নেই আবার কোন কৃষি জমি ও নেই। দেশটির মোট আয় হল স্মারক বিক্রি এবং অনুদান থেকে।

আর সে দেশের আরো কিছু আয় রয়েছে পর্যটন খাত থেকে। 

অর্থাৎ, যারা সে দেশটি দেখতে যায় সেখানে তাদেরকে প্রবেশ মূল্য প্রদান করতে হয়।

আরও পড়ুনঃ

মেটা অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান গুলো কি কি?

বাংলাদেশের সরকারি ব্যাংক কয়টি?

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি FAQS

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি?

বর্তমানে পৃথিবীতে সবচেয়ে ছোট দেশ হিসেবে ইতালির রোম শহরে অবস্থিত ভ্যাটিকান সিটি পরিচিত।

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা কতজন?

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা মোট ৮৪০ জন।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ ভ্যাটিকান সিটির আয়তন কত?

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ ভ্যাটিকান সিটির আয়তন মাত্র ১১০ একর। যদি কিলোমিটারের হিসাব করা হয় তাহলে এ শহরটি আধা বর্গকিলোমিটারও নয়। 

উপসংহার

প্রিয় পাঠকগণ আপনারা আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি সে সম্পর্কে জানলেন।

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভাল লেগেছে এবং একটি নতুন দেশের সাথে আপনারা পরিচিত হয়েছেন।

মূলত ভ্যাটিকান সিটি সুন্দর পর্যটন স্পট হিসেবে পৃথিবীর বুকে খুবই নামকরা জায়গা।

বৌদ্ধ ধর্মের সবচেয়ে বেশি ওই দেশে গিয়ে থাকে।

আপনাদের যদি এই দেশ সম্পর্কিত কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে অবশ্যই জানাবেন।

আপনারা যদি অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা আয় করতে চান এবং নানান ধরনের শিক্ষামূলক আর্টিকেল পড়তে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

আমাদের ওয়েব সাইট সম্পর্কিত সকল তথ্য পেতে চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজটি। 

Leave a Comment

five × two =