মহাদেশ কয়টি ও কি কি? মহাদেশ গুলোর নাম ও বর্ণনা

মহাদেশ কয়টি ও কি কি এ সম্পর্কে আপনি জানেন কি? জাতিসংঘ স্বীকৃত পৃথিবীতে মোট স্বাধীন দেশ ১৯৩ টি। প্রতিটি দেশই কোনো না কোনো মহাদেশের অন্তর্ভুক্ত। এ আর্টিকেলে পৃথিবীতে মহাদেশ কয়টি ও কি কি তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

এই পোস্টে আপনি জানতে পারবেন এশিয়া মহাদেশের দেশগুলোর নাম, ইউরোপ মহাদেশের দেশগুলোর নাম এবং অন্যান্য মহাদেশে অবস্থিত দেশ গুলির নাম।

মহাদেশ কি?

মহাদেশ বলতে মূলত পৃথিবীর বড় স্থল্ভাগকে বুঝায়। পৃথিবীর মোট আয়তনের ৩ ভাগই জলসীমা, আর ১ ভাগ স্থল। এই এক ভাগ স্থলসীমার আবার ৭টি বড় বড় ভূখণ্ড রয়েছে। এগুলোই হচ্ছে মহাদেশ। 

পৃথিবীতে কয়টি মহাদেশ আছে? প্রিয় পাঠক পৃথিবীতে মোট ৭টি মহাদেশ আছে।

বর্তমানে পৃথিবীতে অবস্থিত মহাদেশ গুলির নাম হচ্ছে এশিয়া মহাদেশ, ইউরোপ মহাদেশ, আফ্রিকামহাদেশ, উত্তর আমেরিকা মহাদেশ, দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ, অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ, অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশ।

এই মহাদেশগুলির মধ্যে আয়তনে সবথেকে বড় মহাদেশ হচ্ছে এশিয়া মহাদেশ। 

এদের মধ্যে প্রায় সব দেশ জাতিসংঘ কর্তৃক স্বীকৃত এবং কিছু দেশ স্বীকৃতি পায়নি। জাতিসংঘ দ্বারা স্বীকৃত দেশ হল ১৯৩ টি। নিচে মহাদেশ কয়টি ও কি কি এ সম্বন্ধে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। 

মহাদেশ গুলির নাম কি কি? নাম হচ্ছে-  

মহাদেশ কয়টি ও কি কি
মহাদেশ গুলির নাম কি কি
  • এশিয়া মহাদেশ 
  • আফ্রিকা মহাদেশ 
  • ইউরোপ মহাদেশ 
  • উত্তর আমেরিকা মহাদেশ 
  • দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ 
  • ওশিয়ানিয়া মহাদেশ এবং 
  • আন্টার্কটিকা মহাদেশ ।

মহাদেশ কয়টি ও কি কি?  

পৃথিবীতে অবস্থিত মহাদেশ গুলোর নাম জানার পর এখন আপনাকে এই মহাদেশগুলো সম্পর্কে এক এক করে প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সম্পর্কে জানাবো।

আশা করি এই পোস্ট পড়ার পর মহাদেশ কয়টি ও কি কি, এই সম্পর্কে অন্য কোথাও তথ্য খুজার প্রয়োজন নেই।

আরও পড়ুনঃ

বিটকয়েন কি

How to add bkash priyo number

CPA Marketing Bangla Meaning

এশিয়া মহাদেশ :-

পৃথিবীর স্থলভাগের তিনভাগের একভাগ জুড়ে এ মহাদেশের আবস্থান। এই মহাদেশটি বৃহত্তম ও জনবহুলপূর্ণ।

বর্তমানে চারটে ইউরোপ বা দেড়খানা আফ্রিকার সমান আমাদের এই এশিয়া মহাদেশ। এই মহাদেশ এতই বিশাল যে যখন পশ্চিম প্রান্তে সূর্য ওঠে তখন পূর্বপ্রান্তে সূর্যাস্তের সময় হয়ে যায়। 

সুউচ্চ পর্বতস্রিঙ্খ, বিস্তীর্ণ মালভূমি, সমভূমি আর ঊর্বর নদী উপত্যকা এই মহাদেশের বৈশিষ্ট্য।

এশিয়া মহাদেশের এমন কিছু স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য আছে, যা অন্য কোনো মহাদেশের নেই। তাই এশিয়াকে “চরম বৈশিষ্ট্যের” মহাদেশও বলা হয়।

এশিয়া মহাদেশের মোট আয়তন ৪ কোটি ৫০ লক্ষ ৩৬ হাজার ৪৯২ বর্গকিলোমিটার। পৃথিবীর স্থলভাগের প্রায় ৩ ভাগের ১ ভাগ জুরে এশিয়া মহাদেশের অবস্থান। 

পৃথিবীর সর্বোচ্চ স্থান মাউন্ট এভারেষ্ট (৮,৮৫০ মিটার) রয়েছে এশিয়া মহাদেশেই। এশিয়া মহাদেশে মোট ৪৭ টি দেশ রয়েছে।

এশিয়া মহাদেশে ৪৭ টি দেশ রয়েছে। এশিয়া মহা দেশে অবস্থিত দেশের মধ্যে সবচেয়ে বৃহত্তম দেশ হলো চীন (৯৫,৬১,০০০ বর্গকিলোমিটার) এবং ক্ষুদ্রতম দেশ হলো মালদ্বীপ (২৯৮ বর্গকিলোমিটার)। 

এশিয়ার দীর্ঘতম নদী ইয়াংসিকিয়াং (৫,৯৮০ কিলোমিটার) যেটি চীনে অবস্থিত। এশিয়া মহাদেশের জনসংখ্যা ৪,৪৩৭ মিলিয়ন। 

আফ্রিকা মহাদেশ :-

আয়তনে এবং জনসংখ্যায় পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম মহাদেশ হলো আফ্রিকামহাদেশ। একই সঙ্গে এই মহাদেশটি পৃথিবীর উত্তর-দক্ষিণ এবং পূর্ব-পশ্চিম গোলার্ধে অবস্থিত।

পূর্ব আফ্রিকাতেই পৃথিবীর প্রথম মানুষের উদ্ভব হয়েছিল বলে মনে করে বিজ্ঞানীরা।

ঊনবিংশ শতাব্দী শেষ পর্যন্ত আফ্রিকার বহু দেশ ইউরোপ এবং উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন দেশের উপনিবেশ ছিল। এশিয়া মহাদেশ আর আফ্রিকা মহাদেশের মাঝে আছে লোহিত সাগর ও সুয়েজ খাল।

ইউরোপ মহাদেশ আর আফ্রিকা মহাদেশের মাঝে আফ্রিকা মহাদেশের অবস্থান ও এখানে জিব্রাল্টার প্রণালী (সীমা মহাসাগর) রয়েছে। দুটি বড় জলভাগ অর্থাৎ সাগর বা মহাসাগর  যে সংকীর্ণ জলভাগে যুক্ত হয় তা হলো প্রণালী।

আফ্রিকা মহাদেশটির সর্বোচ্চ স্থান কিলিমাঞ্জারো যার উচ্চতা (৫,৯৬৩ মিটার)। আয়তনে বৃহত্তম দেশ সুদান।

আর সবচেয়ে ছোট দেশ হলো মিচেলিস। এ মহাদেশের দীর্ঘতম নদী হলো মৃত নীলনদ।

আফ্রিকা এবং ইউরোপ মহাদেশকে পৃথক করেছে রেখেছে ভূ-মধ্যসাগর। এ মহাদেশে মোট জনসংখ্যা ১,২০৩ মিলিয়ন (২০১৬ সালের হিসেব অনুযায়ী)।

আরও পড়ুনঃ

ই পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে 

Jonmo Nibondhon online check

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো?

ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

উত্তর আমেরিকা মহাদেশ:-

আজ থেকে প্রায় ৫০০ বছর আগে উত্তর আমেরিকা মহাদেশটির কথা পৃথিবীর মানুষের কাছে অজানা ছিল।

কিন্তু তারাই এখন সভ্যতার চরম শিখরে। ১৪০০ এবং ১৫০০ খ্রিস্টাব্দে ইউরোপীয় নাবিকগণ নতুন নতুন দেশ আবিষ্কারের নেশায় পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে অভিযান করত। 

১৪৯২ খ্রিস্টাব্দে ইতালির নাবিক কলম্বাস ইউরোপ থেকে ভারতে আসার জলপথ আবিষ্কার করতে গিয়ে পথ হারিয়ে বর্তমান উত্তর আমেরিকা মহাদেশের পূর্বদিকের দ্বীপপুঞ্জে উপস্থিত হয়ে ওই দ্বীপগুলিকেই ‘ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জ’ বলে মনে করেন।

পরবর্তীকালে ১৫০১ খ্রিস্টাব্দে এক পোর্তুগিজ নাবিক আমেরিগো ভেসপুচি কলম্বাসের পথ অনুসরণ করে উত্তর আমেরিকা মহাদেশের মূল ভূখণ্ডে এসে উপস্থিত হন।

তিনি তখন অনুভব করেন যে এটা ভারতবর্ষ নয়, এটা এক অজানা ভূখণ্ড। তিনি এই মহাদেশের নামকরণ করেন আমেরিকা মহাদেশ।

পৃথিবীর ৩য় বৃহত্তম মহাদেশ হলো উত্তর আমেরিকা মহাদেশ। এটি দেখতে অনেকটা ত্রিভুজাকৃতির।

আয়তনে সবচেয়ে বড় দেশ হলো কানাডা এবং সবচেয়ে ছোট দেশ বার্বাডোস। এ মহাদেশের মোট জনসংখ্যা ৩৬০ মিলিয়ন (২০১৬ সালের হিসেব অনুযায়ী)।

দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ :-

আয়তনে ৪র্থ বৃহত্তম মহাদেশ হলো দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ। এ মহাদেশ দেখতে অনেকটা  ত্রিকোণোকৃতির।

এ মহাদেশের উত্তরে রয়েছে উত্তর ক্যারিবিয়ান সাগর। দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের পূর্বে আছে আটলান্টিক মহাসাগর এবং পশ্চিমে প্রশান্ত মহাসাগর অবস্থিত। 

এই মহাদেশকে ল্ল্যাটিন আমেরিকা বলা হয়। এ মহাদেশের সর্বোচ্চ স্থানের নাম আঙ্কাগুয়া।

এর মধ্যে আয়তনে বৃহত্তম দেশ ব্রাজিল এবং ক্ষুদ্রতম দেশ সুরিনাম। এ মহাদেশে অসংখ্য ছোট বড় দ্বীপ রয়েছে। 

এর মধ্যে অন্যতম দ্বিপ হলো ফকল্যান্ড। দক্ষিণ আমেরিকার রয়েছে পৃথিবীর দীর্ঘতম এবং প্রশস্ততম নদী আমাজান।

এ মহাদেশের অন্তর্গত ইকুয়েডরকে চির বসন্তের দেশও বলা হয়। মহাদেশটির মোট জনসংখ্যা ৪১৯ মিলিয়ন  (২০১৬ সালের হিসেব অনুযায়ী)।

আন্টার্কটিকা মহাদেশ :-

আন্টার্কটিকা মহাদেশ আয়তনে বিশ্বে পঞ্চম। এর মোট আয়তন ১ কোটি ৩৩ লক্ষ ৪০ হাজার বর্গকিলোমিটার। এ মহাদেশের চারপাশে দক্ষিণ মহাসাগর অবস্থিত। 

মহাদেশটি সারাবছর বরফে আচ্ছন্ন থাকে বলে এখানে মনুষ বসবাসের অনুপযোগী।

এই শীতলতম মহাদেশে কোনো দেশ নেই। এখানকার উল্লেখযোগ্য কিছু প্রাণি হলো অ্যালবাট্রস, পেঙ্গুইন, সীল ইত্যাদি।

আরও পড়ুনঃ

টনসিল হলে কি কি খাওয়া যাবে না 

গর্ভাবস্থায় কি কি সবজি খাওয়া যাবে না?

বঙ্গবন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন বিভাগের ছাত্র ছিলেন?

ইউরোপ মহাদেশ :-

মহাদেশ কয়টি ও কি কি আর্টিকেলের পৃথিবীর ৬ষ্ঠ বৃহত্তম মহাদেশ হলো ইউরোপ মহাদেশ।

জ্ঞান-বিজ্ঞান, সাহিত্য-সংস্কৃতি, কৃষি-শিল্প, প্রযুক্তি-গবেষণায় এই মহাদেশ অনেক উন্নত এবং সমৃদ্ধ।

যোড়শ শতাব্দীতে এই মহাদেশের নাবিকদের ভৌগোলিক অভিযানের কারণেই পৃথিবীর অজানা, অচেনা ভূখণ্ডের সন্ধান পাওয়া গেছে। 

শিল্প বিপ্লব এবং আধুনিক যন্ত্র নির্ভর সভ্যতার বিকাশস্থল এই মহাদেশ।

এই মহাদেশের বেশ কিছু দেশ (ইংল্যান্ড, পোর্তুগাল, স্পেন, হল্যান্ড, ফ্রান্স) সারা পৃথিবীতে বাণিজ্য-অভিযান চালিয়েছিল। ফলে এক সময়ে পৃথিবীর অধিকাংশ দেশই এই দেশগুলির উপনিবেশ ছিল। 

এ ইউরোপ মহাদেশের সর্বোচ্চ স্থান মাউন্ট এলবুর্জ যার উচ্চতা(৫,৬৩৩ মিটার)।

৫০টি দেশ নিয়ে ইউরোপ মহাদেশ গঠিত। এর মধ্যে আয়তনে বৃহৎ হলো রাশিয়া এবং ক্ষুদ্রতম হলো ভ্যাটিকান সিটি। 

একটা প্রশ্ন যে রাশিয়া কোন মহাদেশে অবস্থিত? এশিয়া এবং ইউরোপ উভয় মহাদেশে রাশিয়ার অবস্থান হলেও এর রাজধানি ইউরোপে হয়ায় এটি ইউরোপ মহাদেশের অন্তর্ভুক্ত। তাই রাশিয়াকে ইউরেশিয়ার দেশ বলা হয়। 

ইউরোপ মহাদেশের দীর্ঘতম নদী হলো ভলগা। এ মহাদেশে বসবাসকারী জনসংখ্যা ৭৪০ মিলিয়ন (২০১৬ সালের হিসেব অনুযায়ী)।

এশিয়া এবং ইউরোপ মহাদেশকে একত্রে ইউরেশিয়া বজায়ী বলা হয়ে থাকে।

অস্ট্রেলিয়া /ওশেনিয়া মহাদেশ 

মহাদেশ কয়টি ও কি কি আর্টিকেলের আয়তনে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম মহাদেশ হলো অস্ট্রেলিয়া।

এর আয়তন প্রায় ৮৫ লক্ষ ৪ হাজার ২৪১ বর্গকিলোমিটার। এ মহাদেশের সর্বোচ্চ স্থানের নাম পুঁসাক জায়া।

এই মহাদেশে আয়তনে বৃহত্তম দেশ অস্ট্রেলিয়া এবং ক্ষুদ্রতম দেশ নাউরু। অস্ট্রেলিয়া মহাদেশের দীর্ঘতম নদী মারে ডার্লিং। এ মহাদেশের মোট জনসংখ্যা ৪০ মিলিয়ন। 

আরও পড়ুনঃ

ব্যাডমিন্টন কোন দেশের জাতীয় খেলা

Free fire game কোন দেশ তৈরি করেছে?

ফেসবুক পেজ থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়?

মহাদেশ কয়টি ও কি কি FAQS

মহাদেশ কয়টি?

পৃথিবীতে মোট মহাদেশের সংখ্য ৭ টি।

মহাদেশ কয়টি ও কি কি?

মহাদেশ ৭ টি ও নাম গুলি হচ্ছে এশিয়া মহাদেশ, ইউরোপ মহাদেশ, আফ্রিকামহাদেশ, উত্তর আমেরিকা মহাদেশ, দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশ, অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ, অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশ।

রাশিয়া কোন মহাদেশে অবস্থিত?

রাশিয়া এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশে অবস্থিত। তবে রাশিয়ার রাজধানী ইউরোপে হওয়ায় রাশিয়াকে ইউরোপ মহাদেশের একটি দেশ হিসাবে ধরা হয়।

বাংলাদেশ কোন মহাদেশে অবস্থিত?

বাংলাদেশ এশিয়া মহাদেশে অবস্থিত।

শেষ কথা 

আশা করছি মহাদেশ কয়টি ও কি কি আরটিকেলটি শেষ পর্যন্ত পরেছেন। যদি পরে থাকেন তাহলে আপনার এই বিষয়ে আর কোনো প্রশ্ন থাকার কথা না। 

তারপরও যদি আপনার কোনো মতামত থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। 

অনলাইন থেকে ঘরে বসে টাকা কিভাবে সহজেই ইনকাম করতে পারেন সে সংক্রান্ত আর্টিকেল আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে জানতে পড়ুন।

সব বিষয়ে নিত্য নতুন আর্টিকেল পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট। চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজে।    

আরও পড়ুনঃ

নেক সন্তান লাভের দোয়া জানেন কি?

গলায় কাটা নামানোর দোয়া কি?

বাজারে যাওয়ার দোয়া কি?

পড়া মনে রাখার দোয়া কি?

আকিকার পশু জবাই করার দোয়া কি? 

Leave a Comment

10 − 4 =

%d bloggers like this: