আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে?

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে আপনি জানেন কি? একুশে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের কি দিবস? কেন ২১শে ফেব্রুয়ারি দিনটি পালন করা হয় জেনে নিন।

আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় ভাষার জন্য রক্ত দিতে হয়েছে এমন জাতীর নাম জানেন আপনি? জানেন কেননা আমাদের মাতৃভাষা বাংলা রাখতে ১৯৫২ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি বাঙ্গালীরা রক্ত দিয়েছেন।

এমনি অর্জিত হয়নি বাংলার রাষ্ট্রভাষা বাংলা। তাই ভাষা বাংলা সম্পর্কে জানতে হলে আপনাকে জানতে হবে ভাষার জন্য যুদ্ধ করা লোকদের এবং যারা মাতৃভাষা বাংলাকে মায়ের ভাষা হিসাবে পেতে কাজ করেছেন তাদের ইতিহাস সম্পর্কে।

কেননা স্বৈরাচারী পশ্চিম পাকিস্তানি সরকার ও শাসকগোষ্ঠীর উর্দু ভাষাকে আমদের মাতৃভাষা করতে উঠেপড়ে লেগেছিল। তাদের সেই লক্ষ্য সফল হতে দেয়নি আমাদের ভাষা সৈনিকেরা।

বাংলাকে মাতৃভাষা হিসাবে অর্জন করার পর ভাষার সন্মানে রচিত হয়েছে “অমর একুশে ফেব্রুয়ারি গানটি”। এই পোস্টে আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে এই সম্পর্কে জানতে পারবেন।

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে? কে লিখেছেন গানটি

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে-সুরকার কে
একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে-সুরকার কে

বাংলা ভাষার স্মরণে সাংবাদিক ও লেখক আবদুল গাফফার চৌধুরী ১৯৫২ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারিতে গানটি রচনা করেন। প্রথমে আবদুল লতিফ গানটি সুরারোপ করেন।

তবে পরবর্তীতে আলতাফ মাহমুদের করা সুরে “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” অধিক জনপ্রিয়তা লাভ করে, ১৯৫৪ সালের প্রভাত ফেরীতে প্রথম গাওয়া হয় আলতাফ মাহমুদের সুরে রাঙানো হয় গানটি এবং এটিই এখন গানটির প্রাতিষ্ঠানিক সুর।

তাই বলা যায় আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা হচ্ছেন সাংবাদিক ও লেখক আবদুল গাফফার চৌধুরী।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পটভূমি তৈরি হয় ভাষা আন্দোলন থেকেই। প্রথমে ১৯৫২ সালের ২১শে ফেরুয়ারি রাষ্ট্রভাষা বাংলা অর্জন এবং সেই পথ ধরে ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর অর্জিত হয় বাংলাদেশের স্বাধীনতা।

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির একটি মজার কাহিনী

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গান সম্পর্কে একটি মজার কাহিনী হচ্ছে- দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ফরাসী দার্শনিক আঁন্দ্রে মারলো ঢাকায় এসেছিলেন বাংলাদেশ পরিদর্শনে।

তিনি ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির’ গানটির সুর শুনে মুগ্ধ হন এবং তার একটি রেকর্ড সাথে নিতে চান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তার সেকথা শুনে গাফফার চৌধুরীকে বলেন, ‘তুমি দেশের স্বাধীনতার যুদ্ধ নিয়ে এরকম একটি গান লেখো না কেন?’

গাফফার চৌধুরী বললেন, বঙ্গবন্ধু, আপনি ৭ই মার্চের ভাষণের মতো দেশবাসীর সামনে আরেকটি ভাষণ দেন না কেন?

বঙ্গবন্ধু বললেন, ‘দূর পাগল, তা কি আর সম্ভব?’ গাফফার চৌধুরী বললেন, ‘বঙ্গবন্ধু, আমার পক্ষেও কি আরেকটি একুশের গান লেখা আর সম্ভব?’ একুশের এই গান আজ আর কেবল বাংলাদেশের গান নয়, এটি এখন সারাবিশ্বের ভাষা পগল মানুষের অনুপ্রেরণার নাম।

একুশে ফেব্রুয়ারি কে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে স্বীকৃতি

১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর জাতিসংঘের ইউনেস্কোর এক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের মাধ্যমে একুশে ফেব্রুয়ারি কে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে স্বীকৃতি দেয়া হয়।

ফলে প্রতিবছর ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সারা বিশ্বের ১৯৩টি রাষ্ট্রে গাওয়া হয় উলানিয়ার সেই দিনের কিশোর চান্দুর (আবদুল গাফফার চৌধুরীর ডাক নাম চান্দু মিয়া) লেখা এই গান।

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানের লিরিক্স

আমার ভাইয়ের
রক্তে রাঙানো
একুশে ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি,
আমার ভাইয়ের
রক্তে রাঙানো
একুশে ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি,
ছেলে হারা শত মায়ের অশ্রু
গড়া এ ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি,
ছেলে হারা শত মায়ের অশ্রু
গড়া এ ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি,
আমার সোনার দেশের রক্তে
রাঙানো ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি
আমার ভাইয়ের
রক্তে রাঙানো
একুশে ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি,
আমার ভাইয়ের
রক্তে রাঙানো
একুশে ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি

দেশ সেরা গার আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গান নিয়ে প্রশ্ন ও উত্তর পর্ব

মায়ের ভাষা বাংলা, আর সেই বাংলার জনপ্রিয় গান হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি। আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা হচ্ছেন আবদুল গাফফার চৌধুরী।

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির সুরকার আবদুল লতিফ। প্রথমে আবদুল লতিফ একুশে ফেব্রুয়ারি গানটি সুরারোপ করেন।

উপসংহার,

আশা করি আপনি জানতে পেরেছেন আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা কে?

সেই সাথে একুশে ফেব্রুয়ারি গানটি সম্পর্কে একটি মজার কাহিনী আপনাদের জানানো হল।

এই পোস্টে আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি গান লিরিক্স mp3 download পদ্দতি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

 ব্লগিং, টেলিকম অফার, মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ, নগদ, রকেট সেবা সম্পর্কে ও নির্ভুল তথ্য নিয়মিত পেতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

এবং ফেজবুকে আপডেট পেতে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। 

আরও পড়ুনঃ

আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্স পরিসংখ্যান ২০২২

কাতার ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা কবে সময়সূচী ২০২২

পদ্মা সেতুর টোল কোন যানবাহনে কত?

মেসির মোট গোল সংখ্যা কত? বিশ্বকাপে মেসির গোল কত

টিভিতে আজকের খেলার সময়সূচি ২০২২

Leave a Comment

2 × one =

%d bloggers like this: