বাংলাদেশে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে সে সম্পর্কে আপনারা অনেকেই জানতে চান। আমাদের ওয়েবসাইটে আপনারা জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাবেন। 

আজকে আমাদের ওয়েবসাইটের আলোচ্য বিষয় হলো জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে এবং কেন লাগে।

তাই আপনি যদি দ্রুত ভিত্তিতে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চান এবং এক্ষেত্রে কতদিন সময় লাগবে তার আসল তথ্য জেনে নিতে চান, তাহলে এই পোস্ট টি শেষ পর্যন্ত পড়ুন। 

 আমরা সাধারণত নির্দিষ্ট সময়ের কাজ নির্দিষ্ট সময়ে করতে চাই না বলে পরবর্তীতে যখন কাজটির প্রয়োজন হয় তখন খুব তাড়াহুড়া করি।

কিন্তু যদি প্রয়োজনের আগে নির্দিষ্ট কাজটি সম্পন্ন করে রাখা হয় তখন সেটা আমাদের জন্য খুব ভাল হয়। নিজেদের প্রতি কোন ধরনের চাপ পড়ে না। 

আপনার ব্যক্তিগত বা আপনার পরিবারের কোন সদস্যের যদি জন্ম নিবন্ধনে তথ্যের কোন ধরনের ভুল থাকে তাহলে আপনারা খুব সহজেই এখন অনলাইনের মাধ্যমে তা সংশোধন করতে পারবেন। 

আগে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় দৌড়াদৌড়ি করার প্রয়োজন পড়ত। ফলে এই কাজটি করতে অনেকদিন সময় লেগে যেত। 

জন্ম নিবন্ধন সাধারনত দুইভাবে সংশোধন করা যায়।

একটি হল সরাসরি জন্ম নিবন্ধন অফিসে গিয়ে তাদের নিকট থেকে সংশোধনের ফর্ম গ্রহন করে তা পূরণ করার মাধ্যমে সম্পন্ন করা যায়। 

আবার অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সংশোধনের ব্যবস্থা রয়েছে।

তবে আমাদের পরামর্শ হলো জন্ম নিবন্ধন অফিসে গিয়ে হয়রানির শিকার না হয় অনলাইনে ঘরে বসে সংশোধন করে নেওয়াই উত্তম।

বর্তমানে প্রায় সকল কাজই অনলাইনের মাধ্যমে পরিচালনা করা হচ্ছে বলে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে সঠিক নির্দেশনা মেনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

সংশোধনের পর প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে আপনারা এই আবেদনের প্রিন্ট করে নিকটস্থ স্থানীয় সরকারের কাছে জমা দিতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধনের কাগজ কোথায় কোথায় ব্যবহার হয়?

জন্ম নিবন্ধনের কাগজ কোথায় কোথায় ব্যবহার হয়
জন্ম নিবন্ধনের কাগজ কোথায় কোথায় ব্যবহার হয়

আমরা সকলে জানি জন্ম নিবন্ধন পত্র একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রাথমিক নাগরিক সনদ।

এই সনদের মাধ্যমে প্রতিটি নাগরিককে নাগরিকত্ব প্রদান করা হয়।

বিভিন্ন প্রয়োজনে এই জন্ম নিবন্ধন সনদ আমাদেরকে ব্যবহার করতে হয়।

আমাদের শিক্ষা জীবন থেকে শুরু করে কর্মজীবন পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রে এই জন্ম নিবন্ধন সনদের খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজনের বিভিন্ন ক্ষেত্রসমূহ নিচে আলোচনা করা হলো।  

১. শিক্ষার  সব ক্ষেত্রে। 

২. ব্যবসার ট্রেড লাইসেন্স পাওয়ার ক্ষেত্রে।

৩.সকল প্রকার সরকারি, বেসরকারি, কিংবা আধা–সরকারি প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ আবেদনের ক্ষেত্রে।  

৪.আবাসিক গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি কিংবা টেলিফোন সংযোগ পাওয়ার জন্য জন্ম সনদ প্রয়োজন হয়।

৫. জমি ক্রয়-বিক্রয় এর রেজিস্ট্রি করাতে।  

৬. বাড়ি তৈরি করার জন্য নকশা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে এবং প্লান পাশ করানোর জন্য। 

৭. পাসপোর্ট করার ক্ষেত্রে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

৮. আমদানি কিংবা রপ্তানি করবার লাইসেন্স প্রাপ্তির ক্ষেত্রে।

৯. গাড়ির ড্রাইভিং লাইসেন্স করাতে। 

১০. ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স পেতে। 

১১. বিবাহ বা তালাক নিবন্ধনের ক্ষেত্রে।

১২. জাতীয় পরিচয় পত্র প্রাপ্তির ক্ষেত্রে এই জন্ম নিবন্ধনের ভুমিকা সর্বাধিক। 

এছাড়াও আরো বিভিন্ন প্রয়োজনে জন্ম নিবন্ধনের প্রয়োজন হয়।

এখন আমাদের এতসব জানার প্রয়োজন নেই।

আমাদের জীবনে বিভিন্ন সময় জন্ম নিবন্ধন কাগজের দরকার হয় আর সে জন্ম নিবন্ধন কাগজটিতে যদি অনাকাঙ্ক্ষিত কোন ভুল তথ্য উঠে যায় তাহলে আমাদের নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।  

তাই এই অনাকাঙ্ক্ষিত সমস্যে এড়াতে আমাদের উচিত হবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই জন্ম নিবন্ধন পত্রটি নির্ভুলভাবে সংশোধন করে নেওয়া।

এখন কিভাবে তা করতে হয় সে সম্পর্কে আপনাদেরকে জানিয়ে দেব। 

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে ? কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে করতে হয় সেই সম্পর্কে ইতিমধ্যে আমাদের ওয়েবসাইটে একটি আর্টিকেল দেওয়া আছে।

আপনারা চাইলে সে আর্টিকেলটি পড়ে আসতে পারেন। নিচে আর্টিকেলটির লিংক প্রদান করা হলো।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক, সংশোধন ও অনলাইন কপি ডাউনলোড

তাহলে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত দিন সময় লাগবে তা জানতে পারবেন।

তার পরেও একটু বলে রাখি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হলে আপনাকে সর্ব প্রথমে অনলাইনের মাধ্যমে নিজ দায়িত্বে সংশোধনের জন্য আবেদন করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

https://bdris.gov.bd/br ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনারা সেই আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে পারবেন। জন্ম নিবন্ধন ফরম এর নাম্বার ব্যবহার করে আপনার যে জন্ম নিবন্ধন ফরম টি সংশোধন করতে চান সেই ফরমটিতে 17 ডিজিটের একটি কোড নাম্বার বসিয়ে তা যাচাইও করে নিতে পারবেন। 

আপনারা জন্ম নিবন্ধনের কোড নাম্বারটি ওই খালি বক্সে পূরণ করবেন এবং সঠিক জন্মতারিখ বসিয়ে Submit বাটনে ক্লিচক করবেন।

আর অবশ্যই মনে রাখতে হবে জন্ম তারিখের ফরমেট হবে – প্রথমে বছর তারপর মাস এবং তারপরে তারিখ অর্থাৎ yyyy-mm-dd.

এভাবে অনলাইনের মাধ্যমে আপনারা জন্মনিবন্ধন সংশোধনের জন্য সকল তথ্য সঠিক ভাবে দেওয়ার পর আবেদন সম্পন্ন করবেন এবং নির্ধারিত আবেদন ফি জমা দিবেন।

পরবর্তীতে অনলাইন থেকে তথ্য সংশোধনের আবেদনপত্র প্রিন্ট দিয়ে নিবেন এবং টাকা প্রদানের রশিদ গ্রহণ করবেন।

পরবর্তীতে তারা তাদের অভ্যন্তরীণ যাচাই-বাছাইয়ের পর আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধন করে দিবে এবং নির্দিষ্ট দিন পরে আপনাকে কার্ড প্রদান করবে।

এক্ষেত্রে যদি স্থানীয় সরকারের কোন ধরনের কাজের চাপ না থাকে তাহলে 15 থেকে 20 দিন এর ভেতরেই আপনারা সংশোধিত জন্ম নিবন্ধন পেয়ে যাবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের সময় পুনরায় যেন কোন ধরনের ভুল না হয় সেই বিষয়ে সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে। 

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে ? 

যদি কেউ শুধু তার নিজের জন্ম নিবন্ধন সনদ এর জন্ম তারিখ বা জন্ম সাল পরিবর্তন করতে চায় তাহলে তাকে তথ্য সংশোধন ফি 100 টাকা প্রদান করতে হবে।

এছাড়া যদি অন্যান্য কোন তথ্য পরিবর্তন করতে চান তাহলে আপনাদের শুধু সংশোধন ফি 50 টাকা জমা দিতে হবে।

অন্যান্য সংশোধন বলতে বোঝানো হচ্ছে নিজের নাম, পিতা বা মাতার নাম, স্থান পরিবর্তন সহ অন্যান্য বিষয়াবলী। 

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে? তাছাড়া আবেদন করার জন্য কম্পিউটার অপারেটর আপনাদের কাছে যে অর্থ চাইবে তা প্রদান করতে হবে।

সাধারণত জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সংশোধন করার জন্য আপনারা অনলাইনে আবেদন করে যে স্থানীয় সরকারের কাছে তা জমা দিবেন তখন  তারা আপনাকে অল্প কিছু দিনের ভেতরেই অরিজিনাল জন্ম নিবন্ধন সনদের সংশোধিত কপি প্রদান করবে।

আর যদি আপনারা কোন লোক বা দালালের মাধ্যমে করতে চান তাহলে আপনাদের অধিক টাকা খরচ করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন লিঙ্ক

https://bdris.gov.bd/brClick Here
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন লিঙ্ক

আরও পড়ুনঃ

ডায়াবেটিস হলে কি কি সমস্যা হয়

বাংলাদেশের জন্য কোন কোন দেশের ভিসা খোলা আছে। ভিসা সম্পর্কিত তথ্য 

15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ । Best mobile at low prices

বাংলাদেশে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে FAQS

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে?

জন্ম নিবন্ধন সনদ এর জন্ম তারিখ বা জন্ম সাল পরিবর্তন করতে সংশোধন ফি 100 টাকা প্রদান করতে হবে। যদি অন্যান্য কোন তথ্য পরিবর্তন করতে চান তাহলে আপনাদের শুধু সংশোধন ফি 50 টাকা জমা দিতে হবে।

কোথা থেকে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হয়?

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য বাংলাদেশে আলাদা ওয়েব সাইট রয়েছে।

শেষ কথা

আশা করছি পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। আশা করছি আপনি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে আরটিকেলটি শেষ পর্যন্ত পরেছেন। যদি পরে থাকেন তাহলে আপনার এই বিষয়ে আর কোনো সমস্যা থাকার কথা না। 

তারপরও যদি আপনার কোনো মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। 

সব বিষয়ে নিত্য নতুন আর্টিকেল পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট। চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজে।

Leave a Comment

3 × four =