ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড | কিভাবে ছবি এডিট করতে হয়

ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড কিভাবে সুন্দর করবেন সে বিষয় আজ আমরা আলোচনা করবো। ছবি তুলতে আমরা সকলেই কম বেশি পছন্দ করি।

আর ছবিতে নিজেকে সুন্দর দেখাক এটা কে না চায় বলুন। কিন্তু আমাদের মধ্যে অনেক ছবি সুন্দর এডিট করতে পারি না।

এ ছাড়াও আমরা দেখি যে আমাদের আশেপাশে বন্ধুরা সুন্দর সুন্দর  ছবি এডিট করে তাদের ফেসবুক প্রোপাইলে যোগ করছে।

তখন আমরা চিন্তা করি যদি আমরাও এমন এডিট করতে পারতাম।

যদি আপনার হাতে একটি স্মার্ট ফোন থাকে তাহলে আজকের এই আর্টিকেল পড়ে আপনারাও ছবি এডিট করতে পারবেন।

ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট | ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড

ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট
ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট

মূলত আমরা ছবি তুললে সে ছবির মূল অংশ হলো আপনি এবং আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড।

যদি আপনার স্টাইল এবং সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে ব্যাকগ্রাউন্ড ঠিক করলেই আপনি একটি পারফেক্ট ছবি পাবেন।

এখন প্রশ্ন হলো কিভাবে কিংবা কিসের মাধ্যমে আপনারা আপনাদের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করবেন। সে বিষয় আমাদের কাছে আপনার উওরটি রয়েছে। 

আমাদের ইন্টারনেট জগতে এমন অনেক ফ্রি অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই ছবি এডিট করতে পারবেন।

আজকে আমি আপনাদের এমন কিছু অ্যাপ এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো যার মাধ্যমে আপনারা আপনাদের ছবিকে করতে পারবেন খুবই সুন্দর।

অ্যাপ এর সাথে পরিচয় এর পাশাপাশি কোন অ্যাপ দিয়ে কিভাবে এডিট করবেন সে বিষয়ে আপনাদের বলে দেয়া হবে।

ছবি এডিট করার অ্যাপ | ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড

ছবি এডিট করার জন্য অনেক অ্যাপ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু অ্যাপ এর সঙ্গে আজ আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেবো।

১/ Snapseed

২/ Picsart

৩/ Lightroom

এই তিনটি অ্যাপ ছাড়াও গুগল প্লে স্টোরে আপনারা আরও অনেক অ্যাপ পাবেন। তবে আমরা আপনাকে এই গুলো ব্যবহার করার সাজেস্ট করছি।

এখন কিভাবে এই অ্যাপ ব্যবহার করে ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড ঠিক করবেন সেই টিপস গুলো শিখবো।

তাহলে চলুন ধাপে ধাপে আমরা এই অ্যাপ গুলোর ব্যবহার শিখে নিই।

আরও পড়ুনঃ

রাউটারের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম জানুন

ভারতে প্রথম মুদ্রা প্রবর্তন করেন কে?

How to add bkash priyo number | বিকাশ প্রিয় নাম্বার সেট করার নিয়ম

Snapseed দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম | ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড

Snapseed দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম
Snapseed দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম

এই অ্যাপ এর মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই আপনার ছবি এডিট করতে পারবেন।

কিভাবে আপনার ছবি এডিট করবেন এখন আমরা সেগুলোই শিখবো।

ধাপ-১ঃ Snapseed ডাউনলোড

আপনার মোবাইলে গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন।

আপনি যদি চান তাহলে আমাদের নিচে দেয়া অ্যাপ লিংক থেকেও ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ধাপ-২ঃ Photo choose

অ্যাপটি ডাউনলোড করা হয়ে গেলে আপনার ফোন থেকে অ্যাপটি ওপেন করে নিন।

প্লাস বাটনে ক্লিক করে আপনার গ্যালারিতে গিয়ে যে ছবি এডিট করতে চান সেটি সিলেক্ট করুন।

অথবা আপনার মোবাইলের গ্যালারিতে গিয়ে যে ছবি এডিট করবেন সেটি শেয়ার করে Snapseed এ দিয়ে দিন। তাহলে সেখানে আপনার ছবিটি চলে আসবে।

ধাপ-৩ঃ

এবার আপনি আপনার ছবির নিচে অনেক গুলো অপশন দেখতে পাবেন। সেখান থেকে আপনার মন মত কিংবা যেটি সুন্দর লাগে সেটি নির্বাচন করুন।

অপশন গুলোর মধ্যে থাকতে পারে Smooth, pop, portrait ইত্যাদি আরো অনেক কিছু।

ধাপ-৪ঃ

এ পর্যায়ে আমরা আমাদের মূল কাজে চলে যাবো।আমাদের মূল কাজটি হলো  আমাদের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড বদল করা। কিংবা ব্যাকগ্রাউন্ডের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা।

এখন ব্যাকগ্রাউন্ডের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য আপনাকে সর্বপ্রথম TOOLS অপশনে যেতে হবে। এই অপশনটি আপনি অ্যাপসের নিচে একদম মাঝখানে পেয়ে যাবেন।

ধাপ-৫ঃ Background choose

এই অপশনে ক্লিক করার পর আপনার সামনে অনেকগুলো অপশন দেখানো হবে।

সেই অপশন গুলো থেকে আপনার সব অপশন প্রয়োজন নেই আমরা যে সকল উপায়ে আপনাদেরকে বলবো সে সকল উপায়ে আপনি আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড এর পরিবর্তন অথবা ব্যাকগ্রাউন্ড সুন্দর করে নিতে পারবেন।

ধাপ-৬ঃ

সর্বপ্রথম আপনারা আপনার ছবিটি সুন্দর করবার জন্য portrait অপশনে ক্লিক করুন।  প্রটেক্ট অপশনে ক্লিক করার পর আপনাদের সামনে অনেকগুলো অপশন দেখানো হবে।

সেখান থেকে আপনারা smooth 2 অপশন টি ক্লিক করে দিবেন।

আপনারা সুন্দরভাবে পরিলক্ষিত করলে দেখতে পাবেন যে আগের চেয়ে আপনার ছবিটি অনেক সুন্দর হয়ে গেছে।

ধাপ-৭ঃ healing

এখন আপনারা আপনাদের ছবির কোন জায়গায় যদি স্পট কিংবা কোন ধরনের কিছু থাকে।  অথবা আপনার মুখে যদি কোন ধরনের স্পোর্ট কিংবা কালো দাগ থাকে সেগুলো সরাবার জন্য আপনি healing অপশনে ক্লিক করে দিবেন।

তারপর আপনার যেখানে স্পোর্ট কিংবা যেখানে আপনার সরানো দরকার সে সকল জায়গা জুম করে তারপর হালকা করে মোবাইলের উপর ক্লিক করবেন।

উপর থেকে কিংবা একেবারে ঝুম না করে কখনোই সেখানে ক্লিক করবেন না কেননা তাহলে আপনার ছবিটি নষ্ট হয়ে যাবে।

ধাপ-৮ঃ

তারপরে আপনি যদি আপনার ছবি কোন ধরনের ফিল্টার ইউজ করতে চান তাহলে আপনারা vintage অপশন এ ক্লিক করে ভিতরে চলে যাবেন।

সেখানে গেলে আপনারা অনেক ধরনের ফিল্টার এবং ছবি সাদা কালো  ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ঠিক করার সকল কিছু অপশন পেয়ে যাবেন।

এবার আপনি আপনার ইচ্ছামত ছবিটি সাজিয়ে নিতে পারেন কিংবা ছবিতে ফিল্টার সেট করতে পারে।

সুপ্রিয় পাঠক আমরা snapseed এর মাধ্যমে কিভাবে আপনারা আপনাদের ছবিটিকে সুন্দর করে তুলবেন।

এবং ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড গুলো কিভাবে খুব সহজে পেয়ে যাবেন সে সম্পর্কে আমরা জানিয়েছি। এই অ্যাপসটির মাধ্যমে আরো অনেক উপায় ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ছবি সুন্দর করা যায়।

আপনারা যদি এই অ্যাপস এর সকল বিষয় জানতে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানান। আমরা আপনাদেরকে শুধুমাত্র এই অ্যাপস এর কাজ সম্পর্কে একটি আর্টিকেল দেয়ার চেষ্টা করব।

আরও পড়ুনঃ

প্রত্যাশিত আয় তত্ত্ব কে প্রবর্তন করেন । প্রত্যাশিত আয় তত্ত্ব কি

Nogod Balance Check Code | How To Check Nagad Balance?

Picsart দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম

Picsart দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম
Picsart দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম

এই অ্যাপসটি ও আপনাদের জন্য খুবই কার্যকরী এবং ছবি ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করার জন্য খুবই ভাল একটি অ্যাপস। এই এপ্সটি তে আপনারা কিভাবে আপনার সুন্দর ছবিটি এডিট করবেন এখন আমরা সে-সম্পর্কে ধাপে ধাপে শিখে নিব।

ধাপ-১ঃ

সর্বপ্রথম আপনারা এই এপস টি গুগল প্লে স্টোর থেকে অথবা আমাদের নিচে দেয়া লিঙ্ক থেকে ডাউনলোড করে নিবেন।

ডাউনলোড করার পর সর্ব প্রথম কাজটি হল আপনাকে এই অ্যাপসে আপনার জিমেইল একাউন্ট অথবা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কিংবা যেকোনোভাবে একটি একাউন্ট ক্রিয়েট করতে হবে। অ্যাকাউন্ট করার পর আপনি লগইন করবেন।

ধাপ-২ঃ

আপনারা যখনই এই অ্যাপটি লগইন করার মাধ্যমে ভিতরে ঢুকবেন তখনই আপনাদের সামনে অনেক ধরনের অপশন আসবে।

এই অ্যাপসটি দিয়ে শুধুমাত্র ছবি নয় আপনারা চাইলে আপনাদের ভিডিও এডিটর করতে পারেন।

যাই হোক আমরা যেহেতু এই আর্টিকেলের মাধ্যমে শুধুমাত্র আপনাদেরকে ছবি কিভাবে এডিট করতে হয় সে সম্পর্কে বলছি সে তো কিভাবে ছবি এডিট করবেন সে বিষয়টি আপনাদের সামনে তুলে ধরা যাক।

 প্রিয় পাঠক এখানে আপনাদের যে সকল অপশন দেখানো হচ্ছে সেগুলোর মধ্যে Freestyle, grids, frames এগুলো পেয়ে যাবেন।

এখান থেকে আপনারা যে ধরনের ছবি এডিট করতে চান সে বিষয়টি সিলেক্ট করে নিবেন।

ধাপ-৩ঃ কোয়ালিটি

এছাড়াও এই অ্যাপসে আপনারা নিচে গেলে দেখতে পাবেন যে আপনাদের ফ্রী এডজাস্ট করবার জন্য নানান ধরনের ছবি ছাড়া দিয়ে দিয়েছেন। 

সেখানে আপনারা চাইলে যেকোনো পিকচারের কোয়ালিটিতে আপনারা কোয়ালিটি করে নিতে পারেন।

ধাপ-৪ঃ

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যারা কালারফুল ব্যাকগ্রাউন্ড দিতে পছন্দ করে।

এই অ্যাপসটির মাধ্যমে আপনারা কালারফুল ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

তার জন্য একবারে নিচে যে অপশনটি রয়েছে সেখানে ক্লিক করে আপনারা যে কোন ব্যাকগ্রাউন্ড চেঞ্জ করতে পারেন আপনার ইচ্ছামত।

আপনি চাইলে সেখান থেকে কাস্টমাইজ করে আপনার পছন্দের কালার টি বেছে নিতে পারেন।

এই অ্যাপটি থেকে আপনারা খুব সহজেই আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করতে পারবেন। আমরা উপরে যে টিউটিরিয়াল দিয়েছি সে অনুযায়ী যদি আপনি কাজ করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার ছবিটি খুবই সুন্দর এবং আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে।

আমাদের আরও একটি অ্যাপস এর কাজ বাকি রয়েছে সেই অ্যাপস এ কিভাবে কাজ করবেন এখন আমরা সে সম্পর্কে জানব।

Lightroom দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম

Lightroom দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম
Lightroom দিয়ে ছবি এডিট করার নিয়ম

আমরা আপনাদেরকে ইতিমধ্যে আমাদের উপরে দুইটি অ্যাপস এর কথা খুব সুন্দর এবং সহজ ভাবে তুলে ধরেছি।

আপনারা এই অ্যাপসে কিভাবে আপনার ছবি ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করবেন সে সকল বিষয়ে জানব।

ধাপ-১ঃ Lightroom ডাউনলোড

সর্বপ্রথমে আপনারা গুগল প্লে স্টোর থেকে অথবা আমাদের নিচে দেওয়া লিঙ্ক থেকে এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিবেন।

ডাউনলোড করা হয়ে গেলে আপনি অ্যাপস এর মধ্যে আপনার জি-মেইল অ্যাকাউন্টে লগইন করে নিবেন।

আপনি চাইলে আপনার নতুন একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট খুলে রাখতে পারেন কেননা আপনি যে ছবিটি এডিট করবেন সেসব কিছু তথ্য জিমেইলে থাকবে।

ধাপ-২ঃ Photo choose

আপনারা এই অ্যাপসে লগইন করার মাধ্যমে ভিতরে ঢুকলে All Photo নামক অপশনটি দেখতে পাবেন। আপনার আশে অপশনে ক্লিক করে ভিতরে ঢুকে যাবেন।

সেখানে প্লাস আইকনে ক্লিক করে আপনি চাইলে আপনি যে ছবিটি এডিট করবেন সেই ছবিটি সেখানে এড করতে পারেন।

আবার যদি আপনি চান তাহলে গ্যালারি থেকে শেয়ার অপশনে গিয়ে আপনার এডিট  করতে হবে সেই ছবিটি এই অ্যাপসে শেয়ার করে দিবেন।

ধাপ-৩ঃ

এরপর আপনি আপনার ছবিটি সিলেক্ট করে নিবেন। আপনি যদি আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করতে চান তাহলে নানান ধরনের ফিল্টার ব্যবহার করতে পারেন।

আবার  আপনি যদি আপনার ছবিকে ডিজাইন করতে চান তাও এই অ্যাপস দ্বারা সম্ভব।

ধাপ-৪ঃ

আপনি আপনার ছবি নিচে অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন। সেখানে auto, light, color ইত্যাদি আরো অনেক অপশন রয়েছে।

আপনি সেখান থেকে আপনার ইচ্ছামত কালার রেজুলেশন করে নিতে পারেন।

এছাড়াও আপনি আরো যে অপশন গুলো রয়েছে সেগুলোতে ক্লিক করে আপনার ইচ্ছামত আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ছাড়াও আপনার অবস্থান আপনার সৌন্দর্য সকল কিছু বৃদ্ধি করে নিতে পারেন।

টাকা দিয়ে ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড

বর্তমান সময়ে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা নিজের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করবার জন্য টাকার বিনিময় এডিট করে থাকেন।

আপনারা অনেকেই এই কাজটি করবার জন্য টাকা দিলেও আপনাদের ছবিটি সুন্দর এডিট হয় না।

কিংবা কোনো প্রতারক চক্রের হাতে পড়ে আপনারা আপনাদের এডিট করা ছবি  পান না।

আমার মতে আপনাদের যদি টাকা দিয়ে এডিট করাতে হয় তাহলে মান্থলি অথবা উইক লি যে সকল পেট ফিল্টার গুলো রয়েছে সেগুলো ক্রয় করা উচিত।

এতে করে আপনি নিজের ছবি নিজেই খুব সুন্দর ভাবে এডিট করতে পারবেন।

ছবি এডিট করে টাকা আয়

বর্তমান সময়ে এমন অনেক মানুষই রয়েছেন যারা ছবি তুলতে পছন্দ করেন।

এবং নিজের ছবি এডিট করতে করতে একটি পর্যায়ে খুবই সুন্দর ছবি এডিট করতে পারেন।

এখন আপনি চাচ্ছেন এটা কি আপনার প্রফেশন হিসেবে ব্যবহার করতে।

তাহলে ছবির যেসকল সংস্থা রয়েছে আপনারা সেখানে নিজেদের ফরম ফিলাপ করে এ প্রফেশনে যোগ দিতে পারেন।

এতে করে আপনার একটি সংস্থা থাকবে এবং আপনি সকল ধরনের ছবি এডিট করার জন্য আপনার ফি নিতে পারবেন।

ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যাপস লিংক

SnapseedClick Here
PicsartClick Here
LightroomClick Here

আরও পড়ুনঃ

মাউন্ট এভারেস্ট কোথায় অবস্থিত? মাউন্ট এভারেস্ট সম্পর্কে সকল তথ্য জানুন

বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার ঠিকানা ঢাকা, চট্টগ্রাম ফোন নাম্বার

ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড FAQS

কিভাবে ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড সুন্দর করব?

আপনারা আপনাদের ছবি কে কি করে এডিটের মাধ্যমে সুন্দর করে তুলবেন তার জন্য নানান অ্যাপস রয়েছে। গুগল প্লে স্টোর থেকে আপনারা সে গুলো ডাউনলোড করে আমাদের আর্টিকেল এর নিয়ম অনুযায়ী এডিট করলে আপনার ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড সহ পুরো ছবিটিকেই খুবই সুন্দরভাবে সাজিয়ে নিতে পারবেন।

কি কি অ্যাপস এর মাধ্যমে সুন্দর ব্যাকগ্রাউন্ড এডিট করা যায়?

আমরা আমাদের আর্টিকেলে তিনটি অ্যাপস এর কথা উল্লেখ করেছি সেগুলো দিয়ে আপনি আপনার ছবিটি খুব সুন্দর ভাবে এডিট করতে পারবেন। সেগুলো হলো- Snapseed, picsart, lightroom.

উপসংহার

আশা করছি আপনারা যদি আমাদের এই পুরো আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে কিভাবে আপনার ছবি এডিট করার ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করবেন সে সকল বিষয়ে জানতে পেরেছেন। 

আমরা আপনাদের জন্য সকল নিয়ম গুলো খুবই সুন্দর ভাবে উল্লেখ করে দিয়েছি।

তবুও যদি আপনাদের এ বিষয়ে কোন ধরনের প্রশ্ন কিংবা মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

 আমাদের ওয়েব সাইটটিতে প্রতিদিনই নতুন নতুন বিষয়ক আর্টিকেল রয়েছে। যেগুলো থেকে আপনার অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে।

তাই ওয়েবসাইট আপনি ভিজিট করুন। সেই সাথে আমাদের ওয়েবসাইট সংক্রান্ত সকল আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি ফলো করুন।

Leave a Comment

four × 3 =