সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 2022

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 2022 বিষয়ে আজকে আপনাদের জানাবো। একটি সামাজিক আর্থিক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হলো সঞ্চয়পত্র। যে ব্যবস্থায় ব্যবসা বা চাকরি করতে সমর্থ না এমন মানুষ সরকারি সঞ্চয় স্কীমের আওতায় মাসিক বা ৩ মাস পর পর মুনাফায় দৈনন্দিন কর্মকান্ড সচল রাখতে পারেন এই সাধারণ মানুষ। আপনি কি সোনালি ব্যাংকে সঞ্চয়ের নতুন নিয়ম খুজছেন? 

ক্ষুদ্র সঞ্চয় অভ্যাস গড়তে দরিদ্র এবং সম্ভব হীন মানুষের আর্থিক নিরাপত্তা ব্যবস্থাই মূলত সঞ্চয়পত্র স্কীম।

সঞ্চয়পত্রে বাংলাদেশ সরকার সর্বোচ্চ মুনাফা প্রদানের সুযোগ রেখেছে যা অন্য কোন ব্যাংক বা অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান এত মুনাফা দেয় না। 

Contents hide

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 2022 – New rules for Sonali Bank savings certificates

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 2022
সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম

বাংলাদেশ সরকার ও বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে দেয়া সোনালি ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী একজন ব্যক্তি সব ধরনের সঞ্চয়পত্র মিলিয়ে সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে তিন মাস অন্তর মুনাফা-ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র এবং পাঁচ বছর মেয়াদী সঞ্চয়পত্রের স্কিমে ৩০ লাখ টাকার বেশি কিনতে পারবেন না।

যা সর্বশেষ প্রকাশিত সঞ্চয়পত্রে নতুন নিয়ম।

বাংলাদেশ সরকার সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর এর মাধ্যমে সঞ্চয়স্কীমগুলো পরিচালিত করে থাকে। 

দেশের যে কেউ লোকাল সঞ্চয় অধিদপ্তরে গিয়ে এ সঞ্চয়পত ক্রয় করতে পারে। এবং ভাঙ্গাতে পারে নির্দিষ্ট সময় পরে। তবে সঞ্চয়পত্র ক্রয়-বিক্রয় আরও সহজ করতে সরকারের রাষ্ট্রয়াত্ত ব্যাংক ছাড়াও বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর সঞ্চয়পত্র বিক্রি করছে।

আজকে আমরা জানবো,

  • সঞ্চয়পত্র কোথায় কিভাবে পাওয়া যায়? 
  • একটি সঞ্চয়পত্র কিনতে কি কি ডকুমেন্ট লাগে ? 
  • সর্বাধিক এবং সরবনিম্ম কত টাকার সঞ্চয়পত্র রয়েছে ?
  • সঞ্চয় পত্রের মুনাফা তুলতে কি লাইনে দাড়াতে হয় ? 
  • অন্যের ব্যাংকে টাকা জমা দিয়ে নিজ নামে সঞ্চয়পত্র কেনা যাবে ? 
  • মহিলা এবং পুরুষদের জন্য আলাদা সঞ্চয়পত্র কিন্তে হবে কি না ?  

চলুন জেনে নেওয়া যাক সোনালি ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম সম্পর্কে। 

ব্যাংকের সঞ্চয়পত্র কোথায় কিভাবে পাওয়া যায় । সোনালি ব্যাংকের সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 

বাংলাদেশে অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখা থেকে সঞ্চয়পত্র পাওয়া যাবে। 

আমরা জানি সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র সাধারণত ডাক বিভাগ পোস্ট অফিসের মাধ্যমে বিক্রি করে। এছাড়াও দেশের বেসরকারি ব্যাংকের কিছু শাখা বাদে বাংলাদেশ ব্যাংকের যেকোনো শাখা হতে সঞ্চয়পত্র কেনা যায়।  

এক পাতার ফরম পুরনের মধ্য দিয়ে এখন সঞ্চয়পত্র অন্য ব্যাংক ছাড়াও সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখা থেকে মুহূর্তের মধ্যে ক্রয় করা যায়।

আপনি আপনার জমানো মাত্র ১০ হাজার টাকা দিয়েও সঞ্চয়পত্র কিনতে পারেন। এক্ষেত্রে সরকার আপনাকে সর্বাধিক ১১% পর্যন্ত মুনাফা দেয়।

তবে বর্তমানে সরকার ৫% থেকে ১০% কেটে রাখছে আয়কর হিসেবে। তারপরেও ১ লক্ষ্য টাকা জমা দিলে একটি সঞ্চয়পত্রে মাসিক ৯১২ টাকা পাবে গ্রাহক গণ। তবে সঞ্চয়পত্রটি অবশ্যই পারিবারিক সঞ্চয়পত্র হতে হবে।  

ভোটার আইডি কার্ড চেক 2022 । Voter ID Card Check Online

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে কি ডকুমেন্ট লাগে?

সঞ্চয়পত্র কিনতে কি কি লাগে
সঞ্চয়পত্র কিনতে কি কি লাগে

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্র ক্রয় বা কেনার জন্য গ্রাহক বা ক্রেতার যা যা লাগবে তা নিচে উল্লেখ করা হলোঃ 

১) দুই কপি ছবি, 

২) এক কপি জাতীয় পরিচয়পত্র ফরম, 

৩) ১ কপি নমিনির ছবি,

৪) নমিনির জাতীয় পরিচয়পত্র।

এরপর সোনালী ব্যাংকে আপনার চেক বইয়ের একটি পাতা যেখানে সঞ্চয়পত্র এর টাকার পরিমাণ লেখা থাকবে। এক্ষেত্রে ২ লক্ষ টাকার অধিক মূল্যের সঞ্চয়পত্র হলে টিন সার্টিফিকেট লাগবে।

টিন সার্টিফিকেট এর জন্য যেকোনো কম্পিউটারের দোকানে আপনার ভোটার আইডি কার্ড গিয়ে বললেই আপনাকে বের করে দিবে টিন সার্টিফিকেট। 

সর্বাধিক এবং সরবনিম্ম কত টাকার সঞ্চয়পত্র রয়েছে যা আপনি ক্রয় করতে পারবেন । সোনালি ব্যাংক সঞ্চয়ের নতুন নিয়ম

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী একজন ব্যক্তি সর্বাধিক মোট ৫০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র কিনতে পারবেন। আর সর্বনিম্ম ১০ হাজার টাকার সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে পারবেন যেকোনো বাংলাদেশি নাগরিক। 

এই সঞ্চয়পত্র যেকোনো সময়ে নগদায়ন করা যায়। এছাড়াও বড় সুবিধা হচ্ছে, ব্যাংকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র ক্রয় করলে আপনার নির্দিষ্ট মুনাফা প্রতি মাসে অথবা নির্দিষ্ট সময় পর পর ব্যাংক একাউন্তে অটোমেটিক জমা হয়ে যায়।

আগের দিনের মতো এখন আর দাড়িয়ে থেকে মুনাফা তুলতে হবে না। এমনকি মাসিক মুনাফা আপনি চাইলে ব্যাংকের চেক বা ডেভিড কার্ডের মাধ্যমেও উঠাতে পারবেন।  

এজন্য বর্তমান সময়ে বলা হয়ে থাকে সহজ ও নিরাপদ বিনিয়োগের জন্য সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগ হতে পারে আপনার অন্যতম বিনিয়োগ পন্থা। 

সঞ্চয় পত্রের মুনাফা তুলতে কি লাইনে দাড়াতে হয়? 

ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী সঞ্চয়পত্রের মাসিক মুনাফা আপনার ব্যাংক একাউন্তে মাসের নির্দিষ্ট সময়ে জমা হবে।

এরপর আপনি ব্যাংকের চেক বইয়ের মাধ্যমে টাকা উঠাতে পারবেন। আপনি চাইলে ডেভিড কার্ড ব্যবহার করেও টাকা তুলতে পারেন। তাহলে কি বুঝলেন ? আপনি ই বলেন, এখন নতুন নিয়ম অনুযায়ী আর লাইনে দাড়াতে হয়?

আবার আপনি আপনার ব্যাংক সঞ্চয়পত্র ভেঙ্গে আসল টাকা তুলতে চাইলে ব্যাংকে সঞ্চয়পত্র ভাংতে চাই বলে জানালে আপনাকে শুধু ব্যাংকের নির্ধারিত চার্জ গুনতে হবে।

বাকি সকল কাজ ব্যাংক নিজেই করবে।

এজন্য কোনও রকম তোষামোদের দরকার হবে না।

আবার নির্দিষ্ট মেয়াদ শেষ হওয়ার পরের দিনই অটোমেটিক আপনার ব্যাংক হিসাবে আপনার মুলধন বা বিনিয়োগ জমা হয়ে যাবে। 

আজকাল টাকা লাইনে থেকে নয় বরং ডেভিড কার্ডে উঠানো সম্ভব কি না তাই জানতে চান। কারণ, দিন বদলেছে। 

আরও পড়ুনঃ 

টিকটক থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় | TikTok Income Bangladesh

করোনা টেস্ট রিপোর্ট কিভাবে পাবো । How to get Corona test report

অন্যের ব্যাংকে টাকা জমা রেখে নিজ নামে সঞ্চয়পত্র কেনা যাবে ? 

এককথায় জানতে চাইলে বলবো না। অন্যের ব্যাংক হিসেবে টাকা জমা রেখে ব্যাংক সঞ্চয়পত্র কেনা সম্ভব না।

এক্ষেত্রে অবশ্যই সঞ্চয়পত্র গ্রহিতার নিজের ব্যাংক হিসেব থাকতে হবে। এছাড়া আরেকটি বিষয় বলে রাখা ভালো, ব্যাংক কখনো নগদ টাকায় সঞ্চয়পত্র বিক্রি করে না। চেকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র দিয়ে থাকে।

সোনালী ব্যাংকের প্রত্যেক শাখায় সঞ্চয়পত্র ক্রয় বিক্রয়ের জন্য আলাদা অফিসার নিয়োগ প্রাপ্ত আছেন। 

বিস্তারিত আরও কোনো বিষয়ে তখন জানার থাকলে বা বুঝতে সমস্যা হলে নির্ধারিত অফিসারকে জিগ্যেস করলে তিনি আপনাকে খুব সহজ ভাবে বুঝিয়ে দিবেন। 

মহিলা এবং পুরুষদের জন্য আলাদা সঞ্চয়পত্র কিন্তে হবে কি না ? সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম কি বলে?

হ্যাঁ, অবশ্যই আলাদা সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে হবে।

সাধারন মহিলাদের পারিবারিক সঞ্চয়পত্র এবং পুরুষদের  জন্য ৩মাস অন্তর অন্তর মুনাফা সঞ্চয়পত্র প্রযোজ্য।

পারিবারিক সঞ্চয়পত্র যদি পুরুষ কিনতে চায় সেক্ষেত্রে ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী তাকে ৬৫ বা তার বেশি বয়সের হতে হবে। 

যেহেতু নিয়ম অনুযায়ী একজন মানুষ সর্বাধিক ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয়পত্রের জন্য বিনিয়োগ করতে পারেন সেহেতু টিন মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র মেয়াদ ৫ বছরের হলে সেই স্কিমে ৩০ লাখ টাকার বেশি ব্যাংক সঞ্চয়পত্র কিনতে পারবেন না। 

এবার আসেন, জেনে নেওয়া যাক সোনালী ব্যাংকের সঞ্চয়পত্র ফর্ম কোথায় পাওয়া যায় ? সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম।

দেশের যেকোনো সোনালী ব্যাংক থেকে পেয়ে যাবেন ব্যাংকটির সঞ্চয়পত্র ফর্ম এবং দায়িত্ব রত অফিসারদের নির্দেশনাবলি এবং পরামর্শবলি।

উপরের নিমাবলি ঠিকঠাক ভাবে পড়লে আপনি সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম সম্পর্কে সম্পূর্ণই বুঝতে পারছেন বলা আশা করছি।

আরও পড়ুনঃ 

নিজেকে নিয়ে স্ট্যাটাস | নিজেকে সঠিক পথে রাখার কিছু উপায়

মাকে নিয়ে ইসলামিক উক্তি । Islamic Quote About Mother

Official Phone Check Bangladesh |  অফিসিয়াল ফোন কিভাবে চেক করবো

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম FAQS

সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম ২০২২ কি?

বাংলাদেশ সরকার ও বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে দেয়া সোনালি ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী একজন ব্যক্তি সব ধরনের সঞ্চয়পত্র মিলিয়ে সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন এই খাতে।

সঞ্চয়পত্র পোস্ট অফিস থেকে নিব নাকি সোনালী ব্যাংক থেকে নিবো?

সঞ্চয়পত্র এখন বাংক ও পোস্ট অফিস থেকে ক্রয় করা যায়। আপনি সঞ্চয়পত্র পোস্ট অফিস থেকে নিবেন নাকি সোনালী ব্যাংক থেকে নিবেন এটা আপনাকে নির্ধারণ করতে হবে।

বর্তমানে সঞ্চয়পত্র কিনতে কি কি লাগে?

সঞ্চয়পত্র কিনতে ক্রয় কারীর দুই কপি ছবি, এক কপি জাতীয় পরিচয়পত্র ফরম, ১ কপি নমিনির ছবি, নমিনির জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি জমা দিতে হবে।

সর্বশেষ

আজকের সম্পূর্ণ আর্টিকেল জুড়ে বোঝাতে চেষ্টা করেছি সোনালী ব্যাংক সঞ্চয়পত্রের নতুন নিয়ম 2022 সম্পর্কে। আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ে আশা করি এ বিষয়ে আর কোন দ্বিধা বা অজ্ঞতা থাকবে না আপনাদের। 

সব বিষয়ে নিত্য নতুন আর্টিকেল পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

চোখে রাখুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে।

Leave a Comment

one × two =