ক্রিপ্টোকারেন্সি কি? What is Cryptocurrency in Bangla

সর্বোপরি আজ আমারা আপনাদের জানাতে যাচ্ছি ক্রিপ্টোকারেন্সি কি? What is Cryptocurrency in Bangla পোস্টে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম। আপনি আজ অনেককে দেখছেন যারা ক্রিপ্টোকারেন্সির পিছনে ছুটছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে, ক্রিপ্টোকারেন্সি আর্থিক বাজারে তার শক্তি অবস্থান তৈরি করেছে।

মূলত ক্রিপ্টোকারেন্সি হচ্ছে একটি ডিজিটাল মুদ্রা, কারণ এই মুদ্রাটি শুধুমাত্র অনলাইনে পাওয়া যায় এবং আমরা এটি শারীরিকভাবে দেখতে ও ব্যাবহার করতে পারি না।

বিভিন্ন দেশের সরকার তাদের  দেশের জন্য একটি মুদ্রা প্রচলন করে থাকে। যেমন বাংলাদেশে রয়েছে টাকা, ভারতের হচ্ছে রুপি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডলার, এই মুদ্রাগুলির সরকার কত্রিক মান নিয়ন্ত্রণ করে এবং সমগ্র বিশ্বে ব্যবহার করতে পারবেন এবং সরকারের তাদের এই মুদ্রার উপর বিশেষ নজরদারি রয়েছে।

কিন্তু এখানে বোঝার বিষয় হল এই ক্রিপ্টোকারেন্সির উপর সরকারের কোন নজরদারী বা হাত নেই। ঠিক এই কারণেই এগুলি বিকেন্দ্রীভূত মুদ্রা, তাই তাদের উপর কোন সংস্থা বা সরকার বা কোন বোর্ডের কর্তৃত্ব নেই, যার কারণে তাদের মান নিয়ন্ত্রণ করা হয়নি। 

বিষয়টি সম্পর্কে জেনে আমি ভাবলাম আজই আপনাদেরকে ক্রিপ্টোকারেন্সি কী সে সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য দেওয়া উচিত। যেহেতু এই বিষয়টি এখন পুরোদমে আলোচনা রয়েছে, তাহলে এটি আপনারও জানার অধিকার রয়েছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়টি সম্পর্কে নিজে জানুন এবং অন্যকে জানা ও তাকে শিক্ষিত করুন। তাহলে দেরি না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক এই ক্রিপ্টোকারেন্সি কি এবং এর কত প্রকার পাওয়া যায়।

ক্রিপ্টোকারেন্সি কি cryptocurrency in bangladesh
ক্রিপ্টোকারেন্সি কি cryptocurrency in bangladesh

? What is Cryptocurrency in Bangla | cryptocurrency in bangladesh

 

Cryptocurrency কে ডিজিটাল মুদ্রা (digital currency) বলা হয়। এটি এক ধরণের ডিজিটাল সম্পদ যা অনলাইনে কোন জিনিস বা পরিষেবা কেনার জন্য ব্যবহৃত হয়। এই currencies গুলিতে cryptography ব্যবহার করা হয়। 

How cryptocurrency works

এটি একটি পিয়ার টু পিয়ার ইলেকট্রনিক সিস্টেম(Peer to Peer Electronic System), যা আমরা নিয়মিত মুদ্রার পরিবর্তে পণ্য ও পরিষেবা কেনার জন্য ইন্টারনেটের মাধ্যমে ব্যবহার করতে পারি। 

এই ব্যবস্থায়, সরকার ব্যাংক গুলিকে না জানিয়ে কাজ করতে পারে, তাই কিছু লোক বিশ্বাস করে যে Cryptocurrency ভুল উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। 

আমরা যদি প্রথমে Cryptocurrency করি, তাহলে সেটা হবে Bitcoin যা এই কাজের জন্য প্রথম পৃথিবীতে আনা হয়েছিল।

Crazyhd bd কি 

আজকে আমরা যদি দেখি, সারা বিশ্বে 1000 টিরও বেশি ক্রিপ্টোকারেন্সি (digital currency) রয়েছে, তবে তার মধ্যে কয়েকটিই বেশি ভালো অবস্থানে রয়েছে, যেগুলি সম্পর্কে আমরা পরে জানব। Cryptocurrency তৈরি করতে ক্রিপ্টোগ্রাফি (Cryptography) ব্যবহার করা হয়। 

যদি আমরা সকল cryptocurrency গুলির কথা চিন্তা করি, তাহলে বিটকয়েন (Bitcoin) সবার আগে বিখ্যাত হবে।

এটি সবচেয়ে আগে তৈরি হয়েছে এবং এটি সবচেয়ে বেশি ব্যাবহার হওয়া digital currency.  বিটকয়েন নিয়ে অনেক বিতর্ক রয়েছে, কিন্তু আজ বিটকয়েন ক্রিপ্টোকারেন্সিতে সবচেয়ে উপরের অবস্থানে রয়েছে। 

এখানে আপনার লোকেদের কিছু Cryptocurrencies সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হবে, যে সম্পর্কে সম্ভবত আপনি আগে জানতে পারেন।

ক্রিপ্টোকারেন্সি (Cryptocurrencies) বিনিয়োগ কিভাবে করবেন?

Cryptocurrencies মধ্যে invest করার জন্য আপনাকে সঠিক প্লাটফর্মের নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরী হবে।কারণ সঠিক প্ল্যাটফর্ম বেছে না নিলে ট্রেড করার সময় আপনাকে উচ্চ ফি দিতে হতে পারে।

একইভাবে, Wazirx বর্তমানে বিশ্বে বেশ জনপ্রিয় একটি ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেড করার প্ল্যাটফর্ম।

Wazirx থেকে বিনিয়োগ করা এবং ব্যবসা করা খুবই সহজ এবং এই সাইটের ফাউন্ডার একজন ভারতীয়।

Cryptocurrencies কত প্রকার?

ক্রিপ্টোকারেন্সি অনেকগুলিই রয়েছে, কিন্তু অনেক Cryptocurrencie এর মধ্যে এমন কিছু রয়েছে যা ভাল কাজ করে এবং আপনি বিটকয়েনের পাশাপাশি এগুলি ব্যাবহার করতে পারেন৷

আমরা এখানে আপনাদের কিছু ডিজিটাল ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্কে আলোচনা করব।  আশা করি এই প্রোগ্রাম শিবা ডিজিটাল মুদ্রা সম্পর্কে জেনে আপনি আপনার জ্ঞানভান্ডার কে আরও সমৃদ্ধ করতে পারবেন। 

1.Bitcoin (BTC) – বিটকয়েন

আমরা যদি Cryptocurrencie সম্পর্কে কথা বলি এবং বিটকয়েন সম্পর্কে কথা না বলি তবে এটি মোটেও সম্ভব নয়। কারণ বিটকয়েন হল বিশ্বের প্রথম ক্রিপ্টোকারেন্সি। যা ২০০৯ সালে Satoshi Nakamoto তৈরি করেছিলেন।

এটি একটি অতি পরিচিত digital currency যা শুধুমাত্র অনলাইনে পণ্য ও পরিষেবা কিনতে ব্যবহৃত হয়। এটি একটি De-centrallized currency যার অর্থ এটিতে কোন সরকার বা কোন প্রতিষ্ঠানের কোন হাত নেই। 

আমরা যদি আজকের বিটকয়েন দামের কথা বলি, তাহলে এর মূল্য অনেক বেড়ে গেছে, যা এখন একটি মুদ্রার মূল্য প্রায় 49 লক্ষ টাকা। এর মূল্য শুনে নিশ্চয়ই এর বর্তমান গুরুত্ব সম্পর্কে জানতে পারবেন।

2. Ethereum (ETH) – ইথেরিয়াম

Bitcoin এর মতো, Ethereum ও একটি ওপেন সোর্স decentralized blockchain-based computing platform। এই ডিজিটাল মুদ্রার প্রতিষ্ঠাতার নাম Vitalik Buterin। এর ক্রিপ্টোকারেন্সি টোকেনকে ‘Ethe’ও বলা হয়ে থাকে।

এই Platform টি তার ব্যবহারকারীদের একটি digital token তৈরি করতে সাহায্য করে, যার সাহায্যে এটি currency হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। সম্প্রতি একটি Hard Fork ইথেরিয়ামকে দুটি ভাগে বিভক্ত করেছে, ইথেরেম (ETH) এবং ইথেরিয়াম ক্লাসিক (ETC)। এটি Bitcoin পরে দ্বিতীয় সর্বাধিক বিখ্যাত ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ডিজিটাল মুদ্রা।

3. Litecoin (LTC) 

Litecoin হল একটি বিকেন্দ্রীকৃত peer-to-peer cryptocurrency যা একটি open source software যা MIT/X11 লাইসেন্সের অধীনে অক্টোবর 2011 সালে Charles Lee দ্বারা প্রকাশিত হয়েছিল যিনি আগে একজন Google Employee কর্মচারী ছিলেন।

Bitcoin তৈরির পিছনে একটি বড় হাত রয়েছে এটির এবং Litecoin এর অনেক বৈশিষ্ট্য বিটকয়েন সাথে  মিল রয়েছে। Litecoin এর ব্লক জেনারেশন টাইম Bitcoin এর থেকে 4 গুণ কম। তাই এর মধ্যে লেনদেন খুব দ্রুত সম্পন্ন হয়। এতে, মাইনিং (Mining) করতে Scrypt algorithm ব্যবহার করা হয়।

4.Dogecoin (Doge)- 

Dogecoin গঠনের গল্প বেশ আকর্ষণীয়। Bitcoin কে উপহাস করার জন্য এটি একটি কুকুরের সাথে তুলনা করা হয়েছিল, যা পরে একটি Cryptocurrency রূপ নেয়। এর প্রতিষ্ঠাতার নাম Billy Markus। Litecoin এর মত এতেও Scrypt Algorithm ব্যবহার করা হয়। 

বর্তমানে Dogecoin এর বাজার মূল্য $197 মিলিয়নেরও বেশি এবং এটি সারা বিশ্বে 200 টিরও বেশি merchants কাছে গৃহীত হয়। অন্যদের তুলনায় এটিতে Mining খুব দ্রুত ঘটে।

5.Peercoin (PPC) – পিয়ারকয়েন

Peercoin যা সম্পূর্ণরূপে Bitcoin protocol উপর ভিত্তি করে তৈরি করা।পিয়ারকয়েন যেটিতে অনেক সোর্স কোড উভয় ডিজিটাল মুদ্রায় পাওয়া যায়। এতে, লেনদেন যাচাই করার জন্য, শুধুমাত্র কাজের প্রমাণের উপর নির্ভর করা হয় না, এর সাথে প্রুফ অফ স্টেক সিস্টেমটিও বিবেচনায় নেওয়া হয়।

এই Bitcoin টি নাম অনুসারে, পিয়ারকয়েন হল বিটকয়েনের মতো একটি পিয়ার-টু-পিয়ার ক্রিপ্টোকারেন্সি, যেখানে সোর্স কোডটি MIT/X11 সফ্টওয়্যার লাইসেন্সের অধীনে প্রকাশিত হয়েছে।

পিয়ারকয়েনও বিটকয়েনের মতো SHA-256 অ্যালগরিদম ব্যবহার করে। এবং লেনদেন এবং মাইনিং করতে খুব কম শক্তি প্রয়োজন।

ক্রিপ্টোকারেন্সি (CryptoCurrency ) সুবিধা কি? 

  • Cryptocurrency প্রতারণার সম্ভাবনা খুবই কম।
  • যদি আমরা Cryptocurrency সম্পর্কে সঠিক ভাবে জেনে থাকি, তাহলে সেগুলি সাধারণ ডিজিটাল পেমেন্টের চেয়ে বেশি সুরক্ষিত।
  • এতে, লেনদেন ফি ও খুব কম যদি আমরা অন্যান্য payment options গুলিত কথা চিন্তা করি।
  • এতে অ্যাকাউন্টগুলো খুবই নিরাপদ কারণ এতে বিভিন্ন ধরনের ক্রিপ্টোগ্রাফি অ্যালগরিদম ব্যবহার করা হয়।

ক্রিপ্টোকারেন্সি (Cryptocurrency) ক্ষতিকর দিক কী? 

Cryptocurrency তে একবার লেনদেন সম্পূর্ণ হয়ে গেলে, এটিকে ফিরিয়ে আনা (reverse) করা অসম্ভব কারণ এতে এই ধরনের কোনো reverse options নেই।

যদি আপনার Wallet ID হারিয়ে যায় তবে এটি চিরতরে হারিয়ে যায় কারণ এটি পুনরুদ্ধার করা সম্ভব নয়। এমতাবস্থায় আপনার digital currency wallet বা মানিব্যাগে থাকা টাকা চিরতরে হারিয়ে যায়।

তাই এই বিষয় গুলি সম্পর্কে আপনাকে সতরক থাকতে হবে।

What is Bitcoin in Bangla and price

ক্রিপ্টোকারেন্সি কি / বিটকয়েন কি বাংলাদেশে বৈধ

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এখনো পরিষ্কার করে বলা হয় নি বিটকয়েন কি বাংলাদেশে বৈধ নাকি অবৈধ। তবে সরকার কে বিটকয়েন কি বাংলাদেশে বৈধ এই বিষয়ে সকলকে পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দেয়া উচিত।

তবে আমি মনে করি বিটকয়েন কি বাংলাদেশে বৈধ এই বিষয়টি ভাবার আগে বিটকয়েন ডিজিটাল মুদ্রাটি ব্যাবহারের সুবিধা ও অসুবিধা সম্পর্কে ভালো ভাবে জেনে নিন।

In conclusion,

আমি আন্তরিকভাবে আশা করি যে আমি আপনাকে ক্রিপ্টোকারেন্সি কি তা সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য দিয়েছি এবং আমি আশা করি আপনি What is Cryptocurrency in Bangla সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন।

আমি আপনাদের সকল পাঠকদের অনুরোধ করছি যে আপনারাও এই তথ্যটি আপনার আশেপাশের, আত্মীয়স্বজন, আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

যাতে আমাদের মধ্যে digital currency ব্যাবহার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি হয় এবং সবাই এর দ্বারা অনেক উপকৃত হয়।

আমি Bitcoin ও অন্যান্য ডিজিটাল মুদ্রা সম্পর্কে আপনাদের সহযোগিতা চাই যাতে আমি আপনাদের কাছে আরো নতুন তথ্য দিতে পারি।

আমার সর্বদাই প্রয়াস থাকে যে আমি আমার পাঠক বা পাঠকদের যথা সম্বভ নিজ থেকে সাহায্য করি, আপনাদের কাছে যদি Cryptocurrency সম্পর্কে কোনো প্রকার সন্দেহ থাকে, তাহলে বিনা দ্বিধায় আমাকে কমেন্ট করে জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

আমি অবশ্যই Digital Cryptocurrency বা ক্রিপ্টোকারেন্সি কি পোস্টে সেসব সন্দেহ দূর করার চেষ্টা করব।

আপনার এই নিবন্ধটি What is Cryptocurrency in Bangla কেমন লেগেছে, একটি মন্তব্য লিখে আমাদের জানান যাতে আমরাও আপনার চিন্তা থেকে কিছু শেখার এবং পোস্টটিতে কিছু উন্নত করার সুযোগ পাই।

Leave a Comment

nine − eight =